ঢাকা ০৭:১০ অপরাহ্ন, বুধবার, ২২ মার্চ ২০২৩, ৮ চৈত্র ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

সৈকতের তীরে ভেসে এলো বিরল প্রজাতির মৃত ডলপিন মাছ

কুয়াকাটায় সৈকতে সমুদ্র থেকে ভেসে এলো বিরল প্রজাতির মৃত ডলপিন মাছ। পৌরসভার ৩ নং ওয়ার্ডের সৈকতে এ ডলপিনটি কয়েকদিন আগে মৃত অবস্থায় আসলেও পচে গলে দূর্গন্ধ ছড়াচ্ছে সৈকতের তীরসহ গোটা এলাকায় । অপসরণ বা মাটিতে পুতে রাখার করার কোন উদ্যোগ নেয়নি পৌর কর্তৃপক্ষ। অনেকর ধারনা জেলেদের জালে আটকা পরে মাছটি মারা গেছে। স্থানীয়রা নৌ-পুলিশকে বিষয়টি অবহিত করেন।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, মাত্র কয়েকদিন আগে এই ডলপিন মাছটি সমুদ্র থেকে ভেসে আসে। মাছটি পচে হলুদ বর্ণ হয়ে গেছে। গলায় রসি প্যাচানো। দূর্গন্ধ ছড়াচ্ছে গোটা সৈকত জুরে। হাটতে পারছেননা দেশী-বিদেশী পর্যটকরা ।

স্থানীয় ও পর্যটকরা জানান, দৃষ্টি আর্কষণ করা এই ডলপিন মাছটি জেলেদের জালে আটকা পরতে পারে। যার কারণে মাছটি মারা গেছে অথবা কোন রোগে আক্রান্ত হয়েও মারা যেতে পারে।

কুয়াকাটা শুভ সংঘ ক্লাবের সভাপতি জাহিদুল ইসলাম জানান, পরিস্কার পরিছন্ন সৈকত চাই আমরা। পৌরসভার পরিছন্ন কর্মী থাকলে তাদের নেই কোন তৎপরতা এটা খুবই দুঃখজনক। নৌ পুলিশ টহলে থাকলেও এ গুলো দেখে না। কুয়াকাটার নৌ পুলিশ ফাড়ীর ইনচার্জ মাহমুদ হোসেন মোল্লা জানান, আমাদের কেউ জানায়নি আতিস্বত্তর বিষয়টি দেখা হবে।

ট্যাগস :

আপনার মন্তব্য

আপলোডকারীর তথ্য

সৈকতের তীরে ভেসে এলো বিরল প্রজাতির মৃত ডলপিন মাছ

আপডেট সময় : ০৮:০৯:৪৫ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৫ জুলাই ২০২০

কুয়াকাটায় সৈকতে সমুদ্র থেকে ভেসে এলো বিরল প্রজাতির মৃত ডলপিন মাছ। পৌরসভার ৩ নং ওয়ার্ডের সৈকতে এ ডলপিনটি কয়েকদিন আগে মৃত অবস্থায় আসলেও পচে গলে দূর্গন্ধ ছড়াচ্ছে সৈকতের তীরসহ গোটা এলাকায় । অপসরণ বা মাটিতে পুতে রাখার করার কোন উদ্যোগ নেয়নি পৌর কর্তৃপক্ষ। অনেকর ধারনা জেলেদের জালে আটকা পরে মাছটি মারা গেছে। স্থানীয়রা নৌ-পুলিশকে বিষয়টি অবহিত করেন।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, মাত্র কয়েকদিন আগে এই ডলপিন মাছটি সমুদ্র থেকে ভেসে আসে। মাছটি পচে হলুদ বর্ণ হয়ে গেছে। গলায় রসি প্যাচানো। দূর্গন্ধ ছড়াচ্ছে গোটা সৈকত জুরে। হাটতে পারছেননা দেশী-বিদেশী পর্যটকরা ।

স্থানীয় ও পর্যটকরা জানান, দৃষ্টি আর্কষণ করা এই ডলপিন মাছটি জেলেদের জালে আটকা পরতে পারে। যার কারণে মাছটি মারা গেছে অথবা কোন রোগে আক্রান্ত হয়েও মারা যেতে পারে।

কুয়াকাটা শুভ সংঘ ক্লাবের সভাপতি জাহিদুল ইসলাম জানান, পরিস্কার পরিছন্ন সৈকত চাই আমরা। পৌরসভার পরিছন্ন কর্মী থাকলে তাদের নেই কোন তৎপরতা এটা খুবই দুঃখজনক। নৌ পুলিশ টহলে থাকলেও এ গুলো দেখে না। কুয়াকাটার নৌ পুলিশ ফাড়ীর ইনচার্জ মাহমুদ হোসেন মোল্লা জানান, আমাদের কেউ জানায়নি আতিস্বত্তর বিষয়টি দেখা হবে।