মঙ্গলবার, ২০ এপ্রিল ২০২১, ১২:৫৯ অপরাহ্ন

রাস্তা ভাড়া নিয়ে ঝিকরগাছা-শার্শার পল্লী থেকে মাটি কেটে দেওয়া হচ্ছে ইটভাটায়

ইয়ানূর রহমান, ভ্রাম্মমান প্রতিনিধি যশোর :
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ২৪ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ৫৩ বার পঠিত

যশোরের ঝিকরগাছা থেকে মাটি কেটে নিয়ে দেওয়া হচ্ছে পাশ্ববর্তী উপজেলা শার্শার ইটভাটায়। মাটি বহনকারী ট্রাকটার চলাচলে নতুন সংস্কার করা রাস্তার দশা বেহাল হয়ে পড়েছে। ট্রাকটারের বিকট শব্দ আর ধুলা-বালুতে পরিবেশ দুষন সহ রাস্তার পাশে বসবাসকারীদের পোহাচ্ছেন অসহ্য যন্ত্রণা। আর এই রাস্তা দিয়ে মাটি নিয়ে যাওয়া বাবদ ভাড়া হিসেবে সাবেক এক ইউপি সদস্য সপ্তাহে এক লাখ ২৫ হাজার টাকা নিচ্ছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

উপজেলার হাজিরবাগ ইউনিয়নের মুকুন্দপুর, নওয়াপাড়া সহ কয়েকটি গ্রামের মাঠের ও একটি মাছের ঘের থেকে মাটি কেটে ট্রাকটারে করে স্থানীয় কয়েকটি ভাটা সহ নিয়ে যাওয়া হচ্ছে পাশ্ববর্তি শার্শার উলাশীর আরবি (রুহুল ব্রিকস্) ইটভাটায়। প্রায় ৭ কিলোমিটার দূরাত্বের এ রাস্তায় রয়েছে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতরের ৫ কিলোমিটার পাকা রাস্তা ও একটি ইটের রাস্তা রয়েছে।

যা ইতোমধ্যে বেহাল হয়ে পড়েছে। আর কাঁচা এক কিলোমিটার রাস্তার দুইপাশে বসতবাড়ি ও ফসল ধুলা-বালুতে ভরে গেছে। বুধবার সরেজমিনে দেখা গেছে এসব চিত্র।

এ সড়কের আশেপাশে আরো ৫টি ইটভাটা রয়েছে যাদের নাম নাভারন ব্রিক্স, এফ কে ব্রিক্স, বিশ্বাষ ব্রিক্স, রানি ব্রিক্স ও নাভারনের প্রাইম ব্রিক্স। এ সকল ইট ভাটায় ঝিকরগাছা ও শার্শার বিভিন্ন এলাকা থেকে মাটি বহনের ফলে প্রায় ২৫ গ্রামের উপর দিয়ে রাস্তা ব্যবহারের ফলে এলজিইডি’র সড়ক গুলোর বেহাল দশা।

এসময় কথা হয় খরুসা গ্রামের মিজানুর রহমানের সাথে। তিনি জানান, মাসাধীককাল ধরে ট্রাকটারে মাটি বয়ে নিয়ে যাচ্ছে শার্শা উপজেলার উলাশীর আরবি (রুহুল ব্রিকস্) ইটভাটা, নাভারন ব্রিক্স, এফ কে ব্রিক্স, বিশ্বাষ ব্রিক্স, রানি ব্রিক্স ও নাভারনের প্রাইম ব্রিক্স ইটভাটায়।

তিনি অভিযোগ করেন, প্রতি টিপ (ক্ষাপ) বাবদ খরুসা গ্রামের সাবেক মেম্বার জমির উদ্দীন নেন ৭৫ টাকা করে। তিনি সব ‘ম্যানেজ’ করেন।
খরুসা জামতলা মোড়ের চা দোকানি হালিমা খাতুন জানান, ভাটার মাটি বহনকারী ট্রাকটারের ধুলা-বালুতে সব নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। রাস্তায় হাটাও কষ্ট।
ধল্লা নওয়াপাড়ার হারুন মোন্ডল জানান, ভাটার ট্রাকটারের ধুলা-বালুতে তার ২৫ শতক জমির পেঁপে ও ২০ শতক জমির বেগুন বিক্রি করতে পারেননি। এসব ফসলের গায়ে ধুলা-বালু জমে তা অবিক্রি হয়ে গেছে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে মাটি বহনকারী একটি ট্রাকটারের চালক জানান, ২০ টি ট্রাকটার প্রতিদিন দশটি করে টিপ (ক্ষাপ) দেয়। রাস্তার ভাড়া বাবদ খরুসা গ্রামের সাবেক মেম্বার জমির উদ্দীনের সাথে এক লাখ ২৫ হাজার টাকার চুক্তিতে উলাশী গ্রামের পিন্টু, যাদবপুর গ্রামের আতিয়ার, বুরুজবাগান গ্রামের আলম এসব মাটি আরবি (রুহুল ব্রিকস্), নাভারন ব্রিক্স, এফ কে ব্রিক্স, বিশ্বাষ ব্রিক্স, রানি ব্রিক্স ও নাভারনের প্রাইম ব্রিক্সে নিয়ে যাচ্ছেন।

এবিষয়ে সাবেক মেম্বার জমির উদ্দীন জানান, মাটি নিয়ে যাওয়া বাবদ কিছু টাকা নেয়া হচ্ছে। এসব টাকা এলাকার পাঁচ গ্রামের মসজিদে প্রদান করা হবে।

এদিকে শার্শার জিরেনগাছা গ্রাম থেকে ফসলি জমির মাটি কেটে নিয়ে নাভারনের প্রাইম ব্রিক্সে দিচ্ছে যাদবপুর গ্রামের আতিয়ার রহমান। রাতে ও দিনে মাটি বহনের ফলে একদিকে সড়কের অবস্থা বেহাল হয়ে পড়েছে। অন্যদিকে ছোটখাট দুর্ঘটনা লেগেই আছে। গত কয়েকদিন আগে কাশিয়াডাঙ্গা গ্রামের জৈনক এক মহিলা মাটি বহনকারী ট্রাকে ধাক্কা খেয়ে মারাত্যকভাবে জখম হয়। ৩০হাজার টাকা জরিমানা দিয়ে আবারো দেদার্ছে মাটি বহন কওে চলেছে।

অপর দিকে প্রশাসনের ব্যবস্থ্যা নেয়া হবে। সাধারন জনতা বলছে, ইটভাটার মৌষূম শেষ হলেই তারা ব্যবস্থ্যা নিবে বলে মনে হয়! ঝিকরগাছা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আরাফাত রহমান ও শার্শা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পুলক কুমার মন্ডল জানান, এভাবে মাটি কেটে স্থানান্তরের সুযোগ নেই। আর জনভোগান্তি হয় এমন কাজ করতে দেয়া হবে না। এর বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

এ জাতীয় আরো খবর..

cover3.jpg”><img src=”https://www.bssnews.net/wp-content/uploads/2020/01/Mujib-100-1.jpg”>

via Imgflip

 

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি  © All rights reserved © 2011 Gnewsbd24
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazargewsbd451