বুধবার, ১৭ অগাস্ট ২০২২, ০৩:৫০ পূর্বাহ্ন

Surfe.be - Banner advertising service

গাইবান্ধা পৌর এলাকার লকডাউন ঘোষণার বিষয়ে আলোচনা

সিরাজুল ইসলাম রতন, গাইবান্ধা প্রতিনিধি :
  • Update Time : মঙ্গলবার, ১৬ জুন, ২০২০

করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে গাইবান্ধা পৌর এলাকা লকডাউন ঘোষণা সংক্রান্ত এক আলোচনা সভা ১৫ জুন সোমবার পৌরসভা সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়। পৌরসভার মেয়র অ্যাডভোকেট শাহ মাসুদ জাহাঙ্গীর কবীর মিলন আহুত এই আলোচনা সভায় গাইবান্ধার সিভিল সার্জন, সদর থানার অফিসার ইনচার্জ, জেলার সকল দলের রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, সাংবাদিক, পৌরসভার প্যানেল মেয়র ও কাউন্সিলররা উপস্থিত ছিলেন।

আলোচনা অংশ গ্রহণ করেন সিভিল সার্জন ডা: এবিএম আবু হানিফ, জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ফরহাদ আব্দুল্যাহ হারুন বাবলু, সদর থানার অফিসার ইনচার্জ খান মো. শাহরিয়ার, চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ড্রাষ্টিজের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা মাকসুদার রহমান শাহান, পৌরসভার প্যানেল মেয়র তানজিমুল ইসলাম পিটার, সিপিবি জেলা সভাপতি মিহির ঘোষ, গাইবান্ধা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আবু জাফর সাবু, সাংবাদিক আরিফুল ইসলাম বাবু, জেলা গণ ফোরাম পার্টির ময়নুল হক রাজা, জেলা জাসদের সভাপতি গোলাম মারুফ মনা, সাধারণ সম্পাদক জিয়াউল হক জনি, মঞ্জুরুল ইসলাম মিঠু, নিলুফার ইয়াসমিন শিল্পী, কাজী রায়হানুল হক, রকিবুল হক স্বপন প্রমুখ।

সভায় সরকারি নির্দেশনা মোতাবেক গাইবান্ধা পৌর এলাকার ওয়ার্ডের করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত এলাকা জোন ভিত্তিক ভাগ করে লকডাউন করা, রেল লাইনের পূর্ব ও পশ্চিম এলাকা একদিন পর পর লকডাউন করা, গোটা পৌর এলাকা একটানা ১৪ দিন লকডাউন করাসহ বিভিন্ন বিষয়ে মতামত ব্যক্ত করেন উপস্থিত বক্তারা। পৌরসভার মেয়র শাহ মাসুদ জাহাঙ্গীর কবীর মিলন তাঁর বক্তব্যে সভায় আলোচিত বিষয়ের গুরুত্বারোপ করেন এবং করোনা ভাইরাস নিয়ন্ত্রনে গাইবান্ধা পৌরবাসিসহ সকল রাজনৈতিক দলের সার্বিক সহযোগিতা কামনা করেন।

তিনি বলেন, যেহেতু পৌর এলাকাভূক্ত গোটা জেলাসহ একটানা ১৪ দিন লকডাউন করে রাখার সংখ্যমতা পৌর কর্তৃপক্ষের নেই সেজন্য করোনা সংক্রমণ এলাকার ওয়ার্ড সমূহে জোন ভিত্তিক লকডাউনের উপর তিনি গুরুত্বরোপ করেন এবং বলেন, এ বিষয়টি নিয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণের লক্ষ্যে জেলা পর্যায়ের করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ কমিটির সভায় উত্থাপন করা হবে বলে তিনি উল্লেখ করেন। মেয়র জরুরী ভিত্তিতে গাইবান্ধা পৌরসভার হটলাইন ০১৭০৬-৯৮৭৩৯৭ ও সিভিল সার্জনের হটলাইন ০১৭৬৯-৯৫৭৩২২ তে করোনা সংক্রান্ত খবরা খবর প্রদান করার জন্য অনুরোধ জানান।সভায় পৌর মেয়র মিলন উল্লেখ করেন যে, গাইবান্ধা পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডে এ পর্যন্ত ১৫ জন করোনা রোগীর পজেটিভ সন্ধান পাওয়া গেছে।

এরমধ্যে ১নং ওয়ার্ডের ব্রীজ রোড কালিবাড়ির আবু রায়হান পাপ্পু (১৭), ২নং ওয়ার্ডের সরকারপাড়ার মাসুদ আকতার (৪০) ও আবু বাশার (৪১), ৩নং ওয়ার্ডের খানকাশরীফের পুলিশের এসআইস নুরুল ইসলাম (৩৫), সুখশান্তি মোড়ের আনিছুর রহমান (৩৫) ও দেওয়ান শফিকুল ইসলাম (৪৯), ৪নং ওয়ার্ডের জেলা পরিষদ ডাকবাংলো জেলা পুলিশের ডিআইও ওয়ান আব্দুল লতিফ (৪৫), পলাশপাড়ার হায়াত (২), থানাপাড়ার আহসান হাবীব (৩৯) ও সদর হাসপাতালের নার্স ঝরনা বেগম (৪০), ৬নং ওয়ার্ডের মাস্টারপাড়ার নজরুল ইসলাম (৩৮) ও জনতা ব্যাংক, ব্রীজ শাখার সহকারি ম্যানেজার খাপাড়ার সাদেক আলী (৪০), ৭নং ওয়ার্ডের পুলিশ লাইনের শাহাদত হোসেন (৫৩) ও মুন্সিপাড়া (সালাম বিড়ি ফ্যাক্টরী) সংলগ্ন বেলাল হোসেন (২৬), ৮নং ওয়ার্ডের সর্দারপাড়া মসজিদ সংলগ্ন মশিউর রহমান (৪৫) করোনা রোগী রয়েছে। ৫ ও ৯নং ওয়ার্ডে কোন রোগীর সন্ধান পাওয়া যায়নি।

Surfe.be - Banner advertising service

https://www.facebook.com/gnewsbd24

Leave a Reply

More News Of This Category
© All rights reserved © 2011 Live Media
কারিগরি সহযোগিতায়: মোঃ শাহরিয়ার হোসাইন
freelancerzone