সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১১:৫৯ পূর্বাহ্ন

মানব পাচার প্রতিরোধে একজন মহিয়সী মৌরুমীর অবদান

মোঃ আফজাল হোসেন, ফুলবাড়ী প্রতিনিধি (দিনাজপুর ) :
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ৪ জুন, ২০২০

সৃষ্টিকুলের সর্বশ্রেষ্ঠ জীব হচ্ছে মানবজাতি। সেই মানুষই অপর একজন মানুষকে স্বীয় স্বার্থ হাসিলের উদ্দেশ্যে পণ্য সামগ্রীর মত একস্থান হতে অন্য স্থানে, একদেশ হতে অন্যদেশে পাচার করছে। পৃথিবীর অন্যান্য দেশের মত বাংলাদেশেও মানাবপাচারের প্রবণতা ব্যাপক। সম্প্রতি লিবিয়ার মানব পাচার চক্র বাংলাদেশী নাগরিকদের কাজ দেবার মিথ্যা আশ্বাস দিয়ে নিজদেশ হতে নিয়ে গিয়ে সেখানে বদ্ধ ঘরে আটক রেখে নির্যাতন চালায় প্রতিবাদ করলে মানব পাচারকারী চক্র গুলি করে ২৬ জন বাংলাদেশীকে হত্যা করে। এ ঘটনা থেকে বোঝা যায় যে মানব পাচার কারীরা কত সক্রিয় ও ভয়ানক শক্তিশালী।

বাংলাদেশে মানব পাচারের প্রভাব কমানোর জন্য সরকারী বেসরকারী কিছু সংখ্যক দপ্তর কাজ করে যাচ্ছে। এরই ধারাবাহিকতায় ইউএসএআইডি এর অর্থায়নে উইন রক ইন্টারন্যাশনাল এর কারিগরি সহায়তায় বিসিটিআইপি নামক প্রকল্পটি উত্তরাঞ্চলের ৪টি জেলায় বেসরকারী সংস্থা আরডিআরএস বাংলাদেশ বাস্তবায়ন করছে। উক্ত ৪টি জেলার মধ্যে দিনাজপুর জেলার ফুলবাড়ী উপজেলার ৪টি ইউনিয়নে বিগত ২০১৭ ইং সন হতে বিসিটিআইপি প্রকল্প বাস্তবায়িত হচ্ছে।

প্রকল্পের সূচনালগ্নে প্রকল্প কার্যক্রম বাস্তবায়ন সহায়তায় স্থানীয় কমিউনিটির জনগণের অংশগ্রহণ নিশ্চিত করণে প্রতি ইউনিয়নে আগ্রহী স্বেচ্ছাসেবী কিছু ব্যক্তি পিয়ার লিডার পদে নিয়োগ লাভ করেন এবং প্রশিক্ষণের মাধ্যমে দক্ষতা অর্জন করে তারা মাঠ পর্যায়ে স্ব স্ব ইউনিয়নে প্রকল্প কার্যক্রম বাস্তবায়নের মাধ্যমে মানব পাচার ও বাল্য বিবাহ প্রতিরোধ এবং নিরাপদ অভিবাসন কার্যকর করার জন্য নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছে। পিয়ার লিডার গণের মধ্যে অন্যতম হলেন মৌরুমী আক্তার, পেশা- ছাত্রী (এইচএসসি পরিক্ষার্থী), গ্রাম- চক এনায়েতপুর, ইউনিয়ন- বেতদিঘী, উপজেলা- ফুলবাড়ী, জেলা- দিনাজপুর।

সে দায়িত্ব গ্রহণের পর অত্যন্ত সক্রিয়ভাবে প্রকল্প কার্যক্রম বাস্তবায়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখে চলেছে। সে সংস্থার প্রকল্পের কর্মকর্তা গণকে মানবপাচারের শিকার ভিকটিমদের তথ্য প্রদান করে চিহ্নিতকরণে সহযোগিতা করেই স্থির থাকেনি বরং স্ব উদ্যোগে ভিকটিমদের স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আনার জন্য প্রচেষ্টা অব্যাহত রেখেছেন। দৃষ্টান্ত স্বরূপ প্রকল্প কর্তৃক তালিকা ভুক্তি মানবপাচারের শিকার ভিকটিম বেতদিঘী ইউনিয়নের সৈয়দপুর গ্রামের অসহায় আসাদুজ্জামান বাবু, পেশা- রিক্সাচালক।

তার প্রতিবন্ধী মায়ের জন্য প্রতিবন্ধী কার্ড পাইয়ে দিতে মৌরুমীর নিকট সহযোগিতা প্রার্থনা করলে গত ০৫/০৩/২০২০ ইং তারিখে মৌরুমী ভিকটিম আসাদুজ্জামান বাবুর প্রতিবন্ধী মাকে ফুলবাড়ী উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তার কার্যালয়ে নিয়ে গিয়ে সরাসরি সাক্ষাতের মাধ্যমে বিষয়য়টি জনগুরুত্বপূর্ণ মর্মে অবহিত করলেই উক্ত সমাজসেবা কমকর্তা তাৎক্ষনিকভাবে আবেদন ফরমসহ প্রয়োজনীয় অন্যান্য কাগজপত্রাদি জমা গ্রহণ করে এবং গত ১৮/০৫/২০২০ ইং তারিখে প্রতিবন্ধী কার্ড প্রদান করেন।

এছাড়াও চিন্তামন গ্রামে ভিকটিম সাথী ও মনোয়ারা করোনা ভাইরাস রোধে লকডাউন হয়ে কর্মহীন থাকাকালীন ইউনিয়ন পরিষদ হতে ত্রাণ পেতে মৌরুমীর নিকট সহযোগিতা চাইলে সে উভয়কে সাথে নিয়ে ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান-মেম্বারের নিকট সরাসরি সাক্ষাতের মাধ্যমে নাম তালিকা ভুক্তি করেন। ফলে ০৮/০৪/২০২০ ইং তারিখে ভিকটিমগণ ইউনিয়ন পরিষদ হতে ত্রাণের চাল সংগ্রহ করতে সক্ষম হন।

প্রকল্পের অধিকাংশ কার্যক্রম বাস্তবায়নে ভূমিকা রাখায় মৌরুমী অনেক জনপ্রিয় হয়ে ওঠে। ইউপি সদস্য সহ ইউনিয়ন মানবপাচার কমিটির অন্যতম সদস্য জনাব আতিকুল ইসলামের প্রস্তাবে গত ০৬/০৮/২০১৯ ইং তারিখে ইউনিয়ন মানবপাচার প্রতিরোধ কমিটির মাসিক সভায় পিয়ার লিডার মৌরুমী কমিটির সদস্যপদ লাভ করেন এবং নিজেকে গর্বিত মনে করেন।

নিয়মিত সিটিসি সভায় অংশগ্রহণ ও সিদ্ধান্তগ্রহণে স্বীয় মতামত পোষণ করেন। মানব পাচার প্রতিরোধে মৌরুমীর কাজের পরিধি ধীরে ধীরে ব্যাপকতা লাভ করে। উচ্চ শিক্ষা শেষে জনগণের কল্যাণে মানবপাচার প্রতিরোধ, বাল্য বিবাহ প্রতিরোধ, নারী নির্যাতন রোধ ইত্যাদি নানাবিধ সমাজকল্যাণমূলক কাজের সাথে নিজেকে সম্পৃক্ত করে একটি সমাজ উন্নয়ন সংগঠন দাঁড় করার স্বপ্ন দেখছেন।

Surfe.be - Banner advertising service

https://www.facebook.com/gnewsbd24

Leave a Reply

More News Of This Category
<script async src="https://pagead2.googlesyndication.com/pagead/js/adsbygoogle.js?client=ca-pub-3423136311593782"
     crossorigin="anonymous"></script>
© All rights reserved © 2011 Live Media
কারিগরি সহযোগিতায়: মোঃ শাহরিয়ার হোসাইন
freelancerzone