সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৯:৩৯ পূর্বাহ্ন

ইতালিকেও ছাড়াল ব্রাজিল, ফের সর্বোচ্চ আক্রান্ত ও মৃত্যু

জি-নিউজবিডি২৪ ডেস্ক :
  • Update Time : শুক্রবার, ৫ জুন, ২০২০

কল্পনার চেয়েও করোনা ভয়াবহ রূপ নিয়েছে লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিলে। যেখানে আবারও সর্বোচ্চ আক্রান্ত ও মৃত্যুর রেকর্ড নিয়ে প্রাণহানিতে ইতালিকেও ছাড়িয়ে গেল দেশটি। এতে চরম বিপর্যয়ের মুখে ব্রাজিলের চিকিৎসা ব্যবস্থা।

অন্যদিকে, জেঁকে বসা ভাইরাসটির এমন ভয়াবহ চিত্রে কঠোর সমালোচনার মুখে পড়েছেন প্রেসিডেন্ট জাইর বলসোনারো। এর জন্য তিনি গণমাধ্যমকে দায়ী করেছেন।

তবে এর বিরোধীতা করে দেশটির স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা বলছেন, শুরু থেকে অবহেলা ও আর পূর্ব প্রস্তুতির অভাবেই ব্রাজিলে করোনা এতোটা ভয়াবহ রূপ নিয়েছে। যার ফল ভোগ করতে হচ্ছে গোটা লাতিন আমেরিকাকে।

বাস্তবতাও তাই বলছে। ব্রাজিলের এই করুণাবস্থা চরম সংকটে ফেলেছে সহগোত্রীয় দেশগুলোকেও। মেক্সিকো, পেরু, চিলি, এল সালভেদর, গুয়েতেমালা ও নিকারগুয়া, আর্জেন্টিনা, পানামার মতো দেশগুলাতে হু হু করে বাড়ছে সংক্রমণ, স্বজন হারা হয়েছে প্রায় ৬৫ হাজার মানুষ। এর মধ্যে ব্রাজিলের পরই সবচেয়ে ভয়াবহ অবস্থা মেক্সিকোয়।

ব্রাজিলের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে বিশ্বখ্যাত জরিপ সংস্থা ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্যমতে, গত ২৪ ঘণ্টায় ২৯ হাজার ৮৯০ জনের দেহে মিলেছে করোনা সংক্রমণ। এতে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৬ লাখ ১৫ হাজার ৮৭০ জনে দাঁড়িয়েছে। নতুন করে প্রাণ গেছে ১ হাজার ৪৯২ জনের। যা একদিনে সর্বোচ্চ। এ নিয়ে দেশটিতে মৃতের সংখ্যা ৩৪ হাজার ৩৯ জনে ঠেকেছে।

সময়ের সাথে আক্রান্তের হার পাল্লা দিয়ে বাড়লেও সে তুলনায় কম সুস্থতার সংখ্যা। লাতিন আমেরিকার দেশটিতে এখন পর্যন্ত পৌনে ৩ লাখ মানুষ করোনা থেকে পুনরুদ্ধার হয়েছেন।

একদিন আগে ইউরোপের দেশ ইতালির পেছনে থাকলেও গত ২৪ ঘণ্টায় রেকর্ড মৃত্যুতে দেশটিকে ছাড়িয়ে গেছে ব্রাজিল। এতে করে ব্রাজিলের সামনে এখন শুধু যুক্তরাজ্য আর যুক্তরাষ্ট্র। এর মধ্যে যুক্তরাজ্যে ক্রমেই নিয়ন্ত্রণে আসছে করোনা। ফলে, শিগগরই দেশটিকে প্রাণানিতে যে ছাড়িয়ে যাবে তা বলাই যায়। আর যুক্তরাষ্ট্রে মৃতের সংখ্যা লাখ ছাড়িয়েছে। যা ভাইরাসটিতে কোন দেশে সর্বোচ্চ প্রাণহানি।

এদিকে আক্রান্ত ও প্রাণহানির এমন হারে বিশ্ব সাস্থ্য সংস্থার আশঙ্কার চেয়ে জটিল অবস্থা দেখছে ব্রাজিল। সংস্থাটি গতমাসের শেষের দিকে বলেছিল, ‘চলমান অবস্থা অব্যাহত থাকলে আগামী আগস্টের মধ্যে লাতিন আমেরিকার দেশটিতে মৃতের সংখ্যা সোয়া লাখ ছাড়িয়ে যেতে পারে। শুধু তাই নয়, এ অঞ্চলের অন্যান্য দেশেও ভয়াবহ আকার ধারণ করতে পারে করোনা।’

কিন্তু বাস্তবচিত্র আরও ভয়াবহ। আগামী আগস্ট মাস আসতে আসতে প্রাণহানি দেড় লাখ ছাড়িয়ে যাওয়ার আশঙ্কা করছেন দেশটির বিশেষজ্ঞরা।

এদিকে, লাতিন আমেরিকার আরেক দেশ পেরুতে আক্রান্ত ১ লাখ প্রায় ৮২ হাজার ছুঁই ছুঁই, যেখানে প্রাণহানি ৫ হাজার ছাড়িয়েছে। চিলিতে সংক্রমিতের সংখ্যা ১ লাখ সাড়ে ১৮ হাজারের বেশি, সেখানে এখন পর্যন্ত ১ হাজার ৩৫৬ জনের মৃত্যু হয়েছে।

মেক্সিকোতে আক্রান্ত ১ লাখ সাড়ে ৫ হাজার ছাড়িয়েছে, মৃত্যু সাড়ে ১২ হাজার। দেশটি প্রাণহানির হারে যুক্তরাষ্ট্রকেও ছাড়িয়ে গেছে। ইকুয়েডরে আক্রান্ত ৪১ হাজারের কাছাকাছি। প্রাণ গেছে সেখানে ৩ হাজার ৪৮৬ জনের।

আর্জেন্টিনায় ২০ পেরিয়েছে আক্রান্ত, মারা গেছে সেখানে ৬০৮ জন। এছাড়াও পানামায় ১৫ হাজার ছাড়িয়েছে সংক্রমিতের সংখ্যা, ৩৬৩ জনের মৃত্যু হয়েছে দেশটিতে।

Surfe.be - Banner advertising service

https://www.facebook.com/gnewsbd24

Leave a Reply

More News Of This Category
<script async src="https://pagead2.googlesyndication.com/pagead/js/adsbygoogle.js?client=ca-pub-3423136311593782"
     crossorigin="anonymous"></script>
© All rights reserved © 2011 Live Media
কারিগরি সহযোগিতায়: মোঃ শাহরিয়ার হোসাইন
freelancerzone