সোমবার, ১৯ এপ্রিল ২০২১, ০২:০৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :

সংগ্রামী নারী বেবীর পাশে এবার ‘স্বপ্ন’

জি-নিউজবিডি২৪ ডেস্ক :
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ৩১ মার্চ, ২০২১
  • ৪২ বার পঠিত

জীবন মানেই সংগ্রাম। আর আমাদের এই সংগ্রামটা সমাজে ভালোভাবে বাঁচার জন্য। জীবনের সঙ্গে এমনই এক যুদ্ধ করে চলছেন বিক্রমপুরের মুন্সিগঞ্জের সংগ্রামী নারী বেবী আক্তার। বাবা-মা,স্বামী-সংসার নিয়ে মাঝে কিছুটা সময় ভালোই ছিলেন তিনি।

তবে বেশ কয়েক বছর আগে সংসার ভেঙ্গে যাবার পর একমাত্র পুত্র সন্তান দীন ইসলামকে নিয়ে কোনো রকম বসবাস করছেন তিনি। ছেলে সন্তান ছোট থাকার কারণে দেড় বছর আগে সংসার চালানোর জন্য নিজেই হাতে তুলে নেন রিক্সা।

মিরপুর ১১, ১২ নাম্বার এলাকায় সকলে তাকে বেবী নামেই চিনেন। ঠিকমত ভাড়া না পাবার কারণে রিক্সা চালিয়ে সংসার চালাতে কষ্ট হয়ে যাচ্ছে এখন তাঁর। এমনই এক কষ্টের কথা একটি সংবাদমাধ্যমে বলার পর করুণা এই ভিডিওচিত্রটি চোখে পড়ে স্বপ্ন’র নির্বাহী পরিচালক সাব্বির হাসান নাসিরের। এরপর স্বপ্ন’র তেজগাঁও অফিসে ডেকে আজ বুধবার দুপুরে তাঁকে কাজের সুযোগ করে দেওয়া হয়।

এ সময় স্বপ্ন’র বিজনেস ডিরেক্টর সোহেল তানভির খান, মানবসম্পদ বিভাগের প্রধান শাহ মো. রিজভী রনী, মিডিয়া অ্যান্ড পিআর ম্যানেজার কামরুজ্জামান মিলু উপস্থিত ছিলেন।

আগামীকাল থেকেই শুরু হবে তাঁর নতুন কাজ। মিরপুর ১১ নাম্বার এলাকার ‘স্বপ্ন’ আউটলেটে হোম ডেলেভারি কাজে নিযুক্ত হয়ে বেশ খুশি তিনি। নিজের রিক্সা দিয়েই এবার আশ-পাশের বাড়িতে হোম ডেলিভারি করবেন বেবী। এর বিনিময়ে প্রতিদিনের পারিশ্রমিক প্রতিদিনই পাবেন তিনি।

এমন কাজের সুযোগ পাবার পর বেশ উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে বেবী আক্তার বলেন, আমি সত্যিই আনন্দিত। কারণ রিক্সা জমার টাকা দেবার পর আমার হাতে ১৫০-২০০ টাকার বেশি থাকতো না। আমার ছেলেটা ক্লাস ফাইভে পড়াশুনা করছে। সারা দিন-রাত পরিশ্রম করেও সংসার ভালোভাবে চলত না। ‘স্বপ্ন’ আমাকে উপযুক্ত একটা পারিশ্রমিকের ব্যবস্থা করে দিল। ‘স্বপ্ন’ কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

এ জাতীয় আরো খবর..

cover3.jpg”><img src=”https://www.bssnews.net/wp-content/uploads/2020/01/Mujib-100-1.jpg”>

via Imgflip

 

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি  © All rights reserved © 2011 Gnewsbd24
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazargewsbd451