1. gnewsbd24@gmail.com : admi2019 :
শুক্রবার, ২৩ অক্টোবর ২০২০, ০২:১১ অপরাহ্ন
শিরোনাম :

আড়তে কম খুচরা বাজারে চড়া

জহুরুল ইসলাম খোকন, সৈয়দপুর প্রতিনিধি (নীলফামারী) ঃ
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ১২ বার পঠিত

হঠাৎ করে ভারত বেশ কদিন পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দেওয়ায় দ্বিগুণ হয়ে যাওয়া পেঁয়াজ পাইকারি বাজারে কিছুটা কম হলেও খুচরা বাজারে এর কোনো প্রভাব নেই। গতকাল সৈয়দপুর শহরের আড়ৎ ও খুচরা বাজার গিয়ে দেখা গেছে পেঁয়াজসহ অন্যান্য দ্রব্যমূল্যের চিত্র।

পাইকারী বাজারের ব্যবসায়ীরা বলছেন বাজারে পর্যাপ্ত পেঁয়াজ থাকায় ১০০টাকা কেজির পেঁয়াজ ৮০ টাকা দরে বিক্রি করা হচ্ছে। আর খুচরা বাজারে এখনও ১০০ টাকা থেকে ১২০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। খুচরা বাজারের মূল্য পাইকারি ব্যবসায়ীরা না জানলেও খুচরা ব্যবাসয়ীরা বলছেন চড়া দামেই তারা পেঁয়াজ ক্রয় করেছেন। পেঁয়াজের সাথে আলুও কিনতে হচ্ছে চড়া দামে। আড়তে ১ কেজি আলুর মূল্য ৩৭ টাকা হলেও খুচরা বাজারে কিনতে হচ্ছে ৪০ থেকে ৪৫ টাকা দরে।

একই সাথে মুরগি ও ডিমের দামও চড়া। দেশি মুরগি ৪০০ টাকা, ব্রয়লার ১৩০ টাকা, সোনালী ২৪০ টাকা দরে বিক্রি করা হচ্ছে। গরুর মাংস ৫৫০ টাকা ও খাসির মাংস ৭০০/৮০০ টাকা দরে বিক্রি করা হচ্ছে। গতকাল শহরের আধুনিক পৌর বাজার ও রেলওয়ের কল্যাণ ট্রাস্ট মার্কেট ঘুরে এসব চিত্র উঠে এসেছে। পেঁয়াজের দাম নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন ক্রেতারা।

শাহজাহান ও জাকির নামের দুই ক্রেতা জানায় বাজারে পর্যাপ্ত পেঁয়াজ এসেছে কিন্তু সে তুলনায় ব্যবসায়ীরা দাম কমাচ্ছে না। ব্যবসায়ীরা এভাবে আর কতকাল নানান অজুহাত দেখিয়ে ক্রেতাদের জিম্মি করে রাখবেন তা আল¬াহই ভালো জানেন। তবে এই মুহুর্তে সরকারিভাবে টিসিবি এর পেঁয়াজ বিক্রির পাশাপাশি বেশি দামে পণ্য বিক্রয়কারিদের জরিমানা করা হলে বাজার মূল্য স্বাভাবিক হয়ে যেত।

সাদিকুল, টুটুল ও রেজা নামের তিন ক্রেতা জানান, সবজি বাজারে এক প্রকার আগুন লেগেছে। তারা বলেন হাইব্রিড শশা বিক্রি হচ্ছে ৪০ টাকা দেশি শশা ৬০ টাকা চিচিংগা ৪০ টাকা কাকরোল ৬০ টাকা ঢেড়শ ৬০ টাকা পটল ৬০ টাকা বেগুন ৬০ টাকা ও টমেটো ১২০ টাকা দরে বিক্রয় করা হচ্ছে। কাঁচা মরিচ এখনও ১১০ টাকা দরে বিক্রি করা হচ্ছে প্রতিটি বাজারে।

সৈয়দপুর পাইকারী আড়তের সভাপতি মিজানুর রহমান লিটন জানান, আড়তে পর্যাপ্ত পেঁয়াজ আলুসহ সব ধরনের সবজি আমদানি হচ্ছে। সরকারের ভাবমূর্তি যেন নষ্ট না হয় এবং ক্রেতা সাধারন যাতে সব ধরনের সবজি সাধ্যের মাঝে ক্রয় করতে পারেন এজন্যই আড়তের সব ধরনের মালামালের দাম কম করা হয়েছে। তবে খুচরা বাজারের মূল্য বৃদ্ধির কথা তিনি বলতে পারবেন না বলে জানান।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

এ জাতীয় আরো খবর..

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি  © All rights reserved © 2011 Gnewsbd24
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazargewsbd451