বৃহস্পতিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২১, ০৮:০২ পূর্বাহ্ন

নড়াইলের অরুনিমা রিসোর্ট গলফ্ ক্লাব এলাকা জুড়ে এখন শোভা বর্ধন

গাজী যুবায়ের আলম, ব্যুরো প্রধান, খুলনা ঃ
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ৩ জানুয়ারী, ২০২১
  • ৬০ বার পঠিত

নড়াইলের অরুনিমা রিসোর্ট গলফ্ ক্লাব এলাকা জুড়ে এখন শোভা বর্ধন করেছে দেশী-বিদেশী সব অতিথি পাখি। রিসোর্ট জুড়ে বসেছে পাখির মেলা। দুর থেকে দেখে মনে হয় সবুজ ঘেরা একটি বাগান।

এই বাগান থেকেই ভেসে আসছে পাখিদের কলরব। পাশে গেলেই দেখা মিলবে নানা জাতের দেশী বিদেশী সব পাখিদের মেলা। এসব পাখির আগমনে মুখর হয়ে উঠেছে দেশের একমাত্র কৃষি পর্যটন কেন্দ্র অরুনিমা রিসোর্ট গলফ্ ক্লাব। পাখি সংরক্ষিত এলাকা ঘোষনা করার ১৫ বছর আগে থেকেই অরুনিমা রিসোর্ট গলফ্ ক্লাব এলাকাকে অনেকেই পাখিগ্রাম নামেই চেনে। নিরাপদ স্থান মনে করে এখানে প্রতিদিন বিকেলে বিভিন্ন এলাকা থেকে দেশ বিদেশের নানা জাতের পাখি এসে গাছের ডালে বসে।

রাত যত গভীর হয়, পাখির সংখ্যাও তত বাড়তে থাকে। সারারাত পাখির করতালে মুখর থাকে পুর এলাকা। আজ শনিবার সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়, এটা শুধু পাখির অভয়াশ্রমই নয় এখানে রাখা হয়েছে শিশুদের চিত্ত বিনোদনের নানা ধরনের খেলনা। যেমন নাগর দোলা, লেকে নৌকা, প্যাডেল নৌকা, কায়াকিং, সুইং চেয়ার, হ্যামন বড়দের জন্য আর্চারি, খেলার মাঠ, সুইমিং পুল, টেনিস কোর্ট, গলফ্ মঠ ইত্যাদি। রয়েছে নানা জাতের ফলজ ও বনজ বৃক্ষ। আরও রয়েছে ঝাউবন, রাত যাপনের জন্য রয়েছে শীততাপ নিয়ন্ত্রিত হরেক রকমের কটেজ।

রিসোর্ট গলফ্ ক্লাবের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ইরফান আহমেদ বলেন, ২০০৪ সাল থেকে প্রতি বছরই শীত মৌসুমসহ বছরে ৮ মাস বিভিন্ন প্রজাতির পাখির করতালে মুখর থাকে এই পার্কটি। এ বছরও শীত মৌসুমের শুরুতেই অতিথি পাখির করতালে মুখর হয়ে উঠেছে ক্লাবটি। পাখি সংরক্ষণ এলাকা ঘোষনা করায় এলাকাটিকে অনেকেই পাখিগ্রাম নামে চেনে। প্রায় ৫২ একর জুড়ে গড়ে ওঠা পার্কটিতে দেশি বিদেশী বিভিন্ন প্রজাতির পাখির আবাস। দেশি বিদেশী পর্যাটক আসায় কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা হয়েছে কয়েকশ যুবকের।

এলাকাজুড়ে চখে পড়ে কালকুচ, শামুকভাঙ্গা, কাচিচোরা, পানকড়ি, হাঁসপাখি, বগ, শালিক, টিয়া, দোয়েল, ময়না, মাছরাঙ্গা, গুঘু, শ্যামা, কোকিল, টুনটুনি, চড়ুই সহ দেশি বিদেশী বিভিন্ন প্রজাতির পাখি। এখানে প্রতিদিন হাজার হাজার পাখির প্রজনন ঘটছে। ডিম থেকে ফুটছে বাচ্চা আর এই নয়নাভিরাম সৌন্দর্য দেখতে প্রতিদিন দুর দুরান্ত থেকে ছুটে আসছে অসংখ্যা পাখি প্রেমি ও বিনোদনপ্রিয় মানুষ।

তবে অন্যান্য বছরের তুলনায় করোনার প্রভাবে এ বছর লোকজনের সমাগম কিছুটা কম। কালিয়া উপজেলা কৃষি পর্যটনকেন্দ্র অরুনিমা রিসোর্ট গলফ্ ক্লাবের চেয়ারম্যান মোল্যা খবির উদ্দিন আহমেদ জানান, শীত মৌসুমে সহস্র পাখির আগমন ঘটে। এলাকাবাসীর সহযোগিতার পাশাপাশি সরকারি পৃষ্ঠপোষকতা পেলে এসব পাখি সংরক্ষণ করতে পারলে দেশ পর্যটক সম্বৃদ্ধ হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

এ জাতীয় আরো খবর..

cover3.jpg”><img src=”https://www.bssnews.net/wp-content/uploads/2020/01/Mujib-100-1.jpg”>

via Imgflip

 

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি  © All rights reserved © 2011 Gnewsbd24
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazargewsbd451