রবিবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০৩:০৮ অপরাহ্ন

শেখ হাসিনার গাড়িবহরে হামলা মামলায় চতুর্থ দিনের মত যুক্তিতর্ক উপস্থাপন

গাজী যুবায়ের আলম, ব্যুরো প্রধান, খুলনা ঃ
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ২১ জানুয়ারী, ২০২১
  • ৩৪ বার পঠিত

সাতক্ষীরার কলারোয়ায় ২০০২ সালের ৩০ আগস্ট তৎকালীন বিরোধী দলীয় নেতা, আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার গাড়িবহরে হামলার মামলায় আদালতে চতুর্থ দিনের মত যুক্তিতর্ক উপস্থাপন করা হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার রাষ্ট্রপক্ষ ও আসামিপক্ষ যেসব যুক্তিতর্ক উপস্থাপন করেন সাতক্ষীরার চিফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট হুমায়ুন কবির তা রেকর্ড করেন। রাষ্ট্রপক্ষে এ মামলা পরিচালনা করেন অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল এসএম মুনীর, ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল সুজিত মুখার্জী, ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল শাহীন মৃধা ও সাতক্ষীরার পিপি অ্যাড. আব্দুল লতিফ।

অপরদিকে, বিবাদীপক্ষে ছিলেন অ্যাড. শাহানারা আক্তার বকুল, অ্যাড. আব্দুল মজিদ, অ্যাড. মিজানুর রহমান পিন্টু ও অ্যাড. তোজাম্মেল হোসেন। রাষ্ট্রপক্ষ বলেছে, ২০ জন সাক্ষীর জবানবন্দি এবং পারিপাশির্^ক বিভিন্ন কারণে আসামিরা দোষী প্রমাণিত হয়েছেন। অপরদিকে আসামি পক্ষ জানিয়েছে, ২০০২ সালের ৩০ আগস্ট কলারোয়ায় তৎকালিন বিরোধী দলীয়নেতা শেখ হাসিনার গাড়িবহরে হামলার কোনো ঘটনা ঘটেনি।

ওই দিন আওয়ামী ও বিএনপির নেতাকর্মী এবং সাংবাদিকদের মধ্যে মারামারি হয়েছে। এসব যুক্তি দেখিয়ে বিবাদিপক্ষ বলেছে কোনো আসামি দোষী প্রমাণিত হননি। উভয় পক্ষই ন্যায় বিচার পাবেন এই প্রত্যাশা করে রাষ্ট্রপক্ষের অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল এসএম মুনীর ও সাতক্ষীরার পিপি অ্যাড. আবদুল লতিফ বলেন, আসামিরা সর্বো”চ সাজা পাবেন।

অপরদিকে আসামি পক্ষের অ্যাড. শাহানারা আক্তার বকুল ও অ্যাড. আবদুল মজিদ বলেন, সকল আসামি খালাস পাবেন। রাষ্ট্রপক্ষ সাক্ষীদের জবানবন্দী বিশে¬ষণ করে বলেন, তারা মামলাটি প্রমাণ করতে সক্ষম হয়েছেন। অপরদিকে বিবাদীপক্ষ মামলার এজাহার, পুলিশের অভিযোগপত্র এবং সাক্ষীদের জবানবন্দির মধ্যে ব্যাপক গরমিল ও অসংগতি রয়েছে উলে¬খ করে জানিয়েছেন, আসামিপক্ষের কেউই দোষী প্রমাণিত হননি।

উলে-খ্য, ২০০২ সালের ৩০ আগস্ট তৎকালিন বিরোধী দলীয় নেতা, আওয়ামী লীগ সভানেত্রী বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সাতক্ষীরায় মুক্তিযোদ্ধার ধর্ষিতা স্ত্রীকে হাসপাতালে দেখে মাগুরা ফিরে যাবার পথে কলারোয়ায় সন্ত্রাসীদের হামলা শিকার হন। এতে শেখ হাসিনা অক্ষত থাকলেও তার সফরসঙ্গী ফাতেমা জাহান সাথী, জোবায়দুল হক রাসেল, ইঞ্জিনিয়র শেখ মুজিবর রহমান, শহিদুল হক জীবন, আবদুল মতিনসহ অনেকেই আহত হন। এ সময় বেশ কয়েকজন সাংবাদিকও হামলার শিকার হন।

এ মামলায় পুলিশ তালা-কলারোয়া আসনের দুইবারের সাবেক সংসদ সদস্য কেন্দ্রীয় বিএনপি নেতা হাবিবুল ইসলাম হাবিবসহ ৫০ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট দেয়। তাদের মধ্যে টাইগার খোকন নামের একজন আসামি অন্য মামলায় জেলে রয়েছেন। বাকি ৪৯ জন ছিলেন জামিনে। বৃহস্পতিবার তাদের মধ্যে ৩৪ জন কাঠগড়ায় উপস্থিত ছিলেন। অপর ১৫ জন পলাতক রয়েছে।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

এ জাতীয় আরো খবর..

cover3.jpg”><img src=”https://www.bssnews.net/wp-content/uploads/2020/01/Mujib-100-1.jpg”>

via Imgflip

 

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি  © All rights reserved © 2011 Gnewsbd24
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazargewsbd451