সংবাদটি প্রকাশ হয়েছেn: Thu, Jun 14th, 2018
bashundhara

আমতলীতে মাদক জীবন থেকে ফিরে আসা ৩১ জন নারী পুরুষের মধ্যে ঈদ সামগ্রী বিতরন

davআব্দুল্লাহ আল নোমান, আমতলী প্রতিনিধি (বরগুনা) : আমতলীতে পুলিশের ডাকে সারা দিয়ে মাদক বিক্রি ও সেবন থেকে সুস্থ ধারায়  ফিরে আসা ৩১ জন নারী পুরষের মধ্যে বৃহস্পতিবার সকালে আমতলী থানা পুলিশের উদ্যোগে ঈদ সামগ্রী বিতরন করা হয়।

গত ৫ মার্চ বিকেলে আমতলী সরকারী একে হাই স্কুল মাঠে  মাদক বিরোধী এক সমাবেশে আমতলীর ৩১ জন মাদক সেবী ও মাদক বিক্রেতা বরিশালের বিভাগীয় পুলিশ পরিদর্শক (ডিআইজি) মো: শফিকুল ইসলাম বিপিএম পিপিএম ও বরগুনার পুলিশ সুপার বিজয় বসাক বিপিএম ও পিপিএম কাছে আত্মসমর্পন করে তারা সুস্থ জীবন ধারায় ফিরে আসার অঙ্গীকর করে।

তখন তাদের  সেলাই মেশিন, ব্যবসার জন্য টাকা দিয়ে পুন:বাসিত করা হয়। মাদক সেবী নারী ও পুরুষরা তাদের বিপথ গামী পেশা থেকে সুস্থ ধারায় ফিরে আসায় আসন্ন ঈদ উল ফিতর উপলক্ষে আমতলী থানা পুলিশের পক্ষ থেকে ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো: আলাউদ্দিন মিলন বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় ৩১ জনের মধ্যে আনুষ্ঠানিক ভাবে ঈদ সামগ্রী বিতরন করেন। ঈদ সামগ্রী বিতরন কালে অনান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন আমতলী থানার ওসি তদন্ত মো: নুরুল ইসলাম বাদল। ঈদ সামগ্রী পেয়ে তানিয়া বেগম জানান, মাদক জীবন থেকে আমরা ফিরে আসাতে পরায় এবং পুলিশ আমাদের বিভিন্ন মালামালসহ ঈদ সামগ্রী দিয়ে সহযোগিতা করায় আমরা তাদের ধন্যাদ জানাই।

আমতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো: আলাউদ্দিন মিলন জানান, মাদক জীবন থেকে ফিরে আসা ৩১ জনকে পুলিশের পক্ষ থেকে পুন:বাসিত করা হয়েছে। মাদক ছেরে অন্যরাও সুস্থ জীবনে ফিরে আসলে সকলকেই আমরা পুন:বাসিত করবো। বরগুনার পুলিশ সুপার বিজয় বসাক বিপিএম, পিপিএম  বলেন, ‘যে মুখে ডাকি মা সে মুখে মাদকে বলি না’ এই শ্লোগান নিয়ে বরগুনায় মাদক বিরোধী কাজ করছি।

আমাদের ডাকে যারা সারা দিয়ে আত্মসমর্পন করছে তাদের মনে রাখার জন্য প্রতি ঈদে আমরা এভাবে সহযোগিতা করবো। এখনো যারা মাদক সেবন ও বিক্রির সাথে জড়িত তাদের বুঝিয়ে সঠিক পথে আনার চেষ্ঠা করছি। সঠিক পথে আসার পর তাদের আমরা পুন:বাসিতও করছি। তিনি আরো বলেন, আমরা বরগুনা জেলাকে মাদক মুক্ত করতে চাই। আমাদের ডাকে সারা দিয়ে যারা আলোর পথে আসবে তাদেরকে আমরা স্বাগত জানাই।
সম্পাদনা : আ ই (জি-নিউজবিডি২৪ )

সর্বশেষ আপডেট

আরকাইভ

June 2018
T F S S M T W
« May   Jul »
 123456
78910111213
14151617181920
21222324252627
282930