সংবাদটি প্রকাশ হয়েছেn: Wed, Aug 8th, 2018
bashundhara

বল টেম্পারিং-কটূক্তি ইস্যুতে কঠোর আইসিসি

iccজি-নিউজবিডি২৪ডেস্ক : জেন্টালম্যান’স গেইম ক্রিকেট। তবে সম্প্রতি ক্রিকেটারদের বাজে আচরণ-স্লেজিং আর বল টেম্পারিং ইস্যুতে উদ্বেগ বাড়ছে। খেলাটির মর্যাদা ধরে রাখতে আরো কঠোর আইনের তাগিদ দিয়েছে এমসিসির বিশেষ প্যানেল। স্লো ওভার রেট সমস্যা দূর করতে নতুন আইন প্রণয়নের পরামর্শ তাদের।

সময় ক্ষেপণে টালবাহানা, শুধু ফুটবলেই নয়, বড় সমস্যা আধুনিক ক্রিকেটে। টেস্ট ক্রিকেটে ওভার রেট নেমে এসেছে গত ১১ বছরের সর্বনিম্নে। টি টোয়েন্টিতেও অহেতুক কালক্ষেপণ নষ্ট করছে খেলার সৌন্দর্য।

স্লো ওভার রেট বিতর্কে নতুন মোড় এসেছে সবশেষ এজবাস্টন টেস্টের পর। বিশ্লেষকরা বলছেন- স্লো ওভার রেট সমস্যা সামলানো গেলে ফল হয়তো ভিন্ন হতো এজবাস্টনে।

এমসিসির বিশেষ সভায় স্বাভাবিকভাবেই এসেছে বল টেম্পারিং প্রসঙ্গ। স্মিথ-ওয়ার্নারদের নিষেধাজ্ঞাকে সময়োপযোগী বলছেন পন্টিং-গাঙ্গুলিরা। তাগিদ দিয়েছেন আরো কঠোর আইনের। তবে বোলারদের অসহায়ত্বের দিকটিও নজর এড়ায়নি এমসিসি প্যানেলের।

অস্ট্রেলিয়ার সাবেক অধিনায়ক রিকি পন্টিং বলেন, “শট ক্লকের ধারণাটা অনেকের বাড়াবাড়ি মনে হতে পারে, তবে ক্রিকেটে আশংকাজনকভাবে কমে যাচ্ছে ওভার রেট। ম্যাচে ডেড টাইম কমাতে নানা ধরণের জরিমানার প্রস্তাব ভেবে দেখা হচ্ছে। স্লো ওভার রেট সমস্যার জন্য এ মুহূর্তে রান পেনাল্টিকে সবচেয়ে ভালো সমাধান মনে হচ্ছে। গত দশ বছরে রিভার্স সুইং বোলারদের জন্য বড় একটা ইস্যু হয়ে দাঁড়িয়েছে। কারণ তারা উইকেট থেকে খুব একটা সহায়তা পাননা।”

বল টেম্পারিংয়ের পাশাপাশি কটূক্তি আর সাম্প্রতিক সময়ে ক্রিকেটারদের আচরণ বিধি ভাঙ্গার প্রবণতা ভালো চোখে দেখছেনা ক্রিকেটের সর্বোচ্চ সংস্থা। চার দিনের টেস্ট ইস্যুতে সিদ্ধান্ত নিতে আরো সময় চায় আইসিসি।

আইসিসির প্রধান নির্বাহী ডেভ রিচার্ডসন বলেন, “পাঁচ দিনের টেস্টে তারাই জেতে, যারা শেষপর্যন্ত লড়াই করার সামর্থ্য রাখে। আবার চার দিনে তা নামিয়ে আনলে ম্যাচে হয়তো প্রতিদ্বন্দ্বিতা বাড়বে। মাঠে ক্রিকেটারদের বাজে আচরণ, অপ্রয়োজনীয় শারীরিক সংঘর্ষ, হুমকি খেলাটিকে ঝুঁকির মধ্যে ফেলে দিচ্ছে।

এছাড়া অলিম্পিকে ক্রিকেট অন্তর্ভুক্ত করার বিষয়ে প্রাথমিকভাবে সম্মত হয়েছে আইসিসি। ঘোষণা দিয়েছে ২০২২ কমনওয়েলথ গেমসে নারী ক্রিকেট অন্তর্ভুক্ত করার।
সম্পাদনা : আ ই (জি-নিউজবিডি২৪ )

সর্বশেষ আপডেট

আরকাইভ

August 2018
T F S S M T W
« Jul    
 1
2345678
9101112131415
16171819202122
23242526272829
3031