1. gnewsbd24@gmail.com : admi2019 :
বুধবার, ০২ ডিসেম্বর ২০২০, ০১:৩৮ অপরাহ্ন

মোংলা বন্দরে পোস্তদানা আটকের ঘটনায় মামলা

বাগেরহাট প্রতিনিধি :
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ১৬ আগস্ট, ২০২০
  • ৩৫ বার পঠিত

বাগেরহাটের মোংলা বন্দরে মিথ্যা ঘোষনা দিয়ে আমদানী নিষিদ্ধ পোস্তদানা আটকের ঘটনায় শিপিং এজেন্টসহ দুই আমদানী কারকদের বিরুদ্ধে মোংলা থানায় মামলা করা হয়েছে। রোববার বিকেলে মোংলা কাস্টমস হাউজ এর সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা মোঃ ইমদাদুল হক বাদী হয়ে ১৯৭৪ সালের বিশেষ ক্ষমতা আইনের ২৫-(বি)-১ (বি) ধারায় মামলা দায়ের করেন।

মামলা দায়ের করা হয়। মামলায় কন্টিনার বোঝাই পন্য আমদানি কারক প্রতিষ্ঠান ঢাকার মেসার্স তাজ ট্রডার্স ও চকবাজারের চম্পাতলি লেনের ০৬/১০ এর মেসার্স আয়শা ট্রেডার্স এবং শিপিং এজেন্ট মেসার্স ওসান ট্রেডার্স লিঃ এর কর্তৃপক্ষকে আসামী করা হয়। আমদানীর সাথে সংশ্লিষ্টদের গ্রেফতার এবং ঘটনার মুল রহস্য উদঘাটনের জন্য তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

মোংলা বন্দরের কাষ্টমস হাউজ’র করা মামলার সুত্রে জানা যায়, কন্টেইনারবাহী একটি বিদেশী বানিজ্যিক জাহাজ ‘এমভি সানভিওর ভিউ’ মালোয়শিয়ার তানজান পিলিপাস বন্দর থেকে ছেড়ে আসে। সিঙ্গাপুরে যাত্রা বিরতির পর এ জাহাজটি গত ৯ আগষ্ট মোংলার বন্দরের জেটিতে কন্টোইনার খালাস শেষে করে চলে যায়।

তবে এ জাহাজটি বন্দের নঙ্গরের আগেই কাস্টমস কর্তৃপক্ষের কাছে আমদানি নিষিদ্ধ পন্য এবং মদের চালান রয়েছে এবং কন্টেইনারে থাকা এ পন্য সি এন্ড এফ ও বন্দর জেটি থেকে অসাধু লোকদের সহায়তায় কন্টেইনার ভেঙ্গে মাদকের কাচামালগুলো সরিয়ে নেয়া হবে এমন গোপন খবর আসে। আর এ খবরের ভিত্তিতে বন্দরে জেটিতে খালাসের পর পরই ওই আমদানী কারকেদের আনা ৪টি কন্টেইনার শনাক্ত ও নজরদারীতে রাখে কাস্টমস।

১২ আগস্ট আমদানী কারকসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে চিঠির মাধ্যমে কন্টেইনার ৪টি উম্মুক্তভাবে খুলে পরিক্ষার করার জন্য তাদের জানানো হয়। চিঠির জবাব না পেয়ে পুনরায় চিঠির মাধ্যমে কাস্টমস পরিা-নিরিা করে ওই কন্টেইনারে থাকা পন্য খালাসের জন্য জানায় আমদানী কারকদের। কিন্ত চিঠি পাওয়ার পরেও আমদানীকারক প্রতিষ্ঠান এতে কোন কর্নপাত না করায় তাদের সন্দেহ আরো বেড়ে যায়।

বৃহস্পতিবার বন্দর কর্তৃপ, কাষ্টমস, সি এ্যান্ড এফ এজেন্ট, শিপিং এজেন্ট, চেম্বার অফ কামার্সসহ সংশ্লিস্ট সকলের উপস্থিতিতে বন্দর জেটিতে এ কন্টেইনার খুলে আমদানী নিষিদ্ধ ২ হাজার ৬শ’ ৬৯ টি বস্তায় ৬৮ হাজার ২ শ’ ৬৫ কেজি পোস্তদানা পাওয়া যায়। প্রতি কন্টেইনারে ১৮মেঃ টন করে চারটি কন্টিনারে মোট ৭২ মেঃ টন পোস্তদানা রয়েছ। যার আনুমানিক মুল্য ১৮ কোটি টাকা বলে জানায় কাস্টমসের এ কর্মকর্তারা।

পরে মোংলা বন্দরে টেনিসবল ও পাটি স্প্রে নামে আনা আমদানী নিষিদ্ধ ৪টি কন্টেইনার বোঝাই পোস্তদানা জব্দ করেছে মোংলা কাস্টম কর্তৃপক্ষ। আমদানিকারকরা তাদের কাগজপত্রে টেনিসবল ও পাটি স্প্রে’র চালান থাকলেও এখানে অবৈধবাবে নিষিদ্ধ পোস্তদানা আমদানী করেছেন তারা।

মোংলা থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ ইকবাল বাহার চৌধুরী জানায়, মোংলা বন্দরে মিথ্যা ঘোষনা দিয়ে বিদেশ থেকে এক পন্যের পরিবর্তে নিষিদ্ধ অন্য পন্য আমদানী করার ঘটনায় শিপিং এজেন্টসহ দুই আমদানী কারকেদের বিরুদ্ধে মামলা করেছে মোংলা কাস্টমস হাউজ। আমদানীর সাথে সংশ্লিষ্টদের গ্রেফতার ও ঘটনার মুল রহস্য উধঘাটনের জন্য তদন্তসহ গ্রেফতারে অভিযান শুরু হয়েছে বলে জানায় পুলিশ এ কর্মকর্তা।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

এ জাতীয় আরো খবর..

cover3.jpg”><img src=”https://www.bssnews.net/wp-content/uploads/2020/01/Mujib-100-1.jpg”>

via Imgflip

 

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি  © All rights reserved © 2011 Gnewsbd24
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazargewsbd451