1. gnewsbd24@gmail.com : admi2019 :
মঙ্গলবার, ২৭ অক্টোবর ২০২০, ১১:৩৭ পূর্বাহ্ন

তিনদিন গির্জায় আটকে রেখে তরুণীকে ধর্ষণ করেছেন ফাদার

আব্দুস সবুর, তানোর প্রতিনিধি(রাজশাহী) ঃ
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ১৫ বার পঠিত

রাজশাহীর তানোর উপজেলার মুণ্ডুমালা পৌর সদর এলাকার সাধু মেরি গীর্জার ইনচার্জ ফাদার প্রদীপ গে গরীর বিরুদ্ধে এক ৭ম শ্রেনীর পড়ুয়া আদিবাসি ছাত্রীকে তিন দিন ধরে গীর্জায় আটক রেখে ধর্ষণ করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। তিনদিন পর মঙ্গলবার সন্ধায় গীর্জা হতে তরুণীকে উদ্ধার করেছেন পুলিশ।

এ ঘটনায় ধর্ষণের মামলার প্রস্তুতি চলছে।এদিকে ঘটনার পর ফাদারকে ক্লোজ করে রাজশাহী ধর্ম প্রদেশে নেয়া হয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেন গির্জার বর্তমান সহকারী ইনচার্জ ফাদার প্যাটিজ গমেজ।

এর আগে বিষয়টি জানাজানি হলে গত সোমবার দুপুরে গীর্জায় একটি সালিশি বৈঠক বসানো হয়। বৈঠকে ধর্ষণের শিকার তরুণীর পরিবারকে ধর্মের ভয় দেখিয়ে আপস করা হয় এবং তরণীকে লেখ্পাড়া ও ভরণ পোষনসহ বিয়ের আগ পর্যন্ত সকল খরচ বহণ করা হবে বলে গীর্জার পক্ষ থেকে বলা হয়।
সালিসি বৈঠকে রাজশাহী জেলা র্ধম প্রদেশের তিনজন প্রতিনিধি ও স্থানীয় দুইজন গ্রাম্য প্রধান এবং আদিবাসি তানোর উপজেলার পারগানা পরিষদের সভাপতি ও মুন্ডুমালা সরকারী উ”চবিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কামেল মার্ডি উপস্থিত ছিলেন।

তরুণীর ভাই বলেন, ২৬ সেপ্টেম্বর সকালে বাড়ি থেকে মাঠে ঘাষ কাটতে গিয়ে তার বোন আর বাড়ি ফিরে আসেনি। সারাদিন তাকে খোজাখোজি করে না পেয়ে ২৭ সেপ্টেম্বর থানায় একটি জিডি করা হয়। জিডি করার একদিন পর ২৮ সেপ্টেম্বর গীর্জার ফাদারে ভবনের ছাদে সে তরুনীকে দেখতে পান স্থানিয়রা।

পরিবারের লোকজন তরুনীকে উদ্ধার করতে গেলে ফাদার বাধাদেন। এসময় স্থানীয়রা রাজশাহীর জেলা র্ধম প্রদেশের ইনচার্জকে বিষয়টি মোবাইলে অবহিত করেন। তার নিদের্শে সোমবারে দুপুরে রাজশাহী ধর্ম প্রদেশের তিনজন প্রতিনিধি ফাদার পাঠান। পরে তারা ¯’ানীয় গ্রাম্য প্রধান মাইকেল হেমরণ ও মহেষ মুরমু ও আদিবাসি নেতা কামেল মার্ডীকে নিয়ে সালিসি বৈঠক বসান।

সালিসি বৈঠকে ফাদারের পক্ষে রায় দেন সবাই এবং তরুনীকে ভরণ পোষনসহ যাবতীয় খরচ বহন করা হবে বলে গীর্জার পক্ষ থেকে জানানো হয় । আদিবাসি পারগানা পরিষদের সভাপতি কামেল মার্ডী বলেন,তরুনীর ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে আপস করা হয়েছে॥

এবিষয়ে অভিযুক্ত ফাদার প্রদিপ গে গরী সাথে মোবাইলে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেনি। থানা অফিসার ইনচার্জ ওসি রাকিবুল হাসান বলেন,গীর্জা হতে মঙ্গলবার সন্ধায় তরুনীকে উদ্ধার করা হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে মামলার প্রস্ততি চলছে।মামলা হলে আসামিকে গ্রেফতারে চেষ্টা করা হবে। তরুণীকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হবে।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

এ জাতীয় আরো খবর..

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি  © All rights reserved © 2011 Gnewsbd24
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazargewsbd451