ঢাকা ০২:৩৪ অপরাহ্ন, শনিবার, ২৫ মার্চ ২০২৩, ১১ চৈত্র ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

গাইবান্ধায় পুলিশের চাঁদাবন্ধসহ পলাশবাড়ী থানার ওসির অপসারন দাবী

গাইবান্ধায় অতিরিক্ত যাত্রী বহনের মিথ্যা অভিযোগে এনে জান্নাত পরিবহন আটক করে পুলিশের চাঁদা দাবী ও পলাশবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ মাসুদার রহমান মাসুদ উত্তেজিত শ্রমিকদের উপর গুলি চালানোর নির্দেশ প্রদানের প্রতিবাদ এবং তার অপসারন দাবি করে বৃহস্পতিবার দুপুরে গাইবান্ধা বাসষ্ট্যান্ডে এক জনাকীর্ন সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত।

গাইবান্ধা জেলা বাস মিনিবাস কোচ ও মাইক্রোবাস শ্রমিক ইউনিয়নের সভাগতি আব্দুস সোবহান বিচ্চু তার লিখিত বক্তব্যে বলেন দেশের এই ক্রান্তিলগ্নে সরকারী নির্দেশনা মোতাবেক প্রতিদিনের ন্যায় স্বাস্থ্য বিধি মেনে গাইবান্ধা থেকে চট্রগ্রাম গামী জান্নাত পরিবহনের একটি বাস ২৬ জন যাত্রী নিয়ে বুধবার রাত ১০ টার দিকে গাইবান্ধা থেকে রওয়ানা দিলে তুলশিঘাট নামক স্থানে পৌছিলে গাইবান্ধা সদর থানা পুলিশ চেকপোষ্টে বাসটি আটক করে।এসময় পুলিশ গাড়ীর কাগজ পত্র যাচাই করে সঠিকতা থাকলে ও অতিরিক্ত যাত্রী বহনের মিথ্যা অভিযোগ এনে ২ হাজার টাকা চাঁদা দাবী করে গাড়ীটি আটক করে রাখে বলে শ্রমিকরা জানান।

জান্নাত পরিবহন চাঁদার দাবি করে আটক করেছে পুলিশ !এই খবর দ্রুত পলাশবাড়ীতে ছড়িয়ে পড়লে শ্রমিকরা পলাশবাড়ী-গাইবান্ধা সড়ক অবরোধ করে রাখে।খবর পেয়ে পলাশবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ মাসুদুর রহমান মাসুদের নেতৃত্বে পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে উত্তেজিত শ্রমিকদের শান্ত না করে মারমুখী ভুমকিায় অবতীর্ণ হলে শ্রমিক উত্তেজনা বৃদ্ধি পায় !

এ থানার অফিসার ইনচার্জ মাসুদার রহমান মাসুদ পাশাপাশি অত্র সংগঠনের সভাপতি গোলাম সরোয়ার বিপ্লবের পিতা উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি ,সদর ইউনিয়নের চার বারের নির্বাচিত চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব মরহুম সাকোয়াতজ্জামান প্রধান বাবুকে অশ্লীল গালমন্দ করার পাশাপাশি প্রকাশ্যে শ্রমিকনেতা বিপ্লবের উপর গুলি চালানোর নির্দেশ দেয় ।পরে পুলিশ অস্ত্র উচিয়ে গুলি করার চেষ্টা করে।এসময় ওসির গানম্যান আব্দুল মোমিন শ্রমিক নেতাদের উপর লাঠিচার্জ করার চেষ্টা করে।

শ্রমিকনেতা আব্দুস সোবহান বিচ্চু ও গোলাম সরোয়ার প্রধান বিপ্লব আরো জানান, পুলিশ উত্তেজিত শ্রমিকদের শান্ত না করে প্রকাশ্যে গুলি করে মারার নির্দেশ দেয় কিভাবে! আমরা ২৪ ঘন্টার মধ্যে এই ওসির অপসারন চাই।অন্যথায় মহাসড়ক অবরোধসহ কঠোর কর্মসুচী ঘোষনা করা হবে বলে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে আল্টিমেটাম প্রদান করেন। পাশাপাশি মাননীয় স্বরাট্রমন্ত্রীসহ সংশ্লিষ্ট সকলের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

ট্যাগস :

আপনার মন্তব্য

আপলোডকারীর তথ্য

গাইবান্ধায় পুলিশের চাঁদাবন্ধসহ পলাশবাড়ী থানার ওসির অপসারন দাবী

আপডেট সময় : ০৯:৫৫:৪৯ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ জুন ২০২০

গাইবান্ধায় অতিরিক্ত যাত্রী বহনের মিথ্যা অভিযোগে এনে জান্নাত পরিবহন আটক করে পুলিশের চাঁদা দাবী ও পলাশবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ মাসুদার রহমান মাসুদ উত্তেজিত শ্রমিকদের উপর গুলি চালানোর নির্দেশ প্রদানের প্রতিবাদ এবং তার অপসারন দাবি করে বৃহস্পতিবার দুপুরে গাইবান্ধা বাসষ্ট্যান্ডে এক জনাকীর্ন সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত।

গাইবান্ধা জেলা বাস মিনিবাস কোচ ও মাইক্রোবাস শ্রমিক ইউনিয়নের সভাগতি আব্দুস সোবহান বিচ্চু তার লিখিত বক্তব্যে বলেন দেশের এই ক্রান্তিলগ্নে সরকারী নির্দেশনা মোতাবেক প্রতিদিনের ন্যায় স্বাস্থ্য বিধি মেনে গাইবান্ধা থেকে চট্রগ্রাম গামী জান্নাত পরিবহনের একটি বাস ২৬ জন যাত্রী নিয়ে বুধবার রাত ১০ টার দিকে গাইবান্ধা থেকে রওয়ানা দিলে তুলশিঘাট নামক স্থানে পৌছিলে গাইবান্ধা সদর থানা পুলিশ চেকপোষ্টে বাসটি আটক করে।এসময় পুলিশ গাড়ীর কাগজ পত্র যাচাই করে সঠিকতা থাকলে ও অতিরিক্ত যাত্রী বহনের মিথ্যা অভিযোগ এনে ২ হাজার টাকা চাঁদা দাবী করে গাড়ীটি আটক করে রাখে বলে শ্রমিকরা জানান।

জান্নাত পরিবহন চাঁদার দাবি করে আটক করেছে পুলিশ !এই খবর দ্রুত পলাশবাড়ীতে ছড়িয়ে পড়লে শ্রমিকরা পলাশবাড়ী-গাইবান্ধা সড়ক অবরোধ করে রাখে।খবর পেয়ে পলাশবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ মাসুদুর রহমান মাসুদের নেতৃত্বে পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে উত্তেজিত শ্রমিকদের শান্ত না করে মারমুখী ভুমকিায় অবতীর্ণ হলে শ্রমিক উত্তেজনা বৃদ্ধি পায় !

এ থানার অফিসার ইনচার্জ মাসুদার রহমান মাসুদ পাশাপাশি অত্র সংগঠনের সভাপতি গোলাম সরোয়ার বিপ্লবের পিতা উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি ,সদর ইউনিয়নের চার বারের নির্বাচিত চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব মরহুম সাকোয়াতজ্জামান প্রধান বাবুকে অশ্লীল গালমন্দ করার পাশাপাশি প্রকাশ্যে শ্রমিকনেতা বিপ্লবের উপর গুলি চালানোর নির্দেশ দেয় ।পরে পুলিশ অস্ত্র উচিয়ে গুলি করার চেষ্টা করে।এসময় ওসির গানম্যান আব্দুল মোমিন শ্রমিক নেতাদের উপর লাঠিচার্জ করার চেষ্টা করে।

শ্রমিকনেতা আব্দুস সোবহান বিচ্চু ও গোলাম সরোয়ার প্রধান বিপ্লব আরো জানান, পুলিশ উত্তেজিত শ্রমিকদের শান্ত না করে প্রকাশ্যে গুলি করে মারার নির্দেশ দেয় কিভাবে! আমরা ২৪ ঘন্টার মধ্যে এই ওসির অপসারন চাই।অন্যথায় মহাসড়ক অবরোধসহ কঠোর কর্মসুচী ঘোষনা করা হবে বলে সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে আল্টিমেটাম প্রদান করেন। পাশাপাশি মাননীয় স্বরাট্রমন্ত্রীসহ সংশ্লিষ্ট সকলের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।