বৃহস্পতিবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:২৩ অপরাহ্ন

তানোরে যুবলীগ নেতার বিয়ের এক দিন পর তালাক

আব্দুস সবুর, তানোর প্রতিনিধি (রাজশাহী) ঃ
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ৭ মে, ২০২০
  • ২২৩ বার পঠিত

রাজশাহীর তানোরে এক যুবলীগ নেতার দ্বিতীয় বিয়ে নিয়ে থইথই খেলা খেলেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। ওই যুবলীগ নেতা মইনুদ্দিন সে উপজেলা যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদকের দায়িত্বে আছেন। তাঁর বাড়ি সরনজাই ইউপি এলাকার ভাগনা মানিক কন্নাগ্রামে। সে আলহাজ্ব হযরত আলীর ছেলে। ওই যুবলীগ নেতার প্রথম স্ত্রী ও এক ছেলে এক মেয়ে রেখে ওই ইউপির জৈনক ব্যক্তির মেয়েকে গত এপ্রিল মাসের শেষ দিকে গোপনে বিয়ে করেন।

বিয়ের খবর স্ত্রী সন্তানরা জানতে পেরে দ্বিতীয় স্ত্রীকে তালাক না দিলে আত্মহত্যা করবেন বলে সাব জানিয়ে দেয়। এক প্রকার বাধ্য হয়ে যুবলীগ নেতা মইনুদ্দিন বিয়ের এক দিন পর তালাক দেন। বিষয়টি কয়েকদিন পর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে ব্যাপক সমালোচনার ঝড় উঠে, সেই সাথে তাকে দল থেকে বহিষ্কারের জোরালো দাবি উঠেছে।

জানা গেছে গত ৩০ এপ্রিল বুধবার গোপনে মোহনপুর থানা ধুরইল ইউনিয়নের কাজি আফসারের কাছে গোপনে ৩ লাখ দেন মোহর ধার্য করে যুবলীগ নেতা বিয়ে করেন। বিয়ের পর দিন যুবলীগ নেতা মইনুদ্দিনের স্ত্রী সন্তান ও পরিবারের লোকজন জানতে পারেন। বিয়ের বিষয়টি মইনুদ্দিনের স্ত্রী ছেলে মেয়ে জানতে পেরে দ্বিতীয় স্ত্রীকে তালাক না দিলে সবাই একসাথে আত্মহত্যার হুমকি দেন। যার ফলে মইনুদ্দিন বাধ্য হন দ্বিতীয় বিয়ে করা স্ত্রীকে তালাক দিতে। যার ফলে গত শুক্রবার বিকেলের দিকে পারিবারিক ভাবে আপোষ মিমাসার মাধ্যমে তালাক দিতে বসে সালিশ বিচার। সালিশে ছেলে, মেয়ের বাবা, সরনজাই ইউপি সদস্য মাহতাব, আজিম, গ্রাম্য পুলিশ আফসার ও আনেসুর। বিচারে ৩ লাখ দেনমোহরের পরিবর্তে ২ লাখ ৮০ হাজার টাকায় সরনজাই ইউনিয়নের কাজি আফজালের নিকট তালাম হয়।

সরনজাই ইউপির একাধিক নেতাকর্মীরা জানান বিয়ের একদিন পর তালাক জীবনে এই প্রথম শুনলাম। এসব নেতাদের কাছে কি নারীরা ভোগের পন্য যে ইচ্ছে হল বিয়ে করল আবার ইচ্ছে মত টাকার জোরে তালাক দিয়ে দিল। আর এসব কাজে যে সব কাজিরা টাকার বিনিময়ে এমন কাজ করে থাকেন তাদেরকে আইনের আওতায় আনা দরকার। কিছুই বলার নাই টাকা থাকলে সব হয়। তবে এসব নেতারা দলের কিট, তাকে দল থেকে চিরতরে বিদায় দেয়া দরকার।

এবিষয়ে যুবলীগ নেতা মইনুদ্দিনের কাছে জানতে চাওয়া হয় বিয়ের এক দিন পরে তালাক দেয়া যায় কিনা তিনি জানান যখন খুশি বিয়ে কর এক দিন কেন এক ঘণ্টাও তালাক দেয়া যায়। তালাক না হলে আপনার স্ত্রী সন্তানরা আত্মহত্যা করত এজন্য আপনি তালাক দিয়েছেন প্রশ্ন করা হলে উত্তরে বলেন এসব মিথ্যা কথা, তাহলে তালাক দিলেন কেন জানতে চাইলে কোন সদ উত্তর দেন নি।

Surfe.be - Banner advertising service




নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

এ জাতীয় আরো খবর..

<a href=”https://surfe.be/ext/446180″ target=”_blank”><img src=”https://static.surfe.be/images/banners/en/240x400_1.gif” alt=”Surfe.be – Banner advertising service”></a>

via Imgflip

Surfe.be - Banner advertising service

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি  © All rights reserved © 2011 Gnewsbd24
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazargewsbd451