1. gnewsbd24@gmail.com : admi2019 :
শনিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৩:২২ অপরাহ্ন

বীর মুক্তিযোদ্ধা বেঙ্গল চেতনার বাতিঘর

মোঃ মঞ্জুর হোসেন ঈসা ঃ
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ১৪ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ৮ বার পঠিত

একজন মানুষ, সত্যিকার মানুষ, দেশপ্রেমিক মানুষ, মানবদরদি মানুষ হিসেবে যে ব্যক্তিটিকে চিনতাম ও জানতাম তিনি হলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা জননেতা ইসমাইল হোসেন বেঙ্গল। বেঙ্গল ভাইকে যতবার দেখেছি, কথা বলেছি ততবারই আত্ম বিশ্বাস, দেশ প্রেম ও আত্মপ্রত্যয় বেড়ে গেছে। মানুষের জন্য কিছূ করতে হলে মানবিক হতে হয়।

তিনি ছিলেন একজন খাটি মানবিক মানুষ। যখন তখন, রাত-বেরাত ফোন করে খবর নিতেন অজস্র মানুষের সেই তালিকায় আমি নগন্য মানুষ ছিলাম। ১৯৯৮ সালে প্রথম তার সাথে আমার পরিচয়। তার পর থেকেই মৃত্যুর আগদিন পর্যন্ত প্রতি মূহুর্তে যোগাযোগ রেখেছিলেন। করোনা কালীন মহা দূর্যোগেও আমি ঢাকার বাহিরে বাড়িতে অবস্থান করছিলাম।

হঠাৎ একদিন ফোন করে আমার কাছে জানতে চাইলো ছোট ভাই তোমার কি কোন অসুবিধা আছে। আমি তার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে বিনীত ভাবে বলেছিলাম ভালো আছি ভাই দোয়া করবেন তখন তিনি বলেছিলেন তুমি তো ভালো আছো তোমার সহযোদ্ধারা ভালো আছে তখন আমার কাছ থেকে কয়েকজনের নাম ও মোবাইল নাম্বার চেয়েছিলেন আমি তাদের নাম ও মোবাইল নাম্বার দিয়ে দিলে তাদেরকে বিকাশ করে আমার কথা বলেছিলেন তোমাদের ভাইয়ের অনুরোধে আমার পক্ষ থেকে যৎসামান্য করলাম।

এভাবেই বিভিন্ন সময় তৃণমূল নেতাকর্মীদের খবর নিতেন কে কোন দল করতো এ বিষয় তার কাছে কোন বিবেচ্য বিষয় ছিল না। তিনি দেখতেন মানুষটি রাজপথের পরিক্ষীত কিনা? ১/১১’র সেই দুঃসময়ে যখন শীর্ষ নেতারা আত্ম গোপনে ছিলেন তখন তিনি আমাদের মত রাজপথের কর্মীদেরকে নিয়ে শীর্ষ দুই নেত্রীর মুক্তিসহ গণতন্ত্র ও ভোটের অধিকার ফিরিয়ে আনার জন্য সংগ্র্রাম করেছিলেন। তার সাহসী বক্তব্য ও স্পষ্ট উচ্চারণ সবাইকে সাহস যোগাতো। তিনি ছিলেন রাজপথের সাহসী বাতিঘর।

রাজনীতিতে তিনি বার বার প্রতারণার শিকার হয়েছিলেন। তবে কখনও জাতীয়তাবাদ ও ইসলামী মূল্যবোধের বাহিরে গিয়ে রাজনীতি করেননি। সবাই তাকে ব্যবহার করেছেন। কিন্তু যথাযথ মর্যাদা প্রদান করেননি। সেই কারণে বিভিন্ন সময় রাজনীতির বিভিন্ন সমীকরণে দল বদলালেও নিজের আদর্শ ও উদ্দেশ্য থেকে এক পাও পিছপা হননি।

তিনি জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামকে মনে প্রাণে ধারণ করতেন। মজলুম জননেতা মওলানা আব্দুল হামিদ খান ভাসানী, শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান বীর উত্তম, পল্লী বন্ধু হোসাইন মুহাম্মদ এরশাদ এবং সর্বশেষ ড. কর্ণেল অবঃ অলি আহম্মেদ বীর বিক্রমকে লালন করতেন। তার জীবনে কখনও অন্যায়ের সাথে আপোষ করেননি।

মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম বীর সিপাহসালার ইসমাইল হোসেন বেঙ্গল অনেক গুণে গুণান্বিত একজন মানুষ ছিলেন । তিনিযেমন সু-মধুর কন্ঠে পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত করতে পারতেন তেমনি ভরাট কন্ঠে আবৃত্তিও করতেন। একসময় জনপ্রিয় উপস্থাপকও ছিলেন তিনি। বাংলাদেশ বেতারে দীর্ঘদিন তিনি সাংবাদিকতাও করেছেন। জীবনের শেষের দিকে দেশ ও গণতন্ত্র রক্ষায় ও আদিপাত্যবাদের বিরুদ্ধে চমৎকারভাবে ফিচার লিখতেন।

দেশের অন্যতম দৈনিক শীর্ষ পত্রিকাগুলোতে তার লেখা ফিচার গুরত্বের সাথে প্রকাশ করা হত। ৩১ আগষ্ট ২০২০ ইং তারিখে তার মৃত্যুর খবর আমাকে দারুণভাবে ব্যতিত করে। আমি সংবাদটি কোনভাবেই বিশ্বাস করতে পারছিলাম না। যে করোনকালীন সময় মানুষের পাশে এসে দাঁড়িয়ে ছিলেন সেই করোনায় তাকে আমাদের সবার কাছ থেকে নিষ্ঠুর ভাবে কেড়ে নিলেন। তিনি এভাবে অবেলায় চলে যাবেন এখনও বিশ্বাস করতে পারছিনা। বর্ণাঢ্য জীবনের অধিকারী ছিলেন তিনি।

ইসমাইল হোসেন বেঙ্গল বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের একজন মুক্তিযোদ্ধা। মুক্তিযুদ্ধের সময় তিনি ঢাকার বেঙ্গল প্লাটুনের কমান্ডার ছিলেন। একজন মুক্তিযোদ্ধা সংগঠক হিসেবে স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কর্তৃক বেঙ্গল খেতাবপ্রাপ্ত। পর্যায়ক্রমে জাতীয় পার্টি, বিএনপির একজন প্রাক্তন রাজনীতিবিদ। বর্তমানে তিনি লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির-(এলডিপি) প্রেসিডিয়াম সদস্য ছিলেন।

তিনি কর্মজীবনে একজন রাজনীতিবিদ ও ব্যবসায়ী। তিনি মুক্তিযোদ্ধা সংসদের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা ও সাংগঠনিক সম্পাদক ছিলেন। পরবর্তীতে এর সিনিয়র সহ-সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন। জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা সংসদের চেয়ারম্যান হিসেবে বর্তমানে দায়িত্ব পালন করছেন। এছাড়াও জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা দলের উপদেষ্টা ও মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্মের প্রধান উপদেষ্টা হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

তিনি তার রাজনৈতিক জীবন শুরু করেন সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ এর গঠিত প্রথম দল জনদল এর মাধ্যমে। ইসমাঈল হোসেন বেঙ্গল এই দলের ১নং প্রতিষ্ঠাতা ও সাংগঠনিক সম্পাদক ছিলেন। এরই মাধ্যমে তার রাজনৈতিক জীবনের সূচনা হয়। পরে জাতীয় পার্টি (এরশাদ) প্রতিষ্ঠিত হলে তিনি উক্ত দলে যোগ দেন এবং এই দলের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

