বুধবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২২, ১০:৪৫ পূর্বাহ্ন

বিচারহীনতার সংস্কৃতির অবসান ঘটাতে হবে : মোস্তফা

জি-নিউজবিডি২৪ ডেস্ক :
  • Update Time : মঙ্গলবার, ১১ আগস্ট, ২০২০

বীর মুক্তিযোদ্ধা, আওয়ামী লীগ নেতা শহীদ এস এম এ রর হত্যার বিচার এখনও পরিপূর্ণ না হওয়া দেশের সার্বিক বিচারহীর সংস্কৃতিকে প্রতিফলন বলে মন্তব্য করে বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি-বাংলাদেশ ন্যাপ মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া বলেন, জাতীয় ঐকমত্যের ভিত্তিতেই বিচারহীনতার সংস্কৃতির অবসান ঘটাতে হবে।

মঙ্গলবার (১১ আগস্ট) নয়াপল্টনের যাদু মিয়া মিলনায়তনে বীর মুক্তিযোদ্ধা, আওয়ামী লীগ নেতা শহীদ এস এম এ রবের ২০তম শাহাদৎ বার্ষিকী উপলক্ষে শহীদ এস এম রব স্মৃতি সংসদ ঢাকার উদ্যোগে আয়োজিত স্মরণ সভা ও দোয়া অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তার বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, দেশে যে পরিস্থিতির চলছে এটাকে বিচারহীনতার সংস্কৃতি বলা হয়। আলোচিত হত্যাকাণ্ডগুলোর সঠিক ও দ্রুত বিচার না হওয়ায় অপরাধিরা সাহসী হয়ে উঠে। ফলে সমাজে ও রাষ্ট্রে অপরাধিরা শক্তিশালী ভূমিকা পালন করে। এই অপসংস্কৃতির অবসান ঘটাতে পারলে সমাজে ও রাষ্ট্রে অপরাধ হ্রাস পাবে।

তিনি আরো বলেন, দেশটা একটা আমলাতান্ত্রিক ব্যবস্থার মধ্যে রয়েছে। এই ব্যবস্থার পরিবর্তন প্রয়োজন। এই ব্যবস্থার পরিবর্তন না হলে নিরাপত্তাও পাওয়া যাবে না, বিচারও পাওয়া যাবে না। আমাদের দেশে সাংস্কৃতিক নবজাগরণ প্রয়োজন। আমারা রাজনৈতিক স্বাধীনতা অর্জন করলেও সাংস্কৃতিক যে পরিবর্তনের দরকার ছিল তা আমাদের দেশে এখনও প্রতিষ্ঠিত হয় নাই।

তিনি বলেন, আমাদের মহান মুক্তিযুদ্ধের মূল লক্ষ্যগুলোর একটা ছিল এমন সমাজ নির্মাণ করা যেখানে মানুষের অধিকার ও সুযোগের সমতা থাকবে। সেটা এণও প্রতিষ্ঠিত হয় নাই, আমরা অর্জন করতে পারি নাই। শাহাদাতের ২০ বছরেও এস এম এ রব হত্যার পরিপূর্ণ বিচার না হওয়া দু:খজনক।

স্মৃতি সংসদের ঢাকার সমন্বয়কারী ও এনডিপি মহাসচিব মো. মঞ্জুর হোসেন ঈসা’র সভাপতিত্বে আলোচনায় অংশগ্রহন করেন বাংলাদেশ জাতীয় গণতান্ত্রিক লীগ সভাপতি এম এ জলিল, বাংলাদেশ লেবার পার্টি চেয়ারম্যান হামদুল্লাহ আল মেহেদী, বাংলাদেশ ন্যাপ ভাইস চেয়ারম্যান স্বপন কুমার সাহা, বিশিস্ট রাজনীতিক মো. রফিকুল্লাহ, নারী নেত্রী এলিজা রহমান প্রমুখ।

সভাপতির বক্তব্যে মো. মঞ্জুর হোসেন ঈসা বলেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা শহীদ এস এম এ রব ২০০০ সালের এইদিনে তিনি পবিত্র জুম্মার নামাজ আদায় করতে সোনাডাঙ্গা আবাসিক এলাকায় মসজিদে যাওয়ার পথে সন্ত্রাসীদের গুলিতে শাহাদাৎবরণ করেন। হত্যার ২০ বছর এলেও আজও প্রকৃত খুনীদের গ্রেফতার করা হয়নি। খুলনার সাধারন মানুষ ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিসহ সকলেই এই হত্যাকান্ডের বিচার দাবি করেছেন এবং হত্যাকারী মূল হোতাদের চিহ্নিত করে তাদেরকে গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেছেন।

খুলনায় শহীদ এস এম এ রবের পুত্র আরিফুল রহমান মিঠু’র নেতৃত্বে মরহুমের কবরে শ্রদ্ধা নিবেদন ও ফাতেহা পাঠ করা করা হয়। এছাড়ার খুলনার খালিশপুর, দৌলতপুর ও খানজাহান আলী থানার বিভিন্ন মসজিদে মরহুমের রুহের মাগফেরাত কামনা করে বিশেষ দোয়া অনুষ্ঠিত হয়।

Surfe.be - Banner advertising service

https://www.facebook.com/gnewsbd24

Leave a Reply

More News Of This Category
<script async src="https://pagead2.googlesyndication.com/pagead/js/adsbygoogle.js?client=ca-pub-3423136311593782"
     crossorigin="anonymous"></script>
© All rights reserved © 2011 Live Media
কারিগরি সহযোগিতায়: মোঃ শাহরিয়ার হোসাইন
freelancerzone