বুধবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২২, ১০:২৯ পূর্বাহ্ন

তুর্কি ধারাবাহিক ‘বাহার‘

বিনোদন ডেস্ক :
  • Update Time : শুক্রবার, ৭ আগস্ট, ২০২০

এক নারীর জীবন-সংগ্রামকে উপজীব্য করে, তুরস্কের সমাজিক প্রেক্ষাপটে নির্মিত হয়েছে ধারাবাহিক নাটক “বাহার”। ‘দোরুক’ আর ‘নিসান’ নামের ছোট্ট দুই সন্তানকে ঘিরেই মা ‘বাহারের’ জীবন। কয়েক বছর আগে এক দুর্ঘটনায় বাহার তার স্বামী ‘সার্পকে’ হারায় কিন্তু স্বামীর অনুপস্থিতি সে তার সন্তানদের বুঝতে দেয় না। বাহার সবসময় নিজের ও তার স্বামীর পরিচয়ের গল্প, প্রেম-বিয়ের কথা এমনভাবে তার সন্তানদের শোনায়, যেন ওরা বাবাকে কাছে না পেলেও তার সুন্দর স্মৃতিগুলো নিয়ে বেড়ে উঠতে পারে। বাহার তার সন্তানদেরকে সর্বোচ্চ ভালোবাসা আর সুন্দর শৈশব উপহার দিতে চায়, কারণ খুব ছোট বেলায় বাহারের মা তাকে ছেড়ে গিয়েছিলো।

জীবিকার তাগিদে বাহার একটি তৈরি পোশাক কারখানায় শ্রমিক হিসাবে কাজ শুরু করে। সন্তানদের নিয়ে ছোট্ট একটা বাসায় তার টানাপোড়েনের সংসার। প্রতিবেশী ‘জেইদা’ নামের এই স্বাধীনচেতা সংগীতশিল্পী যাকে উগ্রভাবে জীবন যাপন করতে দেখা যায়। এমন এক পরিবেশে সমাজের নেতিবাচক দিকগুলো থেকে গা বাঁচিয়ে সন্তানদের সুন্দরভাবে বড় করে তোলাই হয়ে দাঁড়ায় বাহারের অন্যতম চ্যালেঞ্জ। ধীরে ধীরে সন্তানদের সখ্যতা তৈরি হয় বাড়িওয়ালার ছেলে আরিফের সাথে। ব্যর্থ প্রেমের বেদনায় কাতর এই যুবক একসময় বাহার ও তার সন্তানদের ভালো বন্ধু হয়ে ওঠে। শিক্ষিত,সুদর্শন, গম্ভীর আর দায়িত্ববান এই ছেলেটির মাঝে বাবাসুলভ ভালোবাসা খুঁজে পায় নিসান ও দোরুক। এদিকে কারখানার এক সহকর্মী ‘ইয়েলিয’এর সঙ্গেও বাহারের বন্ধুত্ব গড়ে ওঠে। বাহারের সুখে-দুঃখে আরিফ আর ইয়েলিযকে সার্বক্ষণিক সঙ্গী হিসাবে দেখা যায়।

এরই মাঝে হঠাৎ একদিন বাহার জানতে পারে সে দুরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত। কিন্তু ঝামেলা শুরু হয় সন্তানের অধিকার নিয়ে বাহার তার মায়ের বাড়িতে থাকতে শুরু করলে। সৎ বোন শিরিনের হিংসুটে আচরণ এবং মায়ের অবহেলায় সে চেষ্টা শেষপর্যন্ত বৃথা যায়। সন্তানদের নিয়ে আগের ঠিকানায় ফিরে যায় বাহার। কিন্তু এবার তার সঙ্গী হয় সৎ বাবা ‘এনভার’। ঘটনা অন্যদিকে মোড় নেয় যখন দেখা যায় সার্প বেঁচে আছে। ‘আল্প’ পরিচয়ে আবার ফিরে আসে দৃশ্যপটে। দোরুক আর নিসান কি কখনোই ফিরে পাবে না তাদের বাবাকে? সার্পের কাছে কি অজানাই থেকে যাবে তার স্ত্রী সন্তানদের বেঁচে থাকার কথা? দর্শকের মনে এমন সব প্রশ্ন রেখেই শেষ হয় এই নাটকের কাহিনী।

চরিত্র ও কন্ঠাভিনেতার তালিকা: বাহার চেশমেলি (মেরিনা মিতু), সার্প চেশমেলি (শফিকুল ইসলাম), নিসান চেশমিল (নাদিয়া ইকবাল ইশরা), দোরুক চেশমিল (আনিরা মিশেল রিভা), আরিফ (আলবিনো জর্জ পাইক), এনভার সারিকাদি (অশোক কুমার বসাক), হাতিজে সারিকাদি (সাকি ফারজানা), শিরিন সারিকাদি (নিগার সুলতানা মিমি), জেইদা (ইন্দ্রানী ঘটক), জালে দেমির (নাহিদা আখতার ইমু), মুসা দেমির (আশিক কুমার বসাক), ইয়েলিয (পর্ণা মিটিল্ডা কস্তা)। প্রচারিত হচ্ছে প্রতিদিন সন্ধ্যা ৬টায় ও রাত ৯টায়

Surfe.be - Banner advertising service

https://www.facebook.com/gnewsbd24

Leave a Reply

More News Of This Category
<script async src="https://pagead2.googlesyndication.com/pagead/js/adsbygoogle.js?client=ca-pub-3423136311593782"
     crossorigin="anonymous"></script>
© All rights reserved © 2011 Live Media
কারিগরি সহযোগিতায়: মোঃ শাহরিয়ার হোসাইন
freelancerzone