1. gnewsbd24@gmail.com : admi2019 :
সোমবার, ১৯ অক্টোবর ২০২০, ০৫:৫৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
বাগেরহাটে সাত কর্মদিবসেই ধর্ষণ মামলার রায়ে এক ব্যক্তির যাবজ্জীবন সৈয়দপুর স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন উত্তর কোরিয়ার বিচার ব্যবস্থায় মানুষ ‘পশুর চেয়েও অধম’ বাংলাদেশ ফার্মাসিউটিক্যালস রিপ্রেজেনটেটিভ এ্যাসোসিয়েশন মানবন্ধন ফররুখ আহমদ ছিলেন গণমানুষের কবি : মোস্তফা ইতিহাসের এক উজ্জল নক্ষত্র ভাষা সৈনিক অলি আহাদ বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনী কর্তৃক মেডিকেল ডিসপেনসারি উদ্বোধন বিশ্বে করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ৪ কোটি ছাড়িয়েছে পোরশায় সবুজে ঘেরা ফসলের মাঠে আমনের বাম্পার ফলনের সম্ভাবনা ক্ষমতার দম্ভে সরকার অন্ধ হয়ে গেছে : এলডিপি

ড্রেন তো নয় যেন ময়লা আবর্জনার ভাগাড়

জহুরুল ইসলাম খোকন, সৈয়দপুর প্রতিনিধি (নীলফামারী) ঃ
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ১২ অক্টোবর, ২০২০
  • ৫ বার পঠিত

সৈয়দপুর শহর থেকে দ্রুত পানি নিস্কাশনের জন্য মাষ্টার ড্রেন গুলি ময়লা আবর্জনার ভাগাড়ে পরিণত হয়েছে। পাড়া মহল¬ায় চলাচলের রাস্তা দিয়ে হেটে গেলেই দুর্গন্ধে নাক ঢেকে যেতে হয়। প্রায় এক যুগ ধরে শহর থেকে পানি নিস্কাশনের মাষ্টার ড্রেন গুলি পরিস্কার না করার ফলে সামান্য বৃষ্টিতেই ভরে যাচ্ছে রাস্তাঘাট ও ঘর বাড়ি।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় শহরের বাঁশবাড়ী, মিস্ত্রিপাড়া, সাহেবপাড়া, নতুন বাবুপাড়া ও নয়া বাজার মহল¬ায় ডাস্টবিন না থাকায় ওইসব এলাকার বসবাসকারীরা ড্রেনেই বর্জ্য ফেলছেন। এছাড়াও ব্যবসায়ীরা চানাচুর ও তেলের বর্জ্য, পঁচা ফলমূল, পঁচে যাওয়া শাক-সবজি, প¬াষ্টিক বোতল ও পলিথিন ফেলে পরিবেশ দূষিত করছেন। সম্প্রতি কাজে আসছে না ড্রেনেজ ব্যবস্থা শিরোনামে সংবাদ প্রকাশ পাওয়ায় শহরের প্রধান সড়ক সংলগ্ন ড্রেনগুলিতে পরিস্কার কাজ চললেও পাড়া মহল¬ার আবর্জনায় ভরা ওইসব ড্রেনগুলি দেখার যেন কেউই নেই।

শহরের বাসীর অভিযোগ পাড়া মহল¬ার মাষ্টার ড্রেনগুলির সাথে প্রধান সড়ক সংলগ্ন ড্রেনের সাথে সংযুক্ত হয়ে পঁচা নালা ও খড়খড়িয়া নদীতে গিয়ে মিলিত হয়েছে। প্রধান সড়কের পাশ ঘেষে মাষ্টার ড্রেনগুলির সাথে মহল¬ার মাষ্টার ড্রেনগুলিও পরিস্কার করা হলে ভারী বর্ষণ বা বন্যা হলেও কোথাও জলাবদ্ধতা দেখা যেতোনা। অন্যদিকে পরিবেশও দূষন মুক্ত থাকতো।

স্থানীয় রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ জানান প্রথম শ্রেণির সৈয়দপুর পৌরসভাকে ঢেলে সাজাতে প্রায় প্রতি বছরই সরকার কোটি কোটি টাকা বরাদ্ধ দিচ্ছেন। শুধু দায়িত্ব থাকা পৌর পরিষদের উন্নয়নের মনোভাব না থাকার কারণেই মুখথুবড়ে পড়েছে উন্নয়ন ব্যবস্থা। এর ফলে সৈয়দপুরের মানুষ নাগরিকের সুবিধা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন।

এ বিষয়ে মেয়র আমজাদ হোসেন সরকার বলেন ১৫টি ওয়ার্ড নিয়ে গঠন করা হয়েছে সৈয়দপুর পৌরসভা। কোন ওয়ার্ডে কি কি সমস্যা রয়েছে, নাগরিক সুবিধার জন্য কি কি নির্মাণ প্রয়োজন তার চাহিদা দিতে বলা হয়েছে কাউন্সিলরদের। যেসব কাউন্সিলররা তাদের উন্নয়নের চাহিদা দেননি, শুধু তাদের ওয়ার্ডেই কিছুটা উন্নয়ন বঞ্চিত রয়েছে। তবে অল্প দিনের মধ্যেই সব ওয়ার্ডেই ঢেলে সাজানো হবে বলে তিনি সাংবাদিকদের জানান।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

এ জাতীয় আরো খবর..

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি  © All rights reserved © 2011 Gnewsbd24
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazargewsbd451