1. gnewsbd24@gmail.com : admi2019 :
রবিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০১:৪৮ পূর্বাহ্ন

পরিবহনে অতিরিক্ত যাত্রী ভাড়াও দ্বীগুণ

জহুরুল ইসলাম খোকন, সৈয়দপুর প্রতিনিধি (নীলফামারী) ঃ
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ১২ আগস্ট, ২০২০
  • ২১ বার পঠিত

মাস্ক ব্যবহারে সরকার বাধ্যতামূলক ঘোষণার সিদ্ধান্ত নিলেও নীলফামারীর সৈয়দপুরে মাস্ক ব্যবহার নেই বললেই চলে। শহর বা গ্রামের মানুষ মাস্ক ব্যবহার বা ভাইরাস সতর্কতা প্রায় ছেড়েই দিয়েছে। এছাড়া গণপরিবহনেও মানা হচ্ছে না স্বাস্থ্যবিধি। যাত্রী পরিবহনে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলাচল করার ঘোষনা দেওয়া হলেও গদাগদি করে যাত্রী পরিবহন করা হচ্ছে।

সৈয়দপুর থেকে রংপুর বা সৈয়দপুর থেকে দিনাজপুর যাতায়াতের জন্য বাস মালিকরা ডাবল সিট ১০০ টাকা ভাড়া আদায় করলেও বর্তমানে সেটিও মানা হচ্ছেনা। স্বাস্থ্যবিধি না মেনে অতিরিক্ত যাত্রী পরিবহন করা হলেও ভাড়া রয়েছে আগের মতই। যাত্রীদের কাছ থেকে দ্বিগুন ভাড়া আদায় করার ফলে প্রতিনিয়ত ঝগড়া লেগেই রয়েছে।

জানা যায়, প্রায় আড়াই মাস বন্ধ থাকার পর গত জুন থেকে শুরু হয় পরিবহন চলাচল। তবে গাড়ী চলাচলের পূর্বে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলাচলের সিদ্ধান্ত হয়। বাস মালিক ও যাত্রীরা যাতে ক্ষতিগ্রস্ত না হন সে জন্য সরকার ৬০ শতাংশ ভাড়া আদায়ের ঘোষণা দেন। কিন্তু এই সিদ্ধান্ত বাস মালিকরা মাত্র ৬/৭ দিন মানলেও বর্তমানে দ্বিগুন যাত্রী পরিবহনের পাশাপাশি ভাড়াও দ্বিগুন নিতে শুরু করেছেন।

একাধিক যাত্রী অভিযোগ করেন ভেজাল ব্যবসায়ী ও দুর্নীতিবাজদের বিরুদ্ধে প্রায় প্রতিদিনই চালানো হচ্ছে সাড়াশি অভিযান। কিন্তু স্বাস্থ্যবিধি না মেনে অতিরিক্ত যাত্রী পরিবহন ও দ্বিগুন ভাড়া আদায়ের বিরুদ্ধে প্রশাসন কোনো প্রকার অভিযান চালাচ্ছেন না। গত মঙ্গল ও বুধবার সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় সৈয়দপুর থেকে নীলফামারী, দিনাজপুর, রংপুর ও পার্বতীপুর মুখে প্রতিটি বাসেই অতিরিক্ত যাত্রী পরিবহন করা হচ্ছে। একই সাথে ভাড়াও নেওয়া হচ্ছে দ্বিগুন। অতিরিক্ত ভাড়া নেওয়া হচ্ছে কেনো এবং কেনই বা স্বাস্থ্যবিধি না মেনে যাত্রী উঠানো হচ্ছে জানতে চাইলে এক বাস কন্ট্রাক্টর জানান, এই প্রশ্নের উত্তর তিনি দিতে নারাজ।

নজরুল নামের এক যাত্রী জানান ফাকা বাস পেয়ে রংপুর যাওয়ার উদ্দেশ্যে ডাবল সিট ১০০ টাকায় টিকিট কেনে উঠে বসেন তিনি। এরপর একে একে প্রায় ৪০ জন যাত্রী। ডাবল সিটের টিকিট কেনার পরও তার সিটে বসে পড়েন আর একজন। এক সিট ১০০ টাকায় কেনো নিবেন প্রশ্ন করা হলে তাকে হাত ধরে বাস থেকে নেমে দেওয়ার চেষ্টা চালানো হয় বলে জানান তিনি।

এ বিষয়ে জানতে চাইরে নীলফামারী মটর শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি আখতার হোসেন বাদল জানান এমন অভিযোগ তিনি পান নি। তবে কেউ যদি অন্যায়ভাবে যাত্রীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত ভাড়া নিয়ে থাকে এবং অতিরিক্ত যাত্রী পরিবহন করে থাকে তাহলে অবশ্যই ব্যবস্থা নেওয়ার দরকার বলে তিনি সাংবাদিকদের জানান।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

এ জাতীয় আরো খবর..

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি  © All rights reserved © 2011 Gnewsbd24
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazargewsbd451