সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১০:২৪ পূর্বাহ্ন

বিশ্বম্ভরপুরে সরকারি ত্রাণের তালিকায় অনিয়মের অভিযোগ

হাসান বশির, বিশ্বম্ভরপুর প্রতিনিধি (সুনামগঞ্জ) :
  • Update Time : বুধবার, ১৩ মে, ২০২০

সুনামগঞ্জের বিশ্বম্ভরপুর উপজেলার সলুকাবাদ ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আবু তাহের এবং ৮ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য আক্তারুজ্জামান সহ সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে সরকারি ত্রাণের তালিকা তৈরীতে অনিয়ম দুর্নীতির অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এ বিষয়ে মঙ্গলবার সলুকাবাদ ইউপি আ’লীগ সাধারণ সম্পাদক এখলাছুর রহমান, সহ সভাপতি হাজী ছাইদুর রহমান, উপজেলা যুবলীগ সাংগঠনিক সম্পাদক আনোয়ার হোসেন সবুজ, সলুকাবাদ ইউপি ছাত্রলীগের রাসেল আহমদ শ্রাবন স্বাক্ষরিত একটি অভিযোগপত্র বিশ্বম্ভরপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে দাখিল করা হয়েছে। অভিযোগসূত্রে জানা যায়, ৭ নং ওয়ার্ডের তালিকায় একই পরিবারের মা ও ছেলে তালিকাভুক্ত হয়েছেন যার তালিকা ক্রমিক ৬০৫ ও ৬১০, এবং পরিবার প্রধান নূর হোসেনের নামে ফেয়ারপ্রাইজের (খাদ্যবান্ধব কর্মসূচির ১০ টাকা কেজির ৩০ কেজি) চাল উত্তোলন করলেও স্ত্রী আনেছা খাতুন ত্রাণের নতুন তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হয়েছেন।

অপরদিকে ছফিনা খাতুন ভিজিডি কার্ড নং ৩৮২ ও ফেয়ারপ্রাইজের ১২৯ নং কার্ড ’র বিপরীতে মাসিক ৩০ কেজি করে ৬০ কেজি চাল উত্তোলন করলেও নতুন কওে ত্রাণের তালিকায় ছফিনার নাম অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। এ ছাড়া এ ওয়ার্ডে আরো বিভিন্ন অনিয়মের বিষয় অভিযোগে উল্লেখ করা হয়েছে। ৮ নং ওয়ার্ডে তৈরীকৃত ত্রাণের ৬৬৭ তালিকা ক্রমিকের মমতা খাতুন, ফেয়ারপ্রাইজের কার্ড নং ১৭২ ও ভিজিডি কার্ড নং ৪৪৫’র বিপরীতে ৩০ কেজি কওে প্রতি মাসে ৬০ কেজি চাল উত্তোলন করলেও নতুন করে ত্রাণের তালিকায় তার নাম অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। এ ছাড়া ইউপি সদস্য আক্তার হোসেন বাবা, ভাই, ভাবী ও এক প্রবাসীর নাম তালিকায় উঠিয়েছেন।

এ ছাড়া আরো বিভিন্ন অনিয়মের বিষয়ে বিস্তারিতভাবে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়। এ বিষয়ে অভিযোগকারী সলুকাবাদ ইউপি আ’লীগ সাধারণ সম্পাদক এখলাছুর রহমান জানান, সরকারের ভাবমুর্তি যাতে কওে বিনষ্ট না হয় সে জন্যে বিশ্বম্ভরপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের ত্রাণ কমিটির নির্দেশে ইউপি আ’লীগের ত্রাণ কমিটি স্বচ্ছ তালিকা তৈরীতে জনপ্রতিনিধিদের স্বেচ্ছায় সহযোগীতার প্রস্তাব করি কিন্তু সেই সব জনপ্রতিনিধিরা ব্যক্তিস্বার্থ হাসিলে অনিয়ম দুর্নীতির মাধ্যমে তালিকা তৈরী করেছেন।

অভিযোগকারী ছাইদুর রহমান বলেন যে সব অসৎ জনপ্রতিনিধিরা ত্রাণ নিয়ে চালবাজী করে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থার দাবি করছি। এ বিষয়ে ইউপি সদস্য আবু তাহের বলেন জানামতে ভিজিডি ও ফেয়ারপ্রাইজের চাল পায়, এমন কোন লোকের নাম ত্রাণের তালিকায় দেওয়া হয়নি। তবে কিছু ভুল অজান্তে হতে পারে।

ইউপি সদস্য আক্ত্র হোসেন বলেন বলেন প্রবাসী ব্যক্তি নিরোদ্দেশ থাকায় তার স্ত্রীর আইডিকার্ড না থাকায় প্রবাসীর নাম দেওয়া হয়েছে। আত্মতীয় গরিব কয়েক জনের নাম দেওয়া হয়েছে ঠিক। ভিজিডি ফেয়ারপ্রাইজের চাল পায় এমন কারো নাম দেওয়া হয়নি।

বিষয় সর্ম্পকে বিশ্বম্ভরপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার বলেন ত্রাণ কার্যক্রমে খূব বেশি রয়েছি। অভিযোগ হয়েছে এমনটি জানা নেই। অভিযোগ পাওয়া গেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। উপজেলা চেয়ারম্যান মো. সফর উদ্দিন জানান, একটি অভিযোগ পাওয়া গেছে, অবশ্যই ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Surfe.be - Banner advertising service

https://www.facebook.com/gnewsbd24

Leave a Reply

More News Of This Category
<script async src="https://pagead2.googlesyndication.com/pagead/js/adsbygoogle.js?client=ca-pub-3423136311593782"
     crossorigin="anonymous"></script>
© All rights reserved © 2011 Live Media
কারিগরি সহযোগিতায়: মোঃ শাহরিয়ার হোসাইন
freelancerzone