1. gnewsbd24@gmail.com : admi2019 :
শনিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৩:৪৫ পূর্বাহ্ন

তানোরে করাত কলের ইঞ্জিনের বিকট শব্দে অতিষ্ঠ জনসাধারণ

আব্দুস সবুর, তানোর প্রতিনিধি(রাজশাহী) ঃ
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ২৩ জুলাই, ২০২০
  • ২০ বার পঠিত

রাজশাহীর তানোর পৌর এলাকার আমশো উচ্চ বিদ্যালয় এবং মুল সড়কের পশ্চিমে অবস্থিত করাত কল বা স্ব মিলের ডিজেল চালিত ইঞ্জিন মেশিনের বিকট শব্দে চরম অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছেন আশপাশে বসবাসরত বাসিন্দারা বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।গত ২২ জুলাই বুধবার এক প্রকার বাধ্য হয়েই বিকট শব্দের ইঞ্জিন বন্ধের জন্য ও পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষার দাবিতে আমশোগ্রাম বাসির পক্ষে স্ব মিল সংলগ্ন বাসিন্দা আজাহার আলী উপজেলা নির্বাহী বরাবর লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

ডিজেল চালিত ইঞ্জিলের বিকট শব্দ বন্ধের জন্য বসবাসরত বাসিন্দারা একাধিকবার নিষেধ করলেও কোন ধরনের কর্ণপাত না করে দেদারসে চালিয়ে যাচ্ছেন ওই গ্রামের ও করাত কলের মালিক হুরমত আলী সরকার।ফলে বিকট শব্দের ইঞ্জিন বন্ধ না হলে ঘটতে পারে সংঘর্ষ বলে আশঙ্কা রয়েছে।

অভিযোগে উল্লেখ, তানোর পৌরসভার আমশোগ্রামের আবাশিক এলাকায় এবং বসবাসরত একাধিক বাড়ির পিছনে বা সংলগ্ন জায়গায় পরিবেশ অধিদপ্তরের অনুমতি ছাড়াই ওই গ্রামের বাসিন্দা হুরমত আলী সরকার করাত কল বা স্ব মিল নির্মাণ করেছেন। নির্মাণের শুরুতেই সংলগ্ন বাসিন্দারা নিষেধ করেন। কিন্তু নির্মাণের সময় হুরমত আলী সবাইকে আশ্বাস দিয়েছিলেন কোন ধরনের শব্দ থাকবেনা এবং বিদ্যুতের মাধ্যমে চালানো হবে।

অথচ তিনি সবার কথা অমান্য করে ডিজেল চালিত মেশিন দিয়ে দিনরাত কাঠ ফাড়াই করে আসছে। স্ব মিলের পূর্ব দিকে রয়েছে আমশো উচ্চ বিদ্যালয়। ডিজেল চালিত মেশিনের শব্দে শিক্ষার্থীদেরও সমস্যা সৃষ্টি হয় অভিযোগে বলা হয়েছে। এমনকি ডিজেল চালিত মেশিনের কালো ধুয়ার কারনে মাত্রাতিরিক্ত কার্বন ও শিশা নিঃসরনের জন্য বাসিন্দা চরম জনস্বাস্থ্য ঝুঁকিতে আছেন।

অভিযোগকারী আজাহার জানান যখন মেশিন চালু করে তখন থেকে এত বিকট শব্দ হয় যা কল্পনাতীত। রাতে ঠিকমত ঘুমানো যায়না। শুধু তাই না মিলের পাশে যারাই বাস করেন প্রত্যেকে চরম বিরক্ত হয়ে পড়েছেন এবং ছেলে মেয়েরা শব্দের জন্য পড়ালেখাও করতে পারেন না। এই মেশিনের কালো ধুয়া বাড়ির ভিতরেও ঢুকে পড়ে। যার ফলে পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষার জন্য দ্রুত ব্যবস্থা নেয়া দরকার বলে জানান তিনি।

তবে স্ব মিলের মালিক হুরমত আলী সরকার জানান দীর্ঘ কয়েকযুগ ধরে মেশিন চালিয়ে আসছি, এত দিনে তাঁর সমস্যা হল না। আর এখন প্রতিহিংসা ভাবে আমার ব্যবসা বন্ধ করতে উঠে পড়ে লেগেছে।

এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুশান্ত কুমার মাহাতো জানান অভিযোগ আমার কাছে এস পৌছলে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

এ জাতীয় আরো খবর..

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি  © All rights reserved © 2011 Gnewsbd24
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazargewsbd451