সংবাদটি প্রকাশ হয়েছেn: Sat, Feb 11th, 2017
bashundhara

বাদাম চাষে চরাঞ্চলের কৃষকদের আগ্রহ বেড়েছে

badamমাহফুজ-উর রহমান, কুষ্টিয়া প্রতিনিধি : কুষ্টিয়ায় পদ্মা ও গড়াইয়ের বিসত্মীর্ণ চরে এখন বাদাম চাষ হচ্ছে। বাদাম চাষ করে আনেক চাষি ভাগ্য বদল করাই অন্যান্য চাষিরা ব্যপক আগ্রহ  নিয়ে শুরু করেছে বাদাম চাষ।

পুরুষের পাশাপাশি থেকে নেই অনেক মহিলা কৃষকেরা। এই শুষ্ক মৌসুম ও ফারাক্কা বাঁধের কারণে পদ্মা শুকিয়ে যায় ধু ধু বালির প্রান্তে পরিনত হয়ে যায়। এই পদ্মা ও গড়াইয়ের দুই তীরের বিশাল চরের বুক টিরে পদ্মার ক্ষীণ ধারায় প্রবাহিত হয়। এদের মধ্যে নতুন বাদাম উঠিয়ে বাজার জাত করতেও ব্যস্ত সময় পার করছে অধিকাংশ কৃষক।

অলস সময়ে নিজেদের ভাগ্য পরিবর্তনে কাঁশ বাগানে ঢেকে থাকা নদীর চরে এখন বাদামের আবাদ। বেলে মাটিতে প্রথমে দুই চারজন চাষি বাদাম চাষ শুরু করে। এর পরেই  বাদাম চাষে সফলতা দেখে অন্য চাষিরাও বাদাম চাষে নেমে পড়ে।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরসূত্রে জানা যায়, কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার চরে ১৮শ’ ৭৫ বিঘাতে বাদাম চাষ হয়েছে।  এ উপজেলার ফিলিপনগর, রামকৃষ্ণপুর, মরিচা, ফিলিপনগর ও চিলমারি ইউনিয়নের চরে ১০-১২ বছর ধরে বাদাম চাষ হয়ে আস”েছ । বিঘা প্রতি ১০-১২ মণ ফলন। প্রতিমণ বাদাম ১২শ’ টাকা দরে বিক্রি হয়।

এছাড়াও  খোকসা-কুমারখালীর একাংশের চরে প্রায় ৭শ’ ২৫ বিঘা বাদাম চাষে সফলতা পেয়েছেন অনেক কৃষক। চর ব্যাতিত সরকারের খাস জমি লিজ নিয়েও চলছে বাদাম চাষ। এসব জমি  সবসময় দলীয় ক্যাডাররা দখল করে থাকে। তাদের কাছ থেকে লিজ নিয়ে চাষিরা চাষাবাদ করে থাকে। চাষিদের সাথে কথা বলে জানা যায়, এক বিঘাতে বাদাম চাষে ৭-৮ হাজার টাকা ব্যয় হয়। বিঘাতে ১০-১১ মন বাদাম উৎপাদন হয়। বিক্রি করে ১৫-১৬ হাজার টাকা আয় হয়।

বিভিন্ন প্রজাতির বাদামের মধ্যে ঢাকা-১, বিনা-১, বিনা-২, বিনা-৩ ও ঝিঙ্গা জাতের বাদামের চাষ বেশী  হয়ে থাকে।  এসব প্রজাতির বাদাম চাষে লাভজনক হওয়ায়  কৃষকেরা চাষ বাড়ছে। প্রতি বছর চাষ করার জন্য চাষিরা নিজেরাই বাদামের বীজ উৎপাদন করে থাকে।  এছাড়াও বিভিন্ন ¯’ান থেকে চাষিরা বীজ কিনেও চাষ করে আসছে।

বাদাম চাষিদের পাশাপাশি চাষ মৌসুমে অন্যদেরও আত্ম কর্মসং¯’ানের সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে। বাদাম লাগানো থেকে শুরু করে উঠানো পর্যন্ত লোকবলের প্রয়োজন হয়। এসব শ্রমিকেরা দিন মুজুরিতে পারিশ্রমিক পেয়ে থাকে। বাদাম তুলে দিনে এক দেড়শ টাকা মজুরি আয় করে থাকে।

চাষি আব্বাস জানান,  সে বহু বছর ধরে বাদাম চাষ করছেন। লাভজনক হওয়ার তাকে দেখে অনেকেই শুরু করেছে বাদাম চাষ।  তবে এই বাদাম চাষের জন্য চর এলাকায় চাষাবাদের উন্নয়নের জন্য সরকারের উদ্যোগ প্রয়োজন বলে তিনি মনে করেন।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ পরিচালক জানান, এ বছরে অনেক কৃষক বাদাম চাষ করেছে। তবে ঠিকমত দাম না থাকায়  চাষিরা অধিক মাত্রায় তামাক চাষে ঝুঁকে পড়েছে।
সম্পাদনা : আ ই (জি-নিউজবিডি২৪ )

 

আপনার মতামত দিন

আপনাকে অবশ্যই মতামত প্রদানের জন্য লগইন করতে হবে.

August

সর্বশেষ আপডেট

আরকাইভ

February 2017
S M T W T F S
« Jan   Mar »
 1234
567891011
12131415161718
19202122232425
262728