বৃহস্পতিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২১, ০২:২৬ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
দিনাজপুরের বিরামপুরে সরকারি জায়গা দখল করে দোকান ঘর নির্মান বন্দরে তিতাসের অধিগ্রহনকৃত জমি রক্ষা পেলনা মাসুম চেয়ারম্যানের হাত থেকে অপরিকল্পিতভাবে ভূমি অফিসের সীমানা প্রাচীর নির্মাণ করায় অবরূদ্ধ পরিবারটি পীরগঞ্জে সাংবাদিকদের সাথে অধ্যক্ষ খলিলের মতবিনিময় নওগাঁর মহাদেবপুরে গলা পায়ের রগ কাটা মানসিক ভারসাম্যহীন এক ব্যাক্তিকে উদ্ধার আলোচিত যুবলীগ নেতা মিলনকে কুপিয়ে হত্যাচেষ্টা মামলায় চারজনের আদালতে আত্মসমার্পণ বিশ্বম্ভরপুরে চেয়ারম্যান রনজিতের উপর হামলার প্রতিবাদে বিক্ষোভ ফুলবাড়ীতে ফেন্সিডিল-গাঁজাসহ মাদক ব্যবসায়ী আটক শোকাহত মতিউরের পরিবারের পাশে চেয়ারম্যান প্রার্থী খলিল দিনাজপুরের হাকিমপুর নর্ব নিবাচিত পৌর মেয়রকে গণ সংর্বধনা

বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষা ফি বাড়ানোর প্রস্তাব অযৌক্তিক – ড. সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী

জি-নিউজবিডি২৪ ডেস্ক :
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ২০ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ১৪ বার পঠিত

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি ফি বাড়ানো কোন ভাবেই ঠিক হবে না, বরং কমানো উচিত। বিশ্ববিদ্যালয়সহ উচ্চ শিক্ষায় বাজেটে বরাদ্দ বাড়িয়ে ভর্তি আসন সংখ্যা বৃদ্ধি করতে হবে। বর্তমান প্রেক্ষাপটে বিশ্ববিদ্যালয়ে আসন সংখ্যা বৃদ্ধি না করলে মেধাবীদের উচ্চ শিক্ষা অনিশ্চিত হয়ে পড়বে। বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষায় মেধা যাচাইয়ের জন্য সংক্ষিপ্ত লিখিত পরীক্ষা একটি উত্তম পদ্ধতি। কোন বিবেচনাতেই এমসিকিউ পদ্ধতি গ্রহনযোগ্য হতে পারে না।

আজ (২০ ফেব্রুয়ারি ২০২১, শনিবার) রাজধানীর তেজগাঁওস্থ এফডিসি’তে এক ছায়া সংসদে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইমেরিটাস অধ্যাপক ড. সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ডিবেট ফর ডেমোক্রেসি’র চেয়ারম্যান হাসান আহমেদ চৌধুরী কিরণ। বিশ^বিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষা মানদ- নিয়ে এই ছায়া সংসদের আয়োজন করে ডিবেট ফর ডেমোক্রেসি।

ড. সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী আরো বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় শুধু একটি একাডেমিক প্রতিষ্ঠান নয় একই সাথে একটি সামাজিক প্রতিষ্ঠানও, যেখানে পরমতসহিষ্ণুতা ও ভিন্ন মতের প্রতি শ্রদ্ধা থাকতে হবে। তাই বিশ্ববিদ্যালয়সহ সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে গণতন্ত্র চর্চার অংশ হিসেবে প্রতিবছর নিয়মিত ছাত্র সংসদ নির্বাচন হওয়া উচিত। তা হলে ছাত্ররা তাদের অধিকার আদায়ের পাশাপাশি শিক্ষা সহায়ক অন্যান্য কর্মকান্ডেও সম্পৃক্ত হতে পারবে।

সামরিক শাসনের সময়ও ছাত্র সংসদ নির্বাচন হয়েছে। কিন্তু তথাকথিত গণতান্ত্রিক ব্যবস্থায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোতে ছাত্র সংসদ নির্বাচন হচ্ছে না। তাই সকল মতের সহাবস্থান নিশ্চিত করতে বেগ পেতে হচ্ছে। আমরা গোরস্থান বা শ্মাসনের মতো পরিস্থিতি চাই না, গণতান্ত্রিক সংস্কৃতি চর্চাই কাম্য।

সভাপতির বক্তব্যে ডিবেট ফর ডেমোক্রেসি’র চেয়ারম্যান হাসান আহমেদ চৌধুরী কিরণ বলেন, ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষার ফি ৪৫০ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৬৫০ টাকা করা হচ্ছে। করোনা ভাইরাসের দূর্যোগে অভিভাবকদের যখন স্বস্তি প্রদানের জন্য ভর্তি ফি কমানো উচিত সেখানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি ফি আরো বাড়িয়ে দেওয়া সঠিক হবে না।

বিশ্ববিদ্যালয় কৃর্তপক্ষকে অনুরোধ করবো করোনার এই মহাদুর্যোগের সময় এবারের ভর্তি পরীক্ষার ফি মোটেও না বাড়িয়ে মওকুফ করার জন্য। তা না হলে প্রশ্ন উঠতে পারে সরকার যখন সকল সেক্টরে প্রণোদনা প্রদান সহ নানা রকম ভূর্তকি দিচ্ছে সেখানে কি কারণে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি ফি আরো ২০০ টাকা বাড়ানো হচ্ছে।

তিনি আরো বলেন, এবারের এইচএসসি সমমানের পরীক্ষায় অধিক সংখ্যক জিপিএ-৫ পাওয়ায় বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তিতে আগের চাইতে অনেক বেশি প্রতিযোগিতার মুখোমুখি হতে হবে। ২০টি পাবলিক এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা নেবার কথা জানালেও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও বুয়েট সহ ৫টি বিশ্ববিদ্যালয় গুচ্ছ পদ্ধতিতে পরীক্ষা না নেয়ার কথা জানিয়েছে।

ইতিমধ্যে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় নিজস্ব পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা তারিখ ঘোষণা করেছে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে এবারের ভর্তি পরীক্ষায় পূর্বের ২০০ নম্বর থেকে কমিয়ে ১২০ নম্বরে পরীক্ষা নেওয়া হবে। যেখানে এমসিকিউতে ক খ গ ঘ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় এমসিকিউতে থাকবে ৬০ নম্বর এবং লিখিত পরীক্ষায় থাকবে ৪০ নম্বর।

আর চ ইউনিটের পরীক্ষায় এমসিকিউতে ৪০ এবং লিখিত পরীক্ষায় থাকবে ৬০ নম্বর। সব ইউনিটেই পূর্বের ২টি পাবলিক পরীক্ষা থেকে ১০ + ১০ করে ২০ নম্বর যোগ করা হবে। তবে গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা গ্রহনকারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলো পূর্বে কোন পাবলিক পরীক্ষার ফলাফলের কোন নম্বর ভর্তি পরীক্ষা নম্বরের সাথে যোগ করছে না।

অন্যদিকে, পৃথিবীর প্রসিদ্ধ বিশ্ববিদ্যালয় গুলো উচ্চ শিক্ষা গ্রহনে শুধু ভর্তি পরীক্ষাকে প্রাধান্য দিচ্ছে না। তারা একজন শিক্ষার্থী IELTS, GRE, SAT, GMAT এইসব পরীক্ষার মাধ্যমে সক্ষমতা যাচাই করে। যাতে ঐ শিক্ষার্থীর সক্ষমতা যাচাই করার ফলে উচ্চ শিক্ষা গ্রহনকালে অ্যাসাইমেন্ট তৈরি, প্রেজন্টেশন প্রদান, গবেষণা ইত্যাদি সহজে করতে পারে।

একই সাথে ভর্তি ইচ্ছুক ঐ শিক্ষার্থীকে কেন ঐ বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হতে চায়, তার কোন স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে কাজ করার রেকর্ড রয়েছে কিনা, বিশেষ কোন ক্ষেত্রে পারদর্শীতা আছে কিনা ইত্যাদি উল্লেখ করে পারসোনাল স্টেটমেন্ট প্রদান করতে হয়। তাই সিদ্ধান্ত নেওয়া উচিত আমাদের দেশে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষায় প্রচলিত পদ্ধতিই থাকবে ? নাকি উন্নত বিশ্ববিদ্যালয় গুলোর ন্যায় ভর্তি পরীক্ষা নেওয়া হবে।

প্রতিযোগিতায় বিরোধী দল দারুননাজাত সিদ্দীকিয়া কামিল মাদরাসাকে পরাজিত করে সরকারি দল শহীদ পুলিশ স্মৃতি কলেজ বিজয়ী হয়। প্রতিযোগিতায় বিচারক ছিলেন অধ্যাপক আবু মোহাম্মদ রইস, সহযোগী অধ্যাপক রোকেয়া পারভিন জুঁই, উন্নয়ন যোগাযোগ বিশেষজ্ঞ ড. এস এম মোর্শেদ, সহযোগী অধ্যাপক জোসিন্তা জিনিয়া এবং জেন্ডার বিশেষজ্ঞ নিশাত সুলতানা। প্রতিযোগিতা শেষে অংশগ্রহণকারী দলের মাঝে ক্রেস্ট, ট্রফি ও সনদপত্র প্রদান করা হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

এ জাতীয় আরো খবর..

cover3.jpg”><img src=”https://www.bssnews.net/wp-content/uploads/2020/01/Mujib-100-1.jpg”>

via Imgflip

 

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি  © All rights reserved © 2011 Gnewsbd24
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazargewsbd451