শুক্রবার, ১৯ অগাস্ট ২০২২, ০৪:৫৮ পূর্বাহ্ন

Surfe.be - Banner advertising service

যুক্তরাষ্ট্রে ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত ৫৪ হাজার ৯০৪ জন

জি-নিউজবিডি২৪ ডেস্ক :
  • Update Time : শনিবার, ৪ জুলাই, ২০২০

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে টানা তৃতীয় দিনের মতো অর্ধ লাখ সংক্রমণের রেকর্ড হয়েছে। আগের তুলনায় সুস্থতার হার বাড়লেও আক্রান্তের তুলনায় তা অনেক কম। এখন পর্যন্ত ২৮ লাখ ৯০ হাজার আমেরিকান করোনার শিকার হয়েছেন। এর মধ্যে সোয়া ১২ লাখ মানুষ সুস্থ বেঁচে ফিরলেও না ফেরার দেশে চলে গেছেন ১ লাখ ৩২ হাজারের বেশি মানুষ।

দেশটির স্বাস্থ্য কর্মকর্তাদের ধারণা ইতোমধ্যে যুক্তরাষ্ট্রে অন্তত ২০ মিলিয়ন (দুই কোটি) মানুষ করোনার শিকার হয়েছেন। দেশটির দ্য সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল (সিডিসি) বলছে, ‘প্রকৃত তথ্য হলো প্রকাশিত সংখ্যার অন্তত ১০ গুণ বেশি মানুষ করোনার ভয়াবহতার শিকার।

আগামী কয়েকদিনে যুক্তরাষ্ট্রে করোনা আরও ভয়াবহ রূপ নিবে বলে ধারণা বিশেষজ্ঞদের। বাস্তব অবস্থাও অবশ্য তাই বলছে। এতে করে দেশটি ভয়াবহ সংকটের মধ্যে পড়তে যাচ্ছে।

বিশ্বখ্যাত জরিপ সংস্থা ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্যানুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্তের তালিকায় যোগ হয়েছে ৫৪ হাজার ৯০৪ জন। এতে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ২৮ লাখ ৯০ হাজার ৫৮৮ জনে দাঁড়িয়েছে। নতুন করে প্রাণ গেছে ৬১৬ জনের। এ নিয়ে দেশটির ১ লাখ ৩২ হাজার ১০১ জনের মৃত্যু হলো করোনায়।

এর মধ্যে শুধু নিউইয়র্কেই আক্রান্ত ৪ লাখ ২১ হাজার ছুঁই ছুঁই। যেখানে ৩২ হাজার ১৯১ জন মানুষের মৃত্যু হয়েছে। সংক্রমণে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ শহর ক্যালিফোর্নিয়ায় করোনা রোগীর সংখ্যা ২ লাখ ৫২ হাজারের বেশি। এর মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৬ হাজার ৩১৪ জনের।

সংক্রমণ আশঙ্কাজনকহারে দীর্ঘ হয়েই চলেছে টেক্সাসে। এ শহরে আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ৯০ হাজার ছাড়িয়েছে। এর মধ্যে প্রাণহানি ঘটেছে ২ হাজার ৬২১ জনের। ফ্লোরিডায় আক্রান্ত ১ লাখ সাড়ে ৭৮ হাজার। ইতিমধ্যে সেখানে ৩ হাজার ৬৮৬ জনের মৃত্যু হয়েছে করোনায়।

নিউ জার্সিতে করোনার শিকার প্রায় ১ লাখ সাড়ে ৭৬ হাজার মানুষ। এর মধ্যে প্রাণহানি ঘটেছে ১৫ হাজার ২৭০ জনের। ইলিনয়সে ১ লাখ প্রায় ৪৭ হাজার মানুষের শরীরে ভাইরাসটির সংক্রমণ পাওয়া গেছে। এর মধ্যে ৭ হাজার ২১৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। ম্যাসাসুয়েটসসে ১ লাখ সাড়ে ৯ হাজার ছাড়িয়েছে সংক্রমিতের সংখ্যা।

যেখানে ৮ হাজার ১৪৯ জন প্রাণ হারিয়েছেন। পেনসিলভেনিয়ায় ৯৩ হাজারের মানুষ করোনার শিকার। এর মধ্যে না ফেরার দেশে সেখানকার ৬ হাজার ৭৯৭ জন। সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের প্রায় অর্ধেক অঙ্গরাজ্যে নতুন করে সংক্রমণ বেড়েছে। সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত হচ্ছেন তরুণ জনগোষ্ঠী, যাদের বয়স ২০ থেকে ৪০ বছরের মধ্যে।

Surfe.be - Banner advertising service

https://www.facebook.com/gnewsbd24

Leave a Reply

More News Of This Category
© All rights reserved © 2011 Live Media
কারিগরি সহযোগিতায়: মোঃ শাহরিয়ার হোসাইন
freelancerzone