শুক্রবার, ১২ অগাস্ট ২০২২, ০২:০০ পূর্বাহ্ন

Surfe.be - Banner advertising service

কুড়িগ্রামে ধরলার পানি কিছুটা কমলেও বাড়ছে ব্রম্মপুত্রের পানি

মোঃ সহিদুল আলম বাবুল, কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি :
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ১৬ জুলাই, ২০২০

কুড়িগ্রামে ধরলার পানি কিছুটা কমলেও হু হু করে বাড়ছে ব্রম্মপুত্র নদের পানি। আজ বৃহস্পতিবার সকালে ধরলার পানি বিপদসীমার ৭৭ সেসিন্টমিটার ও ব্রহ্মপুত্রের পানি চিলমারী পয়েন্টে ১০১ এবং নুনখাওয়া পয়েন্টে ৯৪ সেন্টিমিটার বিপদসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছিলো। জেলার প্রায় ৫৫ ইউনিয়নের ৫২৫টি গ্রাম প্লাবিত হয়ে বর্তমানে ৩ লক্ষাধিক মানুষ পানিবন্দী হয়ে পড়েছে।

অন্যদিকে, বুধবার সন্ধ্যারাতে বন্যার পানির তোড়ে রৌমারী শহররক্ষা বাঁধের ২০ মিটার অংশ ভেঙে গেছে। সেই সাথে নতুন করে ১০টি গ্রামসহ রৌমারী উপজেলা পরিষদ ও রৌমারী বাজার এলাকা প্লাবিত হয়েছে। ভোগান্তিতে পড়েছে প্রায় ২০ হাজার মানুষ। পানিতে নিমজ্জিত হয়েছে রাজীবপুর উপজেলা পরিষদসহ পুরো উপজেলা।

গতকাল চিলমারীর মাছা বন্যার পানিতে মাছ ধরতে গিয়ে রাকু মিয়া নামে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে গত দু’দফা বন্যায় ১০ জন শিশু, একজন যুবক ও ২ জন বৃদ্ধসহ ১৩ জন পানিতে ডুবে মারা গেছে।বর্তমানে জেলার ৫টি গুরুত্বপূর্ণ সড়কের উপর দিয়ে বন্যার পানি প্রবাহিত হচ্ছে। এরমধ্যে কুড়িগ্রাম-নাগেশ্বরী সড়ক, রৌমারী-তুরা সড়ক, সোনাহাট-মাদারগঞ্জ সড়ক, ভুরুঙ্গামারী-সোনাহাট সড়ক ও ভিতরবন্দ-মন্নেয়ারপাড় সড়কের কিছু অংশ পানিতে নিমজ্জিত হয়েছে।

এছাড়া গ্রামের রাস্তাঘাট ভেঙে যাওয়ায় যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়েছে বেশীরভাগ এলাকা। স্রোতের টানে অনেকের ঘরবাড়ি ও মালামাল ভেসে গেছে। উঁচু রাস্তা, বাঁধ ও আশ্রয়কেন্দ্রে ৫০ হাজার মানুষ আশ্রয় নিয়েছে। অন্যদিকে, পানি বৃদ্ধি অব্যাহত থাকলে উলিপুর সদর এলাকা পানিতে নিমজ্জিত হওয়ার আশু সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে !

সিভিল সার্জন ডাঃ হাবিবুর রহমান জানান,বন্যা পরিস্থিতি মোকাবেলায় জেলায় ৮৫টি মেডিকেল টিম কাজ করছে।

জেলা প্রশাসক রেজাউল করিম জানান, বন্যাদুর্গতদের উদ্ধারে নৌকা প্রস্তুত রাখা হয়েছে। এছাড়া বানভাসিদের মাঝে খাদ্য সহায়তা প্রদান অব্যাহত রয়েছে।

কুড়িগ্রাম ত্রাণ ও পূণর্বাসন বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, ইতোমধ্যে জেলা পর্যায়ে ৪শ’ মেট্রিক টন চাল বরাদ্দ এসেছে। এরমধ্যে ১৭০ মেট্রিক টন চাল উপজেলাগুলোতে উপ-বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। এছাড়াও বরাদ্দ ১৩ লক্ষ টাকার মধ্যে ৪ লাখ টাকা, ৪ হাজার শুকনা প্যাকেটের মধ্যে ২ হাজার প্যাকেট, ২ লক্ষ টাকার শিশু খাদ্য ও ২ লক্ষ টাকার গো-খাদ্য উপজেলা গুলোতে বরাদ্দ দেয়া হয়েছে।

Surfe.be - Banner advertising service

https://www.facebook.com/gnewsbd24

Leave a Reply

More News Of This Category
© All rights reserved © 2011 Live Media
কারিগরি সহযোগিতায়: মোঃ শাহরিয়ার হোসাইন
freelancerzone