শুক্রবার, ১৯ অগাস্ট ২০২২, ১১:৩৮ অপরাহ্ন

Surfe.be - Banner advertising service

ভারতে ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত প্রায় ১৭ হাজার, মোট মৃত্যু ১৫ হাজার ছুঁইছুঁই

জি-নিউজবিডি২৪ ডেস্ক :
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ২৫ জুন, ২০২০

ভারতে ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত প্রায় ১৭ হাজার, মোট মৃত্যু ১৫ হাজার ছুঁইছুঁই। ফি-দিন বাড়ছে নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা। এই সংক্রমণ বৃদ্ধি উদ্বেগ বাড়াচ্ছে চিকিৎসক থেকে বিশেষজ্ঞদের। ভারতে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয় দেওয়া তথ্য অনুসারে, দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় ১৬ হাজার ৯২২ জন নতুন করে সংক্রমিত হয়েছেন। ২৪ ঘণ্টায় সংক্রমণের নিরিখে যা সর্বাধিক। এক দিনে এত জন এর আগে সংক্রমিত হননি। এ নিয়ে দেশে মোট আক্রান্ত হলেন চার লক্ষ ৭৩ হাজার ১০৫ জন। মহারাষ্ট্র, দিল্লি ও তামিলনাড়ু— দেশের মোট আক্রান্তের প্রায় ৬০ শতাংশই এই তিনটি রাজ্য থেকে।

করোনায় আক্রান্তের পাশাপাশি মৃত্যুও বাড়াচ্ছে উদ্বেগ। করোনার থাবায় মৃত্যুর সংখ্যা ১৫ হাজার ছুঁইছুঁই। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের দেওয়া তথ্য অনুসারে, গত ২৪ ঘণ্টায় ৪১৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে এখনও পর্যন্ত ১৪ হাজার ৮৯৪ জনের মৃত্যু হল করোনার কারণে। এর মধ্যে সাড়ে ছ’হাজারেরও বেশি মৃত্যু হয়েছে শুধু মহারাষ্ট্রেই। দিল্লিতেও বাড়তে বাড়তে সংখ্যাটা দু’হাজার তিনশোর পেরিয়েছে। তৃতীয় স্থানে থাকা গুজরাতে মারা গিয়েছেন এক হাজার ৭৩৫ জন। তামিলনাড়ু (৮৬৬), উত্তরপ্রদেশ (৫৯৬), পশ্চিমবঙ্গ (৫৯১), মধ্যপ্রদেশ (৫৩৪)-এও মৃত্যুর সংখ্যা যথেষ্ট উদ্বেগের। এ ছাড়া শতাধিক মৃত্যুর তালিকায় রয়েছে রাজস্থান (৩৭৫), তেলঙ্গানা (২২৫), হরিয়ানা (১৮৮), কর্নাটক (১৬৪), অন্ধ্রপ্রদেশ (১২৪) ও পঞ্জাব (১১৩)-র মতো রাজ্যগুলি।

আক্রান্ত ও মৃত্যু রোজদিন বাড়লেও সুস্থ হয়ে ওঠার সংখ্যাটাও স্বস্তি দিচ্ছে। এখন দেশে সুস্থ হয়ে ওঠা করোনা রোগীর সংখ্যা সক্রিয় করোনা আক্রান্তের চেয়ে বেশি। মোট আক্রান্তের অর্ধেকেরও বেশি সুস্থ হয়ে উঠেছেন। গত ২৪ ঘণ্টায় ১৩ হাজার ১২ জন সুস্থ হয়েছেন। এক দিনে এত সংখ্যক রোগী এর আগে সুস্থ হননি। এ নিয়ে মোট দু’লক্ষ ৭১ হাজার ৬৯৭ জন করোনার কবল থেকে মুক্ত হয়েছেন।

গোড়া থেকেই দেশে করোনা সংক্রমণের শীর্ষে রয়েছে মহারাষ্ট্র। সেখানে মোট আক্রান্ত এক লক্ষ ৪২ হাজার ৯০০ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় তিন হাজার ৮৯০ জন নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন সে রাজ্যে। দিল্লিতেও রোজদিন উল্লেখযোগ্য হারে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। আক্রান্তের নিরিখে সম্প্রতি তামিলনাড়ুকে পিছনে ফেলে দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছে দেশের রাজধানী। সেখানে এখন মোট আক্রান্ত ৭০ হাজার ৩৯০ জন। তামিলনাড়ুতে ৬৭ হাজার ৪৬৮ জন। চতুর্থ স্থানে থাকা গুজরাতে মোট আক্রান্ত ২৮ হাজার ৯৪৩ জন।

করোনা সংক্রমণের হিসাবে এর পর রয়েছে উত্তরপ্রদেশ, রাজস্থান, পশ্চিমবঙ্গ, মধ্যপ্রদেশ, হরিয়ানা, অন্ধ্রপ্রদেশ ও কর্নাটক। এই সব রাজ্যগুলি ১০ হাজারের গণ্ডি পার করে এগিয়ে চলেছে। উত্তরপ্রদেশ (১৯,৫৫৭), রাজস্থান (১৬,০০৯), পশ্চিমবঙ্গ (১৫,১৭৩), মধ্যপ্রদেশ (১২,৪৪৮), হরিয়ানা (১২,০১০), তেলঙ্গানা (১০,৪৪৪), অন্ধ্রপ্রদেশ (১০,৩৩১) ও কর্নাটকে (১০,১১৮) জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এর পর ক্রমান্বয়ে রয়েছে বিহার (৮,২০৯), জম্মু ও কাশ্মীর (৬,৪২২), অসম (৬,১৯৮), ওড়িশা (৫,৭৫২), পঞ্জাব (৪,৬২৭), কেরল (৩,৬০৩)-র মতো রাজ্যগুলি।

গত ২৪ ঘণ্টায় ৪৪৫ জন নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন এ রাজ্যে। এ নিয়ে মোট আক্রান্ত হলেন ১৫ হাজার ১৭৩ জন। কোভিডে আক্রান্ত হয়ে মোট ৫৯১ জনের মৃত্যু হয়েছে রাজ্যে।

Surfe.be - Banner advertising service

https://www.facebook.com/gnewsbd24

Leave a Reply

More News Of This Category
© All rights reserved © 2011 Live Media
কারিগরি সহযোগিতায়: মোঃ শাহরিয়ার হোসাইন
freelancerzone