1. gnewsbd24@gmail.com : admi2019 :
শনিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২০, ০৪:০৮ অপরাহ্ন

তানোরে প্রজেক্ট চাষিরা সার মজুত করায় প্রান্তিক কৃষকদের দুর্ভোগ চরমে

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ২০ নভেম্বর, ২০২০
  • ৬ বার পঠিত

রাজশাহীর তানোরে প্রজেক্ট নেয়া বিভিন্ন এলাকার আলু চাষিরা ব্যাপকহারে সার মজুত করার কারনে ক্ষুদ্র প্রান্তিক চাষিদের খোলাবাজারে অতিরিক্ত মুল্যে সার কিনতে হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে।শুধু সারই না বীজও চড়া মুল্য দিয়ে নিতে হচ্ছে বলে অহরহ অভিযোগ রয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার জেলার মোহনপুর উপজেলার ধুরইল বাজার মিলনের ও পবার নওহাটা বাজারের হক ট্রেডারস এবং বেঙ্গল হিমাগার থেকে তিন ট্রলি সার আটকিয়ে দেন কৃষকরা।

আটকানোর পর কৃষি বিভাগ ও স্থানীয় গণমাধ্যম কর্মীদের খবর দেন। এ ঘটনায় এলাকার কৃষকদের মধ্যে চরম অসন্তোষ দেখা দিয়েছে। কৃষকরা ডিলারের বির“দ্ধে শাস্তির দাবি করে বলেন, তাঁরা বেপরোয়া সিণ্ডিকেটের মাধ্যমে বাড়তি দামে সার বিক্রি হলেও কোন ধরনের ব্যবস্থা নেই।তারা আরো বলেন, কেশরহাট ও সাবাাইহাট এবং নওহাটা ধুরইল এলাকা থেকে চোরা পথে নিম্নমাণের টিএসপি ও ডিএপি সার এনে বেশী দামে বিক্রি করছে। তাদের দাবি যেই কৃষক মাথার ঘাম পায়ে ফেলে ফসল উৎপাদন করে সেই কৃষকদের সাথে কেন সার নিয়ে সার বাজি বীজ নিয়ে চালবাজি করা হচ্ছে।

প্রতিটি ডিলারের দোকান গুদাম ঘর নিজেদের বাড়ি আত্মীয় স্বজন এবং প্রজেক্ট ওলাদের স্থানে অভিযান পরিচালনা করা হলেই বেরিয়ে পড়বে সব কিছু। কৃষি দপ্তরের মাঠ কর্মীরাও চরম উদাসিন। কৃষি বিভাগ ও ডিলারেরা করোনাভাইরাসের দোহায় দিয়ে সাব জানিয়ে দিচ্ছেন সরকার টিএসপি সারের আমদানি না করা এবং যে সব এলাকায় আলু চাষ হয়না ওই সব এলাকা থেকে বাড়তি দাম দিয়ে নিয়ে আসতে হচ্ছে। যার কারনে দামও বাড়তি নিতে হচ্ছে কোন উপায় নেই। এদিকে নারায়নপুর গ্রামের আলুর ব্যবসায়ী লুৎফর প্রচুর সার মজুত করে বাড়তি দামে বিক্রি করছেন বলেও ওই এলাকার কৃষকরা নিশ্চিত করেন।

জানা গেছে,তানোরের সরনজাই বাজারের মেসার্স রাজিয়া ট্রেডার্সে ডিএপি এক হাজার, টিএসপি এক হাজার ৪শ’ টাকা দামে বিক্রি করা হচ্ছে। এদিকে সরকারের অনুমোদিত ডিলারদের কাছে সার না পেয়ে কৃষকরা উ”চ মুল্য দিয়ে এসব সার কিনতে বাধ্য হচ্ছেন। শুধু মেসার্স রাজিয়া ট্রেডারস না উপজেলা ৯টি বিসিআইসির ডিলার ও বিএডিসির ডিলাররা মহা সিন্ডিকেট তৈরি করে ক্ষুদ্র প্রান্তিক চাষিদের যেমন কাটছেন পকেট তেমন হতে হচ্ছে হয়রানি।

স্থানীয়রা জানান, দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে কালোবাজারে এসব সার নিয়ে এসে অবৈধ ভাবে খোলাবাজারে অতিরিক্ত দামে বিক্রি করা হচ্ছে। সংশ্লিস্ট কর্তৃপক্ষের তেমন কোনো নজরদারি না থাকায় এসব ব্যবসায়ীরা সার নিয়ে রীতিমত তুঘলঘি কারবার শুর“ করেছে, বিষয়টি যেনো দেখার নাই। এবিষয়ে জানতে চাইলে মেসার্স রাজিয়া ট্রেডার্সের স্বত্তাধিকারী হাজী আজমত আলী বলেন, তিনি সাব ডিলার অথচ বিসিআইসি ডিলারের কাছে থেকে সার পাচ্ছেন না।

তিনি বলেন, তাই বাধ্য হয়ে বেশী দামে বাইরে থেকে সার কেনায় সারের দাম কিছুটা বেশী নিচ্ছেন। এবিষয়ে জানতে চাইলে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা শামিমুল ইসলাম বলেন, অতিরিক্ত দামে সার বিক্রির কোনো সুযোগ নাই।তিনি বলেন, এবিষয়ে বিস্তারিত খোঁজখবর নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

এ জাতীয় আরো খবর..

cover3.jpg”><img src=”https://www.bssnews.net/wp-content/uploads/2020/01/Mujib-100-1.jpg”>

via Imgflip

 

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি  © All rights reserved © 2011 Gnewsbd24
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazargewsbd451