মঙ্গলবার, ১৬ অগাস্ট ২০২২, ০৬:৫৬ পূর্বাহ্ন

Surfe.be - Banner advertising service

তপন কর্মকারকে হত্যা সহ সকল নির্যাতনের বিচারের দাবীতে মানববন্দন

জি-নিউজবিডি২৪ ডেস্ক :
  • Update Time : শনিবার, ১৮ জুলাই, ২০২০

ঢাকার দোহার উপজেলার জয়পাড়া বাজারের পাশে স্বর্ণ ব্যবসায়ী তপন কর্মকারকে নৃশংসভাবে কুপিয়ে হত্যা ও তার বড় ভাইয়ের স্ত্রী মনি কর্মকারকে চেতনা নাশক ইনজেকশন পুশ করে শ্লীলতাহানী করে ডোবায় ফেলে রাখা সহ সারা দেশের সংখ্যালঘু হিন্দু জনগোষ্ঠীর উপর নির্যাতন নিপিড়ন, জমি দখল, হত্যা, হত্যা প্রচেষ্টা, দেশত্যাগে বাধ্যকরন সহ নানা ঘটনার আসামীদের গ্রেফতার, দ্রুত বিচার ট্রাইবুনালে বিচারের দাবীতে অদ্য ১৮ জুলাই ২০২০, শনিবার সকাল ১১ টায় বাংলাদেশ জাতীয় হিন্দু মহাজোট জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এক মানব বন্ধন কর্মসূচী পালন করে।

হিন্দু মহাজোটের সভাপতি অ্যাডঃ বিধান বিহারী গোস্বামীর সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন নির্বাহী সভাপতি অ্যডঃ দীনবন্ধু রায়, মহাসচিব অ্যাডঃ গোবিন্দ চন্দ্র প্রামাণিক, বরিষ্ঠ সহ সভাপতি প্রদীপ কুমার পাল, প্রধান সমন্বয়কারী বিজয় কৃষ্ণ ভট্টাচার্য, অ্যাডঃ চিত্তরঞ্জন কর্মকার, অ্যাডঃ সুজয় ভট্টাচার্য, যুগ্ম মহাসচিব নকুল মন্ডল, অ্যাডঃ লাকি বাছার, উৎপল সাহা, নিত্যরঞ্জন দাস, মিলন সাহা, ঢাকা মহানগর দক্ষিনের সভাপতি ডিকে সমির, ঢাকা জেলা সাধারন সম্পাদক গোপাল পাল, হিন্দু স্বেচ্ছাসেবক মহাজোটের সভাপতি অখিল বিশ্বাস সাধারণ সম্পাদক শ্যামল কুমার ঘোষ, কদমতলী থানা সভাপতি লিটন চন্দ্র দাস,সাধারণ সম্পাদক হেমন্ত কুমার ভৌমিক, সাংগঠণিক সম্পাদক শিপন কুমার সাহা, শ্যামপুর থানা সাধারণ সম্পাদক বিমল হরিজন, অর্থ সম্পাদক তাপস মজুমদার,হিন্দু যুব মহাজোটের সহ সভাপতি গৌতম সরকার অপু, হিন্দু ছাত্র মহাজোটের সভাপতি সাজেন কৃষ্ণ বল, কল্যাণ মন্ডল, শ্যামল চন্দ্র রায়, বাধন ভৌমিক প্রমূখ। নিহতের মা ও দুই বোন উপস্থিত থেকে সকল ঘটনা বর্ণনা করেন।

বক্তাগণ বলেন করোনা ভাইরাসের মহা দুর্যোগে দেশবাসী সহ বিশ্ববাসী দিশেহারা, মানুষ আতঙ্কগ্রস্থ। কে বাঁচে কে মরে কেউ বলতে পারছে না। দেশে দুই লাক্ষধিক করোনা রোগী, প্রতিদিনই চলছে মৃত্যুর মিছিল। এই আতঙ্কের মধ্যেও মহা আতঙ্ক চলছে হিন্দু সম্প্রদায়ের মধ্যে। গত বছরের ১২ মাসে যতগুলি হিন্দু নির্যাতনের ঘটনা ঘটেছে, এ বছরের প্রথম ৬ মাসেই তার চেয়ে অনেক বেশী নির্যাতনের ঘটনা ঘটেছে।

গত সপ্তাহে মাদারীপুরে ২০০ বছরের পুরোনো মন্দিরের জমির প্রকাশ্যে বাউন্ডারি ভেঙ্গে দখল হয়েছে। এই দখলের ভিডিও প্রচারের অপরাধে তাদেরকে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করে তাদেরকে উল্টো হয়রানী করা হচ্ছে। গত ১৫ই জুলাই ঢাকার দোহার উপজেলার জয়পাড়া বাজার এলাকায় তপন কর্মকার (৪৫) নামে এক স্বর্ণকারকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। নিহত তপন কর্মকারের বড়ভাই কৃষ্ণ কর্মকারের স্ত্রী মনি কর্মকারকে চেতনানাশক ইনজেকশন পুশ করে বাড়ী থেকে কোয়ার্টার কিলোমিটার দূরে হাত পা বেঁধে শ্লীলতাহানী করে ডোবায় ফেলে রেখে যায়।

নিহত তপন কর্মকারের প্রায় দেড় কোটি টাকা মূল্যের দুটি দোকান ঘর দখল করে নিয়েছে রফিক তালুকদার। নিহত তপন কর্মকার দোকান দুটি উদ্ধারের চেষ্টা করছিলেন। উক্ত রফিক তালুকদার সম্পূর্ণ মার্কেট দখল করার পাঁয়তারা করছিলেন। রফিক তালুকদার অত্যন্ত দুধর্ষ ও হিংস্র প্রকৃতির। সেকারনে নিহতের পরিবার খুনিদের চিনলেও বলতে পারছে না। এমনকি মনি কর্মকার গণধর্ষিতা হলেও পরিবারের সকলকে হত্যা করার হুমকীতে গণধর্ষনের বিষয়টি চেপে যেতে বাধ্য হচ্ছে।

বক্তাগণ বলেন ঘটনার সাথে রফিক তালুদার ও তার সন্ত্রাসী বাহিনী জড়িত থাকার বিষয়টি এলাকার সকলেই জানে। তারপরও এতবড় একটি ন্যাক্কারজনক ঘটনা ঘটার ৩ দিন অতিবাহিত হলেও কোন আসামী গ্রেফতার হয় নাই। ফলে এলাকার সংখ্যালঘু হিন্দু সম্প্রদায় চরম আতঙ্কের মধ্যে দিন যাপন করছে। অনেকে দেশত্যাগ করার চিন্তা ভাবনা শুরু করেছে।

এমতাবস্থায় হিন্দু মহাজোট আগামী ৭ দিনের মধ্যে সকল আসামী গ্রেফতার ও দ্রুত বিচার ট্রাইবুনালে বিচার করে আসামীদের প্রকাশ্যে ফাঁসি দেওয়ার জোড় দাবী জানাচ্ছে। অন্যথায় হিন্দু মহাজোট সারাদেশে মানব বন্ধন বিক্ষোভ সমাবেশ সহ ব্যপক গণ আন্দোলন গড়ে তুলবে।

Surfe.be - Banner advertising service

https://www.facebook.com/gnewsbd24

Leave a Reply

More News Of This Category
© All rights reserved © 2011 Live Media
কারিগরি সহযোগিতায়: মোঃ শাহরিয়ার হোসাইন
freelancerzone