রবিবার, ০৭ মার্চ ২০২১, ০৩:৪০ পূর্বাহ্ন

আরটিভিতে নাটক ”গোলমরিচ”

বিনোদন ডেস্ক :
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ২৮ জানুয়ারী, ২০২১
  • ৬২ বার পঠিত

রচনা: রাজীব আহমেদ, আরটিভিতে প্রচার হবে নাটক “গোলমরিচ”।

সংক্ষেপে কাহিনী : আওয়াজ রেল স্টেশনে নেমে কোন রকমে ফোন ডায়েল করে কাঁধের চাপে কানে ধরে। দুই হাতে মানিব্যাগে পকেটের অবস্থাটা বোঝার চেষ্টা করছে। ঠিক সেই সময়ে ঝড়ের মতো এসে ধাক্কা খায় নিতু। কান থেকে ছিটকে পড়ে মোবাইল ফোনটি টুকরো টুকরো হয়ে যায় চোখের সামনে । নিতু সরি বলে পাড় পাওয়ার চেষ্টা করলেও খোপ করে ধরে ফেলে আওয়াজ।

ক্ষতিপূরণ ছাড়া কোন ভাবেই সে নিতুকে ছাড়বে না। ওদিকে নিতুর চট্টগ্রামগামী ট্রেন ছেড়ে যাচ্ছে। এদিকে আওয়াজও নাছোড় বান্দা। চিৎকার চ্যাচাম্যাচিতে পাবলিক জমে যায়। বাধ্য হয়ে নিতু আওয়াজসহ মোবাইল রিপিয়ারের দোকানে নিয়ে যায়। সেখানে গিয়ে ফোনের ডিসপ্লে নষ্ট হয়ে গেছে জেনে আওয়াজের মাথায় আকাশ ভেঙে পড়ে।

কারণ সে যে বাসায় উঠবে , চাকরীর ইন্টারভিউ এর প্রবেশপত্র সংগ্রহ করবে তাদের ফোন নাম্বার বাসার ঠিকানা সবই ওই ফোনেই ছিলো। তার একটি নাম্বারও মুখস্ত নেই। নিতু আওয়াজকে থামিয়ে বলে তার চেয়েও নিজের বেশী ক্ষতি হয়েছে। কারণ সে বাসা থেকে পালিয়েছে চট্টগ্রামে তার বয়ফ্রেন্ড অপেক্ষা করছে। আওয়াজের কারণে আজকে সে ট্রন মিস করেছে।

বাসায় চিঠি রেখে এসেছে তার পক্ষে বাড়ি ফেরা আর কোন ভাবেই সম্ভব নয়। তাহলে এখন তারা কি করবে ? নিতুই আওয়াজকে বুদ্ধি দেয় কোন রকমে আজকে রাতটা তারা যদি কোন হোটেলে কাটিয়ে দিতে পারে কাল সকালের ট্রেন ধরে সে চট্্রগ্রামে চলে যাবে পথ কুমিল্লায় আওয়াজকে নামিয়ে দেবে। ইন্টারভিউ যেহেতু দেয় হচ্ছেই না সেক্ষেত্রে নিতুর কথা শোনা ছাড়া আর কোন কিছু করারও সে খুঁজে পেলো না।

একটা রাতের জন্য শুধু শুধু টাকা খরচ না করে মাঝারি গোছের একটা হোটেলে রুম ভাড়া নেয় তারা। কুমিল্লার ছেলে আওয়াজ বুঝতেই পারেনি হোটেলটিতে অনৈকিক কাজ হয়। মাঝরাতে পুলিশের রেড পড়ে এবং অনৈতিক কাজের দায়ে আওয়াজ ও নিতুকে থানা হেফাজতে নেয়া হয়। অসহায় আওয়াজ চিন্ত করে কি হচ্ছে তার সাথে ! এসেছিলো চাকরির খোঁজে ঢুকতে হয়েছে থানায় আর কি কি কপালে আছে এই মেয়ের কারণে! কারো কাছ থেকে সাহায্য নেবে নাম্বার না থাকায় তাও পারছে না।

নিতু যখন দেখলো আর বাঁচার কোন উপায় নাই তখন বাধ্য হয়ে বাসায় ফোন দেয়। ফ্যামেলির মানুষ ছুটে আসে থানায়। তারা মনে করে আওয়াজই সেই ছেলে যার জন্য ঘর ছেড়েছে তাদের মেয়ে। থানা পুলিশকে বিষয়টি বুঝিয়ে বলে মুচলেকা দিয়ে ছাড়িয়ে নেয় তাদের। বাড়িতে নিয়ে ধুমধাম করে বিয়ের আয়োজন শুরু করে দেয়। আওয়াজ নিতু কাছে জানতে চায় আর কি কি বিপদ অপেক্ষা করছে তার জন্য ? নিতু প্রতিবারের মতো দুঃখ প্রকাশ করে জানায় সে আবার বাসা থেকে পালাবে যাওয়া পথে কুমিল্লায় আওয়াকে নামিয়ে দিয়ে যাবে।

ফোন করে নিতুর বয়ফ্রেন্ডকে। কেন সেদিন সে যেতে পারেনি, কি কি হয়েছে সব জানায়। সাথে এটাও জানায় সে আবার পালিযে আসছে তার কাছে। কিন্তু নিতুর বয়ফ্রেন্ড বলে তুমি একটা রাত অপরিচিত একজনের সাথে থাকলে। পুলিশ তোমাদের থানায় নিয়ে গেলো বিষয়টা আমাকে একটু আমার মতো করে খোঁজ নিতে দাও, তারপর তুমি এসো। কথাগুলো শোনার জন্য একেবারেই প্রস্তুত ছিলো নিতু।

সে ভাবে কার জন্য বাড়ি ছাড়ছে সে , যে তাকে বিশ^াসই করে না। মনে মনে সিন্ধান্ত নেয় না সে যাবে না ওই ছেলের কাছে। সেক্ষেত্রে আওয়াজকে আটকে রেখে তো কোন লাভ নেই, পুরো বিষয়টা নিতু আওয়াজের সাথে শেয়ার করে। বলে তোমাকে আর আটকে বিপদে ফেলতে চাইনা। তুমি চলে যাও। আমার বাসা আমি বুঝবো কিভাবে ম্যানেজ করতে হয়। তুমি ফ্রি। অনেক করেছো চলে যেতে পারো। চলে যেতে গিয়েও ফিরে আসে আওয়াজ , বলে তোমার বাসার মানুষ আমাকে নিয়ে যে ভুল ভাবনা ভেবেছে সেই ভুলটা ভাঙানো কি খুবই জরুরি ? নিতু জানায় না জরুরী নয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

এ জাতীয় আরো খবর..

cover3.jpg”><img src=”https://www.bssnews.net/wp-content/uploads/2020/01/Mujib-100-1.jpg”>

via Imgflip

 

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি  © All rights reserved © 2011 Gnewsbd24
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazargewsbd451