সংবাদটি প্রকাশ হয়েছেn: Wed, Jun 20th, 2018
bashundhara

ছাতকে সাংবাদিক চানঁ মিয়ার জানাজায় শোকাহত মানুষের ঢল

sangbadij chan miah. 2আনোয়ার হোসেন রনি, ছাতক থেকে (সুনামগঞ্জ) :  আপনজন হারানোর কান্না। অভিভাবক হারানোর শূন্যতা।

শ্রমজীবী, দিনমজুর থেকে এমপি, সাংবাদিক, সাহিত্যিক, রাজনীতিবীদ, সামাজিক গনমাধ্যম সবার চোখে অশ্রু। হাজারো মানুষের এমন কান্না আর ভালবাসায় চিরবিদায় জানানো হলো সিনিয়র সাংবাদিক চানঁ মিয়া কে।

দৈনিক যুগান্তর স্বজন সমাবেশ উপদেষ্টা ,ছাতক প্রেসক্লাবে সহ সভাপতি ও ইনকিলাব পত্রিকার ছাতক উপজেলা প্রতিনিধি  গত মঙ্গলবার সকালে সিলেট  নগরীর রাগিব রাবেয়া মেডিক্যাল হাসপাতালে ইন্তেকাল করেন (ইন্নালিল¬াহি ওয়াইন্না ইলাইহে রাজেউন)। জানাজা নামাজ শেষে তার পারিবারিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়। সাংবাদিক চান মিয়ার অকাল মৃত্যুতে একজন সাহসিক কলম সৈনিককে হারানোর শোকে আচ্ছন্ন পুরো উপজেলা।

এ উপজেলার কালারুকা ইউপির রাজাপুর গ্রামে তার সহকর্মীদের কান্না আর আহাজারি থামছে না।তার জানাজা এবং দাফনে হাজারো মানুষের অশ্রু আর আহাজারিতে ভারী হয়ে উঠে ছাতকে আকাশ বাতাস। শোকের ছায়া নেমে এসেছে বৃহত্তর শিল্প নগর ছাতকে ।

৫২ বছরের বর্ণাঢ্য জীবনে সাংবাদিক চানঁ মিয়া। দেশের গণতান্ত্রিক আন্দোলনের পাশাপাশি ছাতক উপজেলার জনস্বার্থে ছিলেন আপোসহীন এক লড়াকু কলম সৈনিক। আমৃত্যু ছাতকে মাটি ও মানুষের পাশে থাকা কলম সৈনিক শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করলেন ছাতকে মাটিতেই। তাকে হারিয়ে কাঁদছে পুরো উপজেলাজুড়ে। দলমত নির্বিশেষে সবার কাছে তিনি ছিলেন গ্রহণযোগ্য এক কলম সৈনিক । শোকার্ত হাজার হাজার মানুষ ছুটতে থাকেন তার গ্রামে বাড়িতে। দলমত নির্বিশেষে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতারা ছুটে যান রাজাপুর গ্রামে । সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত রাজাপুর গ্রামকে ঘিরেই ছিল হাজারো মানুষের ভিড়।

আছর নামাজ শেষে তার বাড়ি থেকে সাংবাদিক চান মিয়ার লাশ নিয়ে যাওয়া হয় রাজাপুর বাজারের। বাদ আসর নামাজে জানাজার সময় নির্ধারণ করা হলেও দুপুর থেকে রাজাপুর বাজারমুখী মানুষের স্রোত নেমে আসে ।

গত মঙ্গলবার বিকালে সাড়ে ৫টায় নামাজে জানাজায় ইমামতি করেন তার পুত্র হাফিজ শাহিন আলম। সাংবাদিক চান মিয়ার মৃত্যুকালে পাঁচ পুত্র এক কন্যা স্ত্রীসহ অসংখ্য আতœীয় স্বজন ও গুনগাহী রেখে মারা যান।এ উপলক্ষে ছাতক প্রেসক্লাব পক্ষ থেকে তিন দিনের শোক ঘোষনা করছেন।

জানাজার পূর্বে সংক্ষিপ্ত বক্তব্য রাখেন, ছাতক পৌর বিএনপির সভাপতি আলহাজ্ব সৈয়দ মোহাম্মদ তিতুমীর,সামছুর রহমান সাসছু,নজরুল ইসলাম,রুহুল আমিন , ছাতক সদর ইউপি চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম, উত্তর খুরমা ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান নিজাম উদ্দিন, দৈনিক সমকালের সিলেট বুরো প্রধান মুকিত রহমানী, দৈনিক জনতার বুরো চীফ কামাল আহমদ, সিলেট বিভাগীয় অনলাইন প্রেসক্লাব সহ-সভাপতি তালুকদার মোঃ মকবুল হোসেন, কালারুকা ইউপি আ’ লীগের সভাপতি আফতাব উদ্দিন সাধারণ সম্পাদক আব্দুল আউয়াল, বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সদস্য মাসুদ কামাল সুফি, সুনামগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম, বুরাইয়া কামিল মাদ্রাসার ভাইস প্রিন্সিপাল সিরাজুল ফারুকী, বিশ্বনাথ প্রেসক্লাব সভাপতি আবুল খায়ের, দক্ষিণ সুনামগঞ্জ প্রেসক্লাব সভাপতি জমিরুল ইসলাম মমতাজ, আব্দুল হামিদ, ছাতক প্রেসক্লাব সভাপতি আলহাজ্ব গিয়াস উদ্দিন তালুকদার, সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন রনি, ছাতক উপজেলা প্রধান শিক্ষক সমিতির সাধারন জয়নাল আহমদ,সামছুল ইসলাম,নুরুল হক,কাজি আব্দুস সামাদ, আব্দুল মমিন,সদরুল আমিন সোহান,আশরাফ আহমদ, মুক্তিযোদ্ধা কবির উদ্দিন লালা,জেলা জাগপা সভাপতি আমিনুল ইসলাম বকুল, জাতীয় পার্টির সাবেক সাধারণ এডভোকেট আবুল হাসান. ছাতক উপজেলা খেলাফত মজলিস সভাপতি মাওলানা আকতার হোসাইন. ইসলামপুর যুব ও সমাজ কল্যান সংস্থার সভাপতি মাওলানা আকিক হোসাইন, জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য আ ন ওহিদ কনা মিয়া, গোবিন্দনগর মাদ্রাসার প্র্রিন্সিপাল মাওলানা আব্দুস সালাম আল মাদানী, ছাতক দোয়ারা উন্নয়ন পরিষদের সভাপতি এডভোকেট রেজাউল করিম তালুকদার, সুনামগঞ্জ জেলা পরিষদ সদস্য আব্দুস শহিদ মুহিত, জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় নেতা আলহাজ্ব জাহাঙ্গীর আলম, তার জানাজায় হাজারো  মানুষের অংশগ্রহণ প্রমাণ করে তিনি ছাতকবাসীর কত আপন ছিলেন।

তার জীবদ্দশায় যদি কোন ভুল করে থাকেন অথবা কারো মনে যদি কোন কষ্ট দিয়ে থাকেন তার জন্য ক্ষমা চান ছাতক প্রেসক্লাবে সভাপতি আলহাজ্ব গিয়াস উদ্দিন তালুকদার, বিএনপি কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান মিজান, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আবু সাহাদাত লাহিন, সুনামগঞ্জ জেলা বিএনপির সভাপতি সাবেক এমপি কলিম উদ্দিন আহমদ মিলন, শোকাহত সভাপতি গিয়াস উদ্দিন তালুকদারে এ বক্তব্যের সময় রাজারপুর জুড়ে কান্নার রোল উঠে।তার  মাগফিরাত কামনায় মোনাজাত চলাকালে অসংখ্য মানুষ কান্নায় ভেঙে পড়েন। সিলেট বিভাগের বিভিন্ন জেলা ও উপজেলার সংবাদকর্মীদের পাশাপাশি সাধারণ মানুষকে ও অঝোরে কাঁদতে দেখা যায়। জানাজায় বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দ, পেশাজীবী নেতৃবৃন্দের পাশাপাশি সাধারণ মানুষ বিশেষত শ্রমজীবী ও খেটে খাওয়া মানুষের অংশগ্রহণ ছিল চোখের পড়ার মতো।

সাংবাদিক চান মিয়াকে তার পারিবারিক কবরস্থানে পিতা আকল আলীর কবরের পাশে তাকে দাফন  হয়। চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন সিনিয়র সাংবাদিক চান মিয়া । এদকিে আজ বুধবার ছাতক প্রেসক্লাবের উদ্দ্যোগে এক শোক সভায় অনুষ্টিত হয়। আলহাজ্ব গিয়াস উদ্দিন তালুকদারে সভাপতিত্বে সাধারন সম্পাদক আনোয়ার হোসেন রনি পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন যুন্মসম্পাদক আমিনুল ইসলাম হিরন, নুরুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক রেজাউল করিম রেজা, অর্থ সম্পাদক আতিকুর রহমান,কামরুল হাসান সবুজ, জুনাইদ আহমদ, নজমুল ইসলাম, সদরুল আমিন, মাহবুব আলম, হেলাল আহমদ, আরিফুর রহমান মানিক, মুশাহিদ আলী প্রমুখ।

সাংবাদিক চান মিয়া আজীবন অসহায় মানুষের কল্যাণে কাজ করে গেছেন। তার আত্মার মাগফিরাত কামনা ও শোকাহত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান। তার অকাল মুত্যুতে এক শূন্যতার সৃষ্টি হয়েছে।

সাংবাদিক চান মিয়ার মৃত্যুতে জি-নিউজবিডি২৪.কম এর পক্ষ থেকে তার বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা সহ মহান আল্লাহর নিকট প্রার্থনা করছি যেন, তার শোকাহত পরিবারবর্গ ও আত্মীয়স্বজন এই শোক সহ্য করতে পারে । তিনি জি-নিউজবিডি২৪.কম কে নিজের একটা পত্রিকা মনে করে নিউজ পাঠাতেন, তিনি বিগত দু বছর যাবৎ ছাতকের নিউজ দিতেন। সত্যিকার অর্থেই তিনি যেমনি একজন আপোসহীন এক লড়াকু কলম সৈনিক ছিলেন। ঠিক তেমনি জি-নিউজবিডি২৪.কম একজন গুনি সাংবাদিককে হারালো।
সম্পাদনা : আ ই (জি-নিউজবিডি২৪ )

bashundhara
The Most Shocking Kim K's Bikini Body Photos

সর্বশেষ আপডেট

আরকাইভ