শুক্রবার, ১৮ জুন ২০২১, ০৫:৩৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব এ্যাড. শাহিদা রহমান রিংকু’র জন্মদিন ১৮ জুন জমি ও গৃহ প্রদান কার্যক্রম উদ্বোধন সর্ম্পকে ময়মনসিংহে জেলা প্রশাসকের প্রেস ব্রিফিং দিনাজপুরের চিরিরবন্দরে ট্রাকের চাপায় বাইসাকেল আরোহীর মৃত্যু ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে র‌্যাবের অভিযানে ১৩ দালাল আটক নানার বাড়ীতে বেড়াতে এসে পুকুরের পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু সীমান্তবর্তী বিরামপুরে দ্রুত বাড়ছে করোনার আক্রান্তের হার: লকডাউন জরুরী আন্তর্জাতিক রেটিং দাবা প্রতিযোগিতা-২০২১তৃতীয় রাউন্ড শেষে শীর্ষে ১৩ জন ঝিনাইদহে তিন মাসের ব্যবধানে পুলিশ কর্মকর্তা দুই ভাইয়ের মৃত্যু ময়মনসিংহে পুলিশের সাথে ছাত্রদলের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ১০ পুলিশ আহত ॥ আটক ৮ মান্দায় মুক্তিযোদ্ধা হাফিজুর রহমানকে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন

শরীয়তপুরে চাঁদাবাজির মামলায় ইউপি চেয়ারম্যান ও আ.লীগ নেতা গ্রেপ্তার

শরীয়তপুর প্রতিনিধি:
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ২৭ এপ্রিল, ২০২০
  • ১৪৯ বার পঠিত

চাঁদাবাজির মামলায় শরীয়তপুর সদর উপজেলার আংগারিয়া ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান ও শরীয়তপুর জেলা আওয়ামী লীগের কার্যকরী সদস্য আনোয়ার হোসেন হাওলাদারকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

সোমবার (২৭ এপ্রিল) সকাল সাড়ে ৯টার দিকে শরীয়তপুর পৌরসভার আংগারিয়া বাজার থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

শরীয়তপুরের পালং মডেল থানা সূত্র জানায়, শরীয়তপুর সদর উপজেলার আংগারিয়া ইউনিয়নের দাদপুর গ্রাম থেকে কাটাখালী পর্যন্ত খালের তিন কিলোমিটার খনন করছে পানি উন্নয়ন বোর্ড। শহীদ অ্যান্ড ব্রাদার্স নামে একটি প্রতিষ্ঠান প্রকল্পের কাজটি বাস্তবায়ন করছে। খালের খনন কাজ শুরু করা হলে স্থানীয় বাসিন্দারা বাঁধা দেয়া শুরু করে। তাদের সঙ্গে যুক্ত হয় শরীয়তপুর জেলা আওয়ামী লীগের কার্যকরী সদস্য ও আংগারিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন হাওলাদার।

সে প্রকল্পের কাজ করতে বাধা দিয়ে পাঁচ লাখ টাকা দাবি করে। গত ১০ এপ্রিল খাল খননের মাটি অপসারণ কাজে বাধা দেয়। তখন তিনি প্রকল্পটির ব্যবস্থাপক মজিবর সরদার ও তার ভাই এমদাদ সরদারকে মারধর করে। স্থানীয় পানি উন্নয়ন বোর্ডের খাল খনন কাজে বাঁধা, পাঁচ লাখ টাকা চাঁদা দাবি ও প্রকল্প ব্যবস্থাপককে মারধরের অভিযোগ এনে ঠিকাদার গত ১৬ এপ্রিল তার বিরুদ্ধে মামলাটি করে। মামলায় চেয়ারম্যানের আরও তিন ভাইসহ ১৪ জনকে আসামি করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের পরিচালক মতিউর রহমান বলেন, খালটি খনন কাজ শুরু করার পর থেে আনোয়ার চেয়ারম্যান ও তার ভাইয়েরা চাঁদা দাবি করতে থাকে। ওই খালের যা বরাদ্দ ছিল তাতে আমাদের লোকসান হবে। আমরা অপারগতা প্রকাশ করলে লোকজন নিয়ে আমার ম্যানেজারকে মারধর করে তার কাছে থাকা দুই লাখ টাকা ছিনিয়ে নিয়ে যায় আনোয়ার। বাধ্য হয়ে থানায় মামলা দিতে হয়েছে।

পালং মডেল থানার ওসি মো. আসলাম উদ্দিন বলেন, পাউবোর খাল খনন প্রকল্পের ঠিকাদারের কাছ থেকে ইউপি চেয়ারম্যান আনোয়ার হাওলাদারের বিরুদ্ধে চাঁদা দাবির অভিযোগে মামলায় করা হয়েছে। আদালতের মাধ্যমে তাকে করাগারে পাঠানো হয়েছে। মামলার অন্য আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

এছাড়াও আনোয়ার হাওলাদারের এলাকায় বিরুদ্ধে নানা ধরনের অভিযোগ রয়েছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

এ জাতীয় আরো খবর..

cover3.jpg”><img src=”https://www.bssnews.net/wp-content/uploads/2020/01/Mujib-100-1.jpg”>

via Imgflip

 

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি  © All rights reserved © 2011 Gnewsbd24
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazargewsbd451