সোমবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২১, ১২:০০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
জয়পুরহাটে জনসচেতনতা মূলক সমাবেশ কলাপাড়ায় প্রতিপক্ষের অত্যাচার-নির্যাতন থেকে রক্ষার জন্য সংবাদ সম্মেলন কুড়িগ্রামে প্রবাসী দম্পতির দেয়া শীতবস্ত্র পেলেন প্রতিবন্ধীরা জয়পুরহাটে সাংবাদিক পিতা তাহের মাষ্টারে মৃত্যুতে সাংবাদিক নেতৃবৃন্দের শোক ফুলবাড়ী উপজেলায় রবি দাস মহিলা উন্নয়ন সমিতির বার্ষিক সাধারণ সভা দু’দপ্তরের ঠেলাঠেলিতে বেইলি ব্রীজের সংস্কার কাজ বন্ধ আরইউজে’র নবনির্বাচিত কমিটিকে সাংবাদিক সংস্থার অভিনন্দন দস্যু না মানে ধর্মের কাহিনি দিনাজপুর গোবিন্দগঞ্জ আঞ্চলিক সড়কের নির্মাণ কাজ দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলছে করোনায় সরকারের প্রণোদনার প্রবাহ যথাযথ বাস্তবায়ন হয়নি – পরিকল্পনা মন্ত্রী

ক্ষণিকের তরে বয়ষ্করা অনেকেই ফিরেছিলেন শৈশবে(ভিডিও)

মজনুর রহমান আকাশ, মেহেরপুর প্রতিনিধি :
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ২৮ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ৩০ বার পঠিত

আধুনিকতার ছোয়া আর প্রযুক্তির উৎকর্ষতার সাথে সাথে হারিয়ে যেতে বসেছে বাংলার ঐতিহ্যবাহী খেলাধুলা। এখনকার প্রজন্মের কাছে তা এখন রূপকথার গল্প। খেলাগুলো নতুন প্রজন্মের কাছে পরিচিতি করতে মেহেরপুরের গাংনীর ভোমরদহ হয়ে গেল গ্রামীণ খেলাধুলার আয়োজন। খেলার সাথে পরিচিত হয়ে খুশি তরুণরা। আর খেলায় অংশ নিয়ে অনেকেই যেন ফিরে গেছেন শৈশবে। হাজার হাজার দর্শক মুগ্ধ হয়ে উপভোগ করেছেন এ প্রতিযোগিতা।

গাংনীর ভোমরদহ গ্রামবাসীসহ এলাকার লোকজন জমায়েত হতে থাকে স্থানীয় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে। কয়েক দিন আগে থেকে আশপাশের আরও কয়েকটি গ্রামে মাইকিং করা হয় এ উৎসবের ব্যাপারে। আর খেলা শেষে পুরষ্কারও বিতরণ করা হয় খেলায় অংশ গ্রহণকারীদের মাঝে। বিশিষ্ট ক্রিড়াবিদ গোলাম জাকারিয়া এ খেলার উদ্বোধন আর পুরষ্কার বিতরণ করেন প্রধান অতিথী বিশিষ্ট সমাজ সেবক তৌহিদুল ইসলাম।

তৈলাক্ত কলাগাছে উঠা, বিস্কুট দৌড়, হাড়িভাঙ্গা, চেয়ার দখল, মোরগ লড়াই আর বয়স্ক ও যুবকদের মাঝে রশিটানাটানি যেন খেলার মাঠকে করে তুলেছে প্রাণবন্ত। বয়স্ক আর যুবকদের রশি টানাটানিতে চলে ২০ মিনিট যুদ্ধ। অবশেষে বয়ষ্কদের কাছে পরাজিত হন যুবকরা।

খেলা দেখতে আসা গাংনীর বাদিয়াপাড়ার তোফায়েল আহমেদ বলেন, একসময় গ্রামগঞ্জে নিয়মিতই আয়োজন করা হতো গ্রামীণ খেলাধুলার। কিন্তু আধুনিকতার ছোঁয়ায় হারিয়ে যেতে বসেছে এসব ঐতিহ্য। এ ধরনের আয়োজন হলে পরিবার-পরিজন নিয়ে খেলা উপভোগ করার সুযোগ হয়। তরুণ-তরুণীদের মধ্যেও ওই সব খেলায় অংশ নেওয়ার আগ্রহ তৈরি হয়। একই কথা জানালেন নওপাড়া থেকে আগত দর্শনার্থী আক্তারুজ্জামান ও গৃহবধু নিশি জামান।

প্রধান অতিথী তৌহিদুল ইসলাম বলেন, ঐতিহ্যবাহী খেলাগুলো ধরে রাখতে আর তরুণদের খেলাধুলায় আগ্রহী করতে এ আয়োজন করা হয়েছে। এলাকাবাসী আশাতীত সাড়া দিয়েছে। ভবিষ্যতে এমন উৎসব আরও বেশি করে আয়োজনে আগ্রহ পাচ্ছে কমিটি।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

এ জাতীয় আরো খবর..

cover3.jpg”><img src=”https://www.bssnews.net/wp-content/uploads/2020/01/Mujib-100-1.jpg”>

via Imgflip

 

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি  © All rights reserved © 2011 Gnewsbd24
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazargewsbd451