1. gnewsbd24@gmail.com : admi2019 :
বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১২:২৭ অপরাহ্ন

সুন্দরগঞ্জে ভূট্টা চাষিদের চিন্তামুক্ত করল কৃষি বিভাগ

সিরাজুল ইসলাম রতন, গাইবান্ধা প্রতিনিধি ঃ
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ২৭ এপ্রিল, ২০২০
  • ৩৮ বার পঠিত

গাইবান্ধার নদী বেষ্টিত উপজেলা সুন্দরগঞ্জ। ব্রহ্মপুত্র নদে রয়েছে অসংখ্য বালুচর। এসব চরে কৃষকরা চাষ করেছেন ভূট্টা। সম্প্রতি এ ফসল ঘরে তুলতে শুরু করেছে তারা। তবে করোনার প্রভাবে ভূট্টা ফসলে লোকসানের চিন্তায় ভুগছিলেন।

অবশেষে তাদের এ চিন্তা মুক্ত করল কৃষি বিভাগ।সুন্দরগঞ্জ উপজেলা কৃষি অফিস সুত্রে জানা যায়, চলতি মৌসুমে উপজেলার বেলকা চর ও কাপাসিয়ার চরসহ বিভিন্ন ভূমিতে প্রায় ৩ হাজার ৫০০ হেক্টর ভূট্টা আবাদ করা হয়। এ বছর ফলনও হয়েছে বাম্পার। কিন্তু করোনার প্রভাবে ভুট্টাগুলো বাজারজাতকরণ ও দাম নিয়ে কৃষকরা ছিল চিহ্নিত। এমন পরিস্থিতিতে কৃষকদের দুশ্চিন্তা নিরসনে সহযোগিতা করেন কৃষি বিভাগের কর্মকর্তারা। এমতাবস্থায় পঞ্চগড়রের কাজী ফিডের সঙ্গে কৃষকদের উৎপাদিত ভূট্টা বিক্রির ব্যবস্থা করা হয়।কাপাসিয়া এলাকার ভূট্টা চাষি জাহাঙ্গীর আলম জানান, ভূট্টা চাষ অত্যন্ত লাভজনক। এ ফসলের উপর নির্ভশীল চরাঞ্চলের মানুষ। এবছর ৬ বিঘা জমিতে ভূট্টা আবাদ করা হয়। প্রতিবিঘা জমিতে খরচ হয়েছে প্রায় ১০ হাজার টাকা। যার উৎপাদন প্রায় ৩০ মণ।

তিনি আরও বলেন, সম্প্রতি করোনা পরিস্থিতিতে ভূট্টা বিক্রিতে লোকসানের চিন্তায় পড়েছিলাম । পরে কৃষি বিভাগের সহযোগিতায় ৬৬০ টাকা মণ দরে বিক্রি করতে পেরে অনেকটাই লাভ থাকছে।সুন্দরগঞ্জ উপজেলা কৃষি অফিসার রেজা-ই-মাহমুদ বলেন, করোনার প্রভাবে কৃষকরা লোকসানের মুখোমুখি হয়েছিল। এটি বিবেচনা করে উৎপাদিত ভূট্টাগুলো ন্যায্য মূল্যে বিক্রির ব্যবস্থা করা হয়েছে। প্রতিদিন ২০ টন ভূট্টা পঞ্চগড়ের কাজী ফিডে যাচ্ছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

এ জাতীয় আরো খবর..

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি  © All rights reserved © 2011 Gnewsbd24
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazargewsbd451