সংবাদটি প্রকাশ হয়েছেn: Sun, Jul 22nd, 2018
bashundhara

গাংনী; নি¤œমানের সামগ্রী দিয়ে রাস্তা নির্মাণ

Gangni Pic- 22-07-18মজনুর রহমান আকাশ, মেহেরপুর প্রতিনিধি: গাংনীর বাঁশবাড়িয়া –  কলোনি পাড়া সড়ক নির্মাণ কাজে নি¤œমানের সামগ্রী ব্যবহার করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। পোড়া মাটি দিয়ে রাস্তা নির্মান করায় এলাকাবাসি উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে আবেদন জানালে রোববার দুপুরে তিনি পরিদর্শনে গিয়ে সত্যতা পান।

এদিকে উপজেলা নির্বাহী অফিসার কাজ বন্ধ রাখার নির্দেশ দিলেও সংশ্লিষ্ট কাজের ঠিকাদার আদেশ উপেক্ষা করে কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন।

উপজেলা প্রকৌশলী সুত্রে জানা গেছে, গত অর্থবছরের খুলনা প্রজেক্টের ৮০ লাখ টাকা ব্যায়ে নির্মিত সড়কটির কাজ পায় জহিরুল ট্রেডার্স। এক হাজার ৭০০ মিটার রাস্তার কাজটি বাস্তবায়ন করছেন বিশিষ্ট ঠিকাদার ও মেহেরপুর জেলা পরিষদের সদস্য মজিরুল মিয়া। কাজটির শুরুতেই ঠিকাদারের লোকজন নি¤œমানের ইট ও বালু ব্যবহার করেন। বিভিন্ন ইটভাটার আমা ইট  পোড়ামাটি) ও নি¤œমানের ভাঙ্গা ইট দিয়ে কাজ করতে থাকেন। বিষয়টি স্থানীয় লোকজন গাংনী উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে জানালে গতকাল রোববার দুপুরে তিনি সরেজমিন পরিদর্শন করেন এবং খারাপ ও নি¤œমানের সামগ্রী সরিয়ে ফেলতে নির্দেশ দেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা স্থান ত্যাগ করার সাথে সাথে আবারো ওই নি¤œ মানের সামগ্রী দিয়ে কাজ করতে নির্দেশ দেন সংশ্লিষ্ট ঠিকাদার।

স্থানীয় লোকজন জানান, ওই এলাকার কয়েক লাখ লোকের চলাচলের একমাত্র রাস্তাটি নি¤œমানের সামগ্রী দিয়ে নির্মিত হলে অল্প দিনেই এটি নষ্ট হয়ে যাবে। তাছাড়া কাচামাল বহনে মারাত্মক সমস্যার সৃষ্টি হবে।

এব্যাপারে ঠিকাদার মজিরুল মিয়া বলেন, অন্য কোন জায়গার মালামাল হয়তো ওখানে নেয়া হয়েছে। বিষয়টি দেখা হচ্ছে।

কাজের তদারকির দায়িত্বে থাকা উপ-সহকারী প্রকৌশলী আব্দুর রহিম জানান, কিছু মালামাল নি¤œমানের ছিল। উপজেলা নির্বাহী অফিসার সরেজমিনে গিয়ে নি¤œমানের সামগ্রী সরিয়ে নিতে নির্দেশ দেন। নি¤œমানের সাগমগ্রী দিয়ে আবারো কাজ শুরু হয়েছে জানালে তিনি চিৎলা গ্রামের একটি মসজিদে অবস্থান করছেন বলে জানান।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিষ্ণুপদ পাল জানান, স্থানীয়দের সংবাদের ভিত্তিতে পরিদর্শনে গিয়ে নি¤œমানের সামগ্রী দেখা গেছে এবং তা সরিয়ে নিতে বলা হয়েছে বলে জানান। আবারো ওই সামগ্রী দিয়ে কাজ শুরু হয়েছে জানালে তিনি পরিদর্শনে যাবেন বলে মতামত ব্যক্ত করেন।
সম্পাদনা : আ ই (জি-নিউজবিডি২৪ )

সর্বশেষ আপডেট

আরকাইভ

July 2018
T F S S M T W
« Jun   Aug »
 1234
567891011
12131415161718
19202122232425
262728293031