১৯৮৮ সালের নির্বাচনে সাবেক চাঁদপুর-৬ (বর্তমানে চাঁদপুর-৪) এবং ঢাকা-১০ (রমনা) আসনে জাতীয় পার্টির মনোনয়ন পান। কিন্তু পরবর্তীতে দলের সিদ্ধান্তে আর নির্বাচন করেননি। জাতীয় পার্টির নির্বাচন পরিচালনা কমিটির চীফ কর্ডিনেটরের দায়িত্ব পালন করেন ১৯৯১ সালের নির্বাচনে। পরবর্তীতে তিনি বিএনপিতে যোগ দেন এবং তখন বিএনপির নির্বাহী কমিটির অন্যতম সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

ইসমাঈল হোসেন বেঙ্গল জাতীয় পার্টি (এরশাদ)তে থাকাকলীন সময়ে জাতীয় পার্টির দুঃসময়ে ১৯৯০ সালে এরশাদ মুক্তি আন্দোলনের নেতৃত্ব দেন। বিএনপিতে যোগ দেওয়ার পরে ওয়ান ইলেভেনে দুই নেত্রী গ্রেফতার হলে তাদের মুক্তির দাবিতে বিএনপির হয়ে প্রতিদিন জাতীয় প্রেসক্লাব, রির্পোটাস ইউনিটি, ফটোজার্নালিষ্ট এসোসিয়েশন ও শিশু কল্যাণ পরিষদ মিলনায়তনে আন্দোলন ও কর্মসূচি পালন করেছেন।

বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় তিনি রাজধানী ঢাকার বেঙ্গল প্লাটুনের কমান্ডার ছিলেন এবং বীরত্বের সাথে কমান্ডারের দায়িত্ব পালন করেন। যার কারণে পরবর্তীতে বঙ্গবন্ধু কর্তৃক বেঙ্গল খেতাবে ভূষিত হন। তিনি স্বাধীনতা যুদ্ধের পরে রেসকোর্স ময়দানে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে “গার্ড অব অনার” সালাম প্রদর্শন করেন লক্ষ লক্ষ মুক্তিযোদ্ধার উপস্থিতিতে। পরবর্তী সময়ে সারা দেশে ঘুরে ঘুরে মুক্তিযোদ্ধাদের সংগঠিত করেন।

ফরিদগঞ্জ উপজেলার কৃতী সন্তান, লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টি (এলডিপি) এর প্রেসিডিয়াম সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা ইসমাইল হোসেন বেঙ্গল করোনা আক্রান্ত হয়ে সোমবার (৩১ আগষ্ট) দুপুর ১ টা ৩০ মিনিটে রাজধানীর গ্রীন লাইফ হাসপাতালে ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল্লাহিৃৃ..রাজেউন)। মরহুমের বড় ছেলে ইব্রাহিম ইবনে ইসমাইল (কমল) বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

ইসমাইল হোসেন বেঙ্গল ফরিদগঞ্জ উপজেলার পাইকপাড়া উত্তর ইউনিয়নে ১৯৫১ সালের ৩ জুন জন্মগ্রহণ করেন। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, ৩ ছেলে, ১ মেয়ে ও নাতী-নাতনীসহ অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। ৩১ আগষ্ট বিকালে ঢাকা মগবাজারে জায়নাজার নামাজ শেষে রায়েরবাজারস্থ গোরস্থানে তাঁর দাফন সম্পন্ন হয়। তিনি আর ফিরে আসবেন না। তবে তিনি যে আদর্শ ও মানবতার জয়গান করে গেছেন এদেশের প্রতিটি দেশপ্রেমিক নাগরিক গভীর শ্রদ্ধার সাথে আজীবন স্মরণ করবেন। আল্লাহ তাকে জান্নাতের উচ্চমাকান দান করুক।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

এ জাতীয় আরো খবর..

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি  © All rights reserved © 2011 Gnewsbd24
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazargewsbd451