সংবাদটি প্রকাশ হয়েছেn: Thu, May 24th, 2018
bashundhara

বোরহানউদ্দিন হাসপাতালে ডাক্তার সংকট ॥ চিকিৎসা সেবা নিতে আসা রুগিদের ভোগান্তি ॥ ব্যাহত চিকিৎসা সেবা

pick -hospitalবোরহানউদ্দিন প্রতিনিধি (ভোলা) ঃ ভোলা বোরহানউদ্দিন হাসপাতালে ডাক্তার সংকট চরম আকার ধারণ করেছে। যারা আছে তারাও ঠিকমত চিকিৎসা সেবা দিচ্ছে না। এতে গ্রাম-গঞ্জ থেকে চিকিৎসা সেবা নিতে আসা রুগিরা চরম ভোগান্তিতে পড়ছে।

ডাক্তারদের দায়িত্ব অবহেলার কারনে বর্তমান সরকারের চিকিৎসা ক্ষেত্রে নেয়া মহতি উদ্যোগ গুলো ভেস্তে যাচ্ছে বলে মনে করেন সচেতন মহল।

সূত্রমতে জানা গেছে, বোরহানউদ্দিন হাসপাতালে ডাক্তার থাকার কথা রয়েছে ৩০ জন। কাগজে কলমে আছে ১০ জন। ডাক্তার শূন্য ২০ জন। এর মধ্যে ২৮/০৯/২০১৪ সালে ডা: খাদিজা নাজনীন নৈমিত্তিক ছুটি নিয়ে ও ডা: মাহফুজুর রহমান ২৭/০৮/২০১৪ ইং তারিখে যোগদানের পর থেকে অদ্যবধি কর্মস্থলে অনুপস্থিত।

এছাড়া ভোলা সদর হাসপাতালে ডেপুটেশনে ডা: নিরুপম সরকার, তিশাদুর রহমান বাপ্পী ও তজুমদ্দিন হাসপাতালে ডেপুটেশন ডা: মো: মোমিনুল ইসলাম। এখন কর্মস্থলে রয়েছে ৫ জন ডাক্তার। এ উপজেলায় প্রায় ৩ লক্ষ অধিক মানুষের জন্য রয়েছে ৫জন ডাক্তার। আর যারা কর্মস্থলে রয়েছে এরাও ঠিকমত আউটডোর ও জরুরী বিভাগে চিকিৎসা সেবা না দেয়ার অভিযোগ রয়েছে তাদের বিরুদ্ধে।

এছাড়া ২য় শ্রেণীতে থাকার কথা রয়েছে ২০ জন, আছে ১২ জন, শূন্য রয়েছে ৮ জন, , ৩য় শ্রেণীতে থাকার কথা ১৩৫ জন, আছে ১০৫ জন, শূন্য ৩০ জন ও ৪র্থ শ্রেণীতে থাকার কথা রয়েছে ২২ জন, আছে ১৮ জন, শূন্য রয়েছে ৪ জন। এদিকে জনবল সংকটের অজুহাতে কোন রকম খুড়ে খুড়ে চলছে এ হাসপাতালটি।

হাসপাতালের বেডে ও রুমগুলো দূরগন্ধযুক্ত থাকে অধিকাংশ সময়। চিকিৎসা সেবা নিতে যে সকল রুগিরা এ হাসপাতালে ভর্তি হয় তারা আরোও বেশি অসুস্থ হয়ে পড়েন। কারণ চারদিকে নোংরা, ময়লা এবং দূরগন্ধ।

টবগী দালালপুর থেকে আসা আলাউদ্দিন জানান, তার ৯ বছরের সন্তান আফসার কে নিয়ে বোরহানউদ্দিন হাসপাতালে ডাক্তার দেখাতে আসি। কিন্তু ডাক্তার কে পাই নি। তিনি ডাক্তারদেরকে যথা সময় না পেয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

কুতুবা ৮নং ওয়ার্ড থেকে আসা সাথী জানান, তার ২০ মাসের বাচ্চা রথী কে নিয়ে ডাক্তার দেখাতে এসেছি। ডাক্তার পায় নি। তিনি আরোও বলেন, বর্তমান সরকার মানুষকে চিকিৎসা সেবা দিতে আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। কিন্তু কিছু অর্থলোভী ডাক্তারের কারনে সরকার সফল হতে পারছে না।

এব্যাপারে হাসপাতালে ভর্তি রুগির অভিভাবক আ: করিম জানান, আমার বাচ্চা অসুস্থ তাই হাসপাতালে ভর্তি করেছি। কিন্তু নোংরা, ময়লা এবং দূরগন্ধে রুগির সাথে আমরাও অসুস্থ হয়ে পড়ছি।

এব্যাপারে বোরহানউদ্দিন উপজেলা স্বাস্থ্য ও প: প: কর্মকর্তা ডা: জহিরুল ইসলাম শাহিন তাদের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ অস্বীকার করে জানান, হাসপাতালে ডাক্তার সংকট চরম আকার ধারন করেছে। তিনি ডাক্তার সহ শূন্য পদগুলো পুরনে কর্তৃপক্ষের সু-দৃষ্টি কামনা করেন। তিনি আরোও বলেন, আমি কোন মিটিংয়ে কোন স্থানে গেলে এ সুযোগে কিছু ডাক্তার সুযোগ নিতে চায়। এ সকল সমস্যা সমাধানে তিনি কাজ করছেন বলেও জানান।
সম্পাদনা : আ ই (জি-নিউজবিডি২৪ )

bashundhara
The Most Shocking Kim K's Bikini Body Photos

সর্বশেষ আপডেট

আরকাইভ