1. gnewsbd24@gmail.com : admi2019 :
সোমবার, ১৯ অক্টোবর ২০২০, ০৩:৩৫ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
বাগেরহাটে সাত কর্মদিবসেই ধর্ষণ মামলার রায়ে এক ব্যক্তির যাবজ্জীবন সৈয়দপুর স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন উত্তর কোরিয়ার বিচার ব্যবস্থায় মানুষ ‘পশুর চেয়েও অধম’ বাংলাদেশ ফার্মাসিউটিক্যালস রিপ্রেজেনটেটিভ এ্যাসোসিয়েশন মানবন্ধন ফররুখ আহমদ ছিলেন গণমানুষের কবি : মোস্তফা ইতিহাসের এক উজ্জল নক্ষত্র ভাষা সৈনিক অলি আহাদ বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনী কর্তৃক মেডিকেল ডিসপেনসারি উদ্বোধন বিশ্বে করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ৪ কোটি ছাড়িয়েছে পোরশায় সবুজে ঘেরা ফসলের মাঠে আমনের বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা ক্ষমতার দম্ভে সরকার অন্ধ হয়ে গেছে : এলডিপি

বাগেরহাট এলএ শাখার সার্ভেয়ারের বিরুদ্ধে ঘুষ গ্রহনের অভিযোগ

ফটিক ব্যানার্জী, ফকিরহাট প্রতিনিধি (বাগেরহাট) :
  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ২৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ১০ বার পঠিত

ফকিরহাটে খুলনা-মংলা রেল লাইন প্রকল্পে ক্ষতি পুরন প্রদানের নামে অফিস খরচ চেয়ে ঘুষ গ্রহনের অভিযোগ পাওয়া গেছে বাগেরহাট এলএ শাখার সার্ভেয়ার জহিরুল ইসলামের বিরুদ্ধে। লখপুর ইউনিয়নের জাড়িয়া মাইট কুমড়া গ্রামের দরিদ্র ভ্যান চালক আব্দুর রহমান রেল লাইন স্থাপন প্রকল্পে ক্ষতি পুরনের টাকা প্রাদানে সার্ভেয়ারের নানা অনিয়ম দুর্নীতির অপকৌশল প্রয়োগসহ ঘুষ গ্রহনের বিভিন্ন বিষয় উল্লেখ করে জেলা প্রশাসক বরাবর লিখিত অভিযোগ করেছেন।

অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, খুলনা-মংলা রেল লাইন প্রকল্পে ভুমি অধিগ্রহনে জাড়িয়া মাইট কুামড়া মৌজায় এসএ ৭৫নং খতিয়ানে ১১৭৬-৭৭ দাগের সম্পদের আংশিক ক্ষতি পুরন পেয়েছেন আব্দুর রহমান। তবে অদ্যাবদি পায়নি জমির ক্ষতি পুরনের টাকা। অধিগ্রহণ হওয়া তার অংশের ক্ষতি পুরন উত্তোলনের জন্য ১১/৭/২০১৭সালে ২৯৩৬ নং সিরিয়ালে বন্ড জমাদেয় সে।

কর্মকর্তাদের দাবী কৃত ঘুষের টাকা দিতে না পারায় ১বছর দপ্তরে দপ্তরে ঘুরে হয়রানি হয়ে ৭/৮/২০১৮ তারিখে ক্ষতি পুরন পাওয়ার জন্য জেলা প্রশাসকের নিকট একাধিক বার লিখিত অবেদন করেন। একদিকে ঘুষ না পাওয়া অন্যদিকে জেলা প্রশাসকের নিকট লিখিত অভিযোগ হওয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে দুনীতিবাজ চক্রটি প্রকৃত মালিককে ক্ষতি পুরনের চেক না দিয়ে ভূয়া মালিক সাজিয়ে ১০/০৬/২০১৮ সালে ইমান আলীর পুত্র মোস্তাকের নামে বন্ড জমা নেয় এলএ শাখা।

সার্ভেয়ার জহিরুল ইসলামের যোগসাজসে মাত্র এক মাসের মাথায় ১২/৭/২০১৮ তারিখে ক্ষতি পুরনের চেক পায় ভূয়া জমির মালিক মোস্তাক। বিষয়টির প্রতিকার চেয়ে ৩বার জেলা প্রশাসক বরাবর অভিযোগ করা হয়। অভিযোগের বিষয়টি আড়াল করতে সার্ভেয়ার সহ একটি চক্র আব্দুর রহমানের জমির উপর মালিকানা দাবী করিয়ে হাবিবুর রহমানকে বাদি করে ২০১৮সালে একটি ফাঁদ মামলা দায়ের করে।

মামলা দায়েরের পর ওই দাগে অন্যান্য জমির মালিকগন ক্ষতি পুরন পেলেও আব্দুর রহমানের ভাগ্যে জোটেনি কানা কোড়িও। পরবর্তীতে গত ১৮ মে ২০২০ তারিখে জমির ক্ষতি পুরনের টাকা পাইয়ে দেওয়ার কথা বলে অফিস খরচ হিসাবে সার্ভেয়ার জহিরুল ইসলাম আব্দুর রহমানের কাছ থেকে ৫০ হাজার টাকা নেয় বলে অভিযোগ করেন ভুক্তভোগী। অদ্যাবদি ক্ষতি পুরনের টাকা না পাওয়ায় প্রতিকার চেয়ে ১১জুন ২০২০ তারিখে জেলা প্রাশাসক ও ভুমি অধিগ্রহন কর্মকর্তাসহ বিভিন্ন দপ্তরে আবেদনের অনুলিপি দিয়েছে তিনি।

বিষয়টি জানতে চেয়ে বাগেরহাট এল এ শাখার সার্ভেয়ার জহিরুল ইসলামের মুঠফোনে একাধিক বার যোগাযোগ করে তাকে পাওয়া যায়নি।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

এ জাতীয় আরো খবর..

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি  © All rights reserved © 2011 Gnewsbd24
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazargewsbd451