শুক্রবার, ১৮ জুন ২০২১, ০৭:৪৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব এ্যাড. শাহিদা রহমান রিংকু’র জন্মদিন ১৮ জুন জমি ও গৃহ প্রদান কার্যক্রম উদ্বোধন সর্ম্পকে ময়মনসিংহে জেলা প্রশাসকের প্রেস ব্রিফিং দিনাজপুরের চিরিরবন্দরে ট্রাকের চাপায় বাইসাকেল আরোহীর মৃত্যু ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে র‌্যাবের অভিযানে ১৩ দালাল আটক নানার বাড়ীতে বেড়াতে এসে পুকুরের পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু সীমান্তবর্তী বিরামপুরে দ্রুত বাড়ছে করোনার আক্রান্তের হার: লকডাউন জরুরী আন্তর্জাতিক রেটিং দাবা প্রতিযোগিতা-২০২১তৃতীয় রাউন্ড শেষে শীর্ষে ১৩ জন ঝিনাইদহে তিন মাসের ব্যবধানে পুলিশ কর্মকর্তা দুই ভাইয়ের মৃত্যু ময়মনসিংহে পুলিশের সাথে ছাত্রদলের ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ১০ পুলিশ আহত ॥ আটক ৮ মান্দায় মুক্তিযোদ্ধা হাফিজুর রহমানকে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন

ইসলামিক ফাউন্ডেশনের শিক্ষকদের মানবেতর জীবন যাপন

আবু মোতালেব হোসেন, নীলফামারী প্রতিনিধিঃ
  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ২৮ এপ্রিল, ২০২০
  • ১৫৫ বার পঠিত

নীলফামারীতে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মসজিদ ভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কেন্দ্রের এক হাজার ৮৫টি মসজিদের শিক্ষকরা চার মাস ধরে বেতন না পেয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছে। প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাসের মহামারীতে ওই শিক্ষকরা সময়মত বেতন-ভাতা না পেয়ে পরিবার পরিজন নিয়ে বিপাকে পড়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের অধীনে জেলায় এক হাজার ৮৫ টি সহজ কোরআন শিক্ষা ও প্রাক-প্রাথমিক মসজিদ ভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কেন্দ্র রয়েছে। এরা প্রত্যেকে চার হাজার ৫০০ টাকা মাসিক বেতনে প্রতিটি কেন্দ্রে ১জন করে শিক্ষক, শিক্ষিকা কর্মরত রয়েছে। কিন্তু সরকারী বরাদ্দ না থাকায় চলতি বছরের জানুয়ারী মাস থেকে শিক্ষকরা বেতন পাচ্ছেন না।

সদর উপজেলার রামনগর বাজারে অবস্থিত জামে মসজিদ ভিত্তিক কেন্দ্রের শিক্ষক সিরাজুল ইসলাম, বাহালী পাড়া বাজার, খামাত পাড়া জামে মসজিদের শিক্ষিকা মমতা বেগম ও শিক্ষক শরিফুল ইসলামসহ অনেক জানায়, প্রায় চার মাস ধরে বেতন ভাতা বন্ধ থাকায় তারা পরিবার পরিজন নিয়ে মানবেতর জীবন যাপন করছেন।

তারা বলেন, করোনা ভাইরাসে লকডাউনে ঘর বন্দি কর্মহীন রয়েছেন মানুষ । তাই এই সময়ে কারো কাছে ধারদেনা করে চলাও সম্ভব হচ্ছে না। সরকারী সহযোগিতার অনুরোধ জানিয়েছেন তারা।

নীলফামারী ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উপ-পরিচালক (ডিডি) মারুফ রায়হান জানান, মসজিদ ভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কেন্দ্রের প্রকল্পের মেয়াদ ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে শেষ হয়ে যাওয়ায় শিক্ষকদের বেতন বন্ধ রয়েছে। তিনি জানান, প্রকল্পটি নতুন করে পাশের অপেক্ষায় রয়েছে, এটির অনুমোদন (পাশ) হলে শিক্ষকরা আবারও নিয়মিত বেতন পাবেন বলে তিনি জানান।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

এ জাতীয় আরো খবর..

cover3.jpg”><img src=”https://www.bssnews.net/wp-content/uploads/2020/01/Mujib-100-1.jpg”>

via Imgflip

 

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি  © All rights reserved © 2011 Gnewsbd24
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazargewsbd451