রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২২, ০১:৩৫ অপরাহ্ন

ফুলবাড়ী-পার্বতীপুরে ঘূর্ণিঝড়ে ১০টি গ্রাম সহ ৩৩ কেভি বিদ্যুতের লাইন লন্ডভন্ড

মোঃ আফজাল হোসেন, ফুলবাড়ী (দিনাজপুর ) থেকে :
  • Update Time : মঙ্গলবার, ২৬ মে, ২০২০

ফুলবাড়ী পার্বতীপুরে আকস্মিক ঘূর্ণিঝড়ে ১০টি গ্রাম সহ ৩৩ কেভি বিদ্যুতের লাইন লন্ডভন্ড। ১০টি গ্রামের ও বিদ্যুতের লাইনের ক্ষতির পরিমাণ প্রায় ১০ কোটি টাকা।

গত সোমবার দিবাগত রাত্রি সাড়ে ১২টায় আকস্মিক ঘূর্ণিঝড়ে ফুলবাড়ী ও পার্বতীপুর উপজেলার কিছু এলাকা দিয়ে বয়ে যাওয়ার সময় কাঁচাপাকা বাড়িঘর, ইরি-বোরো ধান, গাছপালা ও ৩৩ কেভি বিদ্যুতের লাইনের ব্যাপক ক্ষতি সাধন হয়।

গতকাল মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টায় সরেজমিনে ফুলবাড়ী উপজেলার শিবনগর ইউপির দুধিপুকুর, দেবীপুর, মহেশপুর, কয়লা ভিত্তিক তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র এলাকা, রামভদ্রপুর, পার্বতীপুর উপজেলার বৈগ্রাম, শাহাগ্রাম, বর্ণমালা, কালুপাড়া সহ অন্যান্য এলাকায় গিয়ে দেখা যায় কাঁচাপাকা বাড়িঘর, গাছপালা, ইরি-বোরো ধান ক্ষেতের ব্যাপক ভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়।

রামভদ্রপুর গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য মোঃ জয়নাল জানান, সোমবার দিবাগত রাত্রিতে ঘূর্ণিঝড়টির গতিবেগ ছিল প্রায় ২৫০। এতে এই এলাকা লন্ডভন্ড হয়ে যায়। মহান আল্লাহ তায়ালার রহমতে জান-মালের ক্ষতি হয়নি। তবে এই এলাকায় সব মিলিয়ে প্রায় ১০ কোটি টাকার অধিক ক্ষতিগ্রস্থ হয়। কয়লা খনি এলাকায় ৩৩ কেভির বিদ্যুতের সঞ্চালনা লাইন সম্পূর্ণভাবে বিধ্বস্ত হয়। পিডিবির ৫০ থেকে ৬০টি বিদ্যুতের খুঁটি এবং পল্লী বিদ্যুতের খুঁটি উপড়ে পড়ে যায়। এতে মধ্যপাড়া, পার্বতীপুর, ফুলবাড়ী সহ অন্যান্য এলাকায় সম্পূর্ণভাবে বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ হয়ে যায়।

গত সোমবার দিনাজপুর জেলা প্রশাসক মাহমুদুল হাসান খবর পেয়ে বিকেল ৩টায় ক্ষতিগ্রস্থ এলাকা পরিদর্শন করে ফুলবাড়ী উপজেলার শিবনগর ইউনিয়ন পরিষদে ক্ষতিগ্রস্থ গ্রামবাসীদেরকে খাদ্য সামগ্রী সহ নগদ টাকা বিতরণ করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন ফুলবাড়ী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ আব্দুল সালাম চৌধুরী, উপজেলা চেয়ারম্যান আতাউর রহমান মিল্টন ও শিবনগর ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ মামুনুর রশীদ চৌধুরী বিপ্লব। এদিকে গত সোমবার পার্বতীপুর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোছাঃ শাহানা মিথুন মুন্নি পার্বতীপুর এলাকার তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র সংলগ্ন গ্রামগুলি পরিদর্শন করেন। গত সোমবার বিকেল ৪টায় ফুলবাড়ী আবাসিক প্রকৌশলী (নেসকো) কোম্পানীর ফুলবাড়ী বিদ্যুৎ অফিসের প্রকৌশলী মোঃ উজ্জ্বল হোসেন কর্মকর্তা কর্মচারীদেরকে নিয়ে সকাল থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত যৎসামান্য কাজ করে কোন রকমভাবে ফুলবাড়ীর বিদ্যুৎ লাইনটি চালু করেন।

তকাল মঙ্গলবার বেসরকারি সংস্থা ঠিকাদার গোল্ডেন ইলেকট্রনিক্স কোম্পানীর সত্ত্বাধিকারী সুনীল চক্রবর্তীর সার্বিক সহযোগিতায় বড়পুকুরিয়ায় ৫২৫ মেগাওয়াট কয়লা ভিত্তিক তাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্রের ৩৩ কেভির লাইনটি চালু করার জন্য জনবল নিয়ে মধ্যপাড়া, পার্বতীপুর, ফুলবাড়ী, কয়লা খনি এলাকায় বিদ্যুতের লাইন চালু করার লক্ষ্যে সর্বাত্ত্বক চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন দিনাজপুর নেসকো কোম্পানীর নির্বাহী প্রকৌশলী ডিভিশন-২ এর মোঃ সাহাদৎ হোসেন, পার্বতীপুর নেসকো কোম্পানীর আবাসিক প্রকৌশলী মোঃ তরিকুল ইসলাম, ফুলবাড়ী নেসকো কোম্পানীর আবাসিক প্রকৌশলী মোঃ উজ্জল। বেসরকারি সংস্থা গোল্ডেন ইলেকট্রিক কোম্পানীর কর্মচারী ও নেসকো কোম্পানীর কর্মচারী এবং কর্মকর্তারা বিদ্যুতের লাইন চালু করার জন্য আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।

এ বিষয়ে দিনাজপুর নেসকো কোম্পানীর নির্বাহী প্রকৌশলী ডিভিশন-২ মোঃ শাহাদৎ হোসেনের সাথে গতকাল মঙ্গলবার কথা বললে সাংবাদিকদের জানান, এই এলাকায় বিদ্যুৎ সহ বেশ কিছু গ্রামের অফুরন্ত ক্ষতি হয়েছে। বিশেষ করে বিদ্যুতের প্রায় ২ কোটি টাকা ক্ষতি সাধন হয়েছে। আমরা ইনশাল্লাহ্ ৩৩ কেভি বিদ্যুতের লাইনটি চালু করতে সক্ষম হবো।

Surfe.be - Banner advertising service

https://www.facebook.com/gnewsbd24

Leave a Reply

More News Of This Category
<script async src="https://pagead2.googlesyndication.com/pagead/js/adsbygoogle.js?client=ca-pub-3423136311593782"
     crossorigin="anonymous"></script>
© All rights reserved © 2011 Live Media
কারিগরি সহযোগিতায়: মোঃ শাহরিয়ার হোসাইন
freelancerzone