শুক্রবার, ১৯ অগাস্ট ২০২২, ০৮:৫৯ অপরাহ্ন

Surfe.be - Banner advertising service

আগামী জুনেও শেষ হচ্ছে না পদ্মা সেতুর কাজ

বিশেষ প্রতিবেদক :
  • Update Time : শুক্রবার, ১০ জুলাই, ২০২০

আগামী বছরের জুন মাসে শেষ হচ্ছে না স্বপ্নের পদ্মা সেতুর কাজ। নভেল করোনাভাইরাসের (কভিড-১৯) কারণে ৬ মাস পিছিয়ে ২০২১ সালের ডিসেম্বরে শেষ করার লক্ষ্য ঠিক করেছে সেতু কর্তৃপক্ষ। এছাড়া জুনের মধ্যে সবগুলো স্প্যান বসানোর কথা থাকলেও সম্ভব হয়নি। বর্ষা শেষে আসছে ডিসেম্বরের মধ্যে সেটা সম্ভব হবে বলে আশা করছেন প্রকল্প পরিচালক।

সবশেষ ৩১ নম্বর স্প্যানটি বসানোর পর পদ্মাসেতুর সাড়ে ৪ কিলোমিটারের বেশি দৃশ্যমান হয়েছে। আর এতে ৬ দশমিক এক ৫ কিলোমিটারের মূলসেতুর দুই তৃতীয়াংশের বেশি এখন মাথা তুলে আছে নদীর বুকে।

২০১৪ সালের নভেম্বরে কাজ শুরুর পর গত ৫ বছরে সামনে এসেছে নানা প্রতিবন্ধকতা। এর বেশির ভাগই প্রাকৃতিক। তারপরও থামেনি কাজ।

প্রমত্তা পদ্মার তীব্র স্রোত আর অত্যধিক পলি মাটির গাঠনিক ভিন্নতা স্বপ্নের সেতু নির্মাণে বার বার বাঁধা হয়ে দাঁড়িয়েছে। আর সবশেষ সংযোজন হয়েছে নভেল করোনাভাইরাস। তাই এতে ২০২১ সালের মাঝামাঝিতে কাজ শেষ হওয়া নিয়ে তৈরি হয়েছে নানা শঙ্কা।

চায়না মেজর ব্রিজ কোম্পানির প্রায় এক হাজার চীনা নাগরিক কাজ করছেন। তাদের মধ্যে ৩৩২ প্রকৌশলী ও টেকনিশিয়ান ফেব্রুয়ারিতে চীনে গিয়ে করোনার কারণে আটকা পড়েছিল। এতেই কমতে থাকে কাজের গতি। এছাড়াও মার্চে দেশে প্রথম করোনা রোগী শনাক্তের পর ৪ মাস পার হলেও পরিস্থিতির ততটা উন্নতি হয়নি। এ পরিস্থিতিতে দেশ-বিদেশের প্রকৌশলী ও শ্রমিকদের প্রকল্প এলাকায় আবাসনের ব্যবস্থাও করা হয়েছে। তারপরও কাজের গতি স্বাভাবিক হয়নি।

পদ্মা সেতুর প্রকল্প পরিচালক শফিকুল ইসলাম জানান, নভেল করোনাভাইরাস আমাদের সিডিউলকে হেস্তনেস্ত করে দিচ্ছে। এর জন্য আমাদের রিসিডিউল করতে হবে। করোনা থেকে কবে মুক্তি পাবো এর কোন দিক নির্দেশনা পাচ্ছি না। রিসিডিউল তো লাগবেই এর কোন সন্দেহ নেই তবে কতদিন লাগবে এখনো সঠিক করে বলা মুশকিল। তাই চেষ্টা করবো ২১ সাল যাতে পার না হয় সেভাবেই প্রচেষ্টা চালাচ্ছি।

৪১টি স্প্যান বসানোর কথা ছিল জুনের মধ্যে কিন্তু এখনো ১০টি বসানো বাকি। তাই প্রকৌশলীরা জানান, ভরা বর্ষায় পদ্মার মাওয়া প্রান্তে এখন তীব্র স্রোত। যার গতিবেগ প্রতি সেকেণ্ডে ২.২৫ মিটার। কিন্ত স্প্যানবাহী ক্রেনের সক্ষমতা ১.৫২ মিটার। তাই বর্ষা শেষ না হওয়া পর্যন্ত নদীতে স্প্যান বসানো কঠিন।

শফিকুল ইসলাম আরো জানান, ২০২১এর জুনের মধ্যে পদ্মাসেতুর কাজ শেষ করা টার্গেট ছিল আর তারই অংশ হিসেবে আমাদের পরিকল্পনা ছিল এ বছরের জুনের মধ্যে সব স্প্যান বসাবো। এখনো ১০টি স্প্যান বসানো বাকি। পরবর্তিতে আমরা রিসিডিউল করেছি যাতে ডিসম্বরের মধ্যে সব স্প্যান বসানো যায়।

জুন পর্যন্ত পদ্মাসেতু প্রকল্পের সার্বিক অগ্রগতি ৮০.৫ শতাংশ। যার মূল সেতু ৮৯ ভাগ আর নদী শাসন হয়েছে ৭৩ ভাগ।

Surfe.be - Banner advertising service

https://www.facebook.com/gnewsbd24

Leave a Reply

More News Of This Category
© All rights reserved © 2011 Live Media
কারিগরি সহযোগিতায়: মোঃ শাহরিয়ার হোসাইন
freelancerzone