মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৭:১৪ পূর্বাহ্ন

মানসম্মত স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিতকরণে যুবদের সম্পৃক্ততা জরুরী

জি-নিউজবিডি২৪ ডেস্ক :
  • Update Time : মঙ্গলবার, ১১ আগস্ট, ২০২০

অধিকারভিত্তিক ও মানসম্মত স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করতে যুবদের সম্পৃক্ত করার বিকল্প নেই। করোনা মহামারীর মধ্যেও প্রজনন স্বাস্থ্য সেবার চাহিদা থেমে নেই। হিজরা ও তৃতীয় লিঙ্গের যুবদের পাশাপাশি সবার জন্য যৌন ও প্রজনন স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করার এখনই সময়। বরিশালে আন্তর্জাতিক যুব দিবস উদযাপন উপলক্ষ্যে এক অনলাইন সংলাপে বক্তারা এসব কথা বলেন।

সোমবার (১১ আগস্ট) দুপুরে ‘‘মানসম্মত স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিতকরণ ও আমার অধিকার” এ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে সংলাপটির আয়োজন করে বরিশাল বিভাগের যুবদের প্লাটফর্ম তারুণ্যের কন্ঠস্বর। উন্নয়ন সংস্থা নারীপক্ষের অধিকার এখানে, এখনই প্রকল্পের সহযোগিতায় অনুষ্ঠিত সংলাপে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বরিশাল জেলা প্রশাসক এস এম অজিয়র রহমান। অনুষ্ঠানে বরিশাল বিভাগের অর্ধশত তরুণ অংশগ্রহণ করে।

প্রধান অতিথি বলেন, যৌন ও প্রজনন স্বাস্থ্যসেবার মানোন্নয়নে সরকারের নানা উদ্যোগ চলমান রয়েছে। এমনকি সরকার হিজরা জনগোষ্ঠীকে তৃতীয় লিঙ্গ হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছে। বরিশালের তরুণদের জন্য স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিতে আমরা দৃঢ় অঙ্গীকারাবদ্ধ। বাল্যবিবাহ প্রতিরোধ বিষয়ে, শিক্ষার বিস্তার যত বাড়বে তত বাল্যবিবাহ কমে যাবে। অসচেতনতা দূর করতে স্থানীয় সংগঠনগুলো নানা কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। যুব সংগঠনগুলোর প্রশংসা করে তিনি বলেন, বরিশালে তরুণদের স্বেচ্ছাসেবা ও নেতৃত্বের মাধ্যমে এক ধরনের সামাজিক আন্দোলন গড়ে উঠেছে।

নারীপক্ষের প্রকল্প সমন্বয়কারী সামিয়া আফরিনের সঞ্চালণায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন পটুয়াখালীর অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) ও স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক মো: হেমায়েত উদ্দিন। আলোচনায় অংশ নিয়ে বক্তব্য রাখেন বরিশাল জেলা পরিবার পরিকল্পনা কার্যালয়ের উপপরিচালক ডা. মো: জসিম উদ্দিন, ভোলা জেলা পরিবার পরিকল্পনা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মাহমুদুল আযাদ, ঝালকাঠি জেলা পরিবার পরিকল্পনা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মোঃ কামাল হোসেন ও পটুয়াখালী সদরের উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা পিয়ারা বেগম প্রমুখ।

অনুষ্ঠানের মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন তারুণ্যের কন্ঠস্বর প্লাটফর্মের বিভাগীয় সমন্বয়কারী শাকিলা ইসলাম। যুবদের পক্ষ থেকে বক্তব্য রাখেন প্লাটফর্মের বরিশাল জেলা সমন্বয়কারী জুবায়ের ইসলাম, ভোলা জেলা সমন্বয়কারী আদিল হোসেন তপু, পটুয়াখালী জেলা সমন্বয়কারী জহিরুল ইসলাম এবং ঝালকাঠি জেলা সমন্বয়কারী সোহানুর রহমান প্রমুখ।

আলোচনায় বক্তারা বলেন, যৌন ও প্রজনন সবাস্থ্যসেবার মানোন্নয়নে সরকারের অনেকগুলো প্রশংসনীয় উদ্যোগ রয়েছে। তবে অনেকক্ষেত্রে শুধুমাত্র আইন প্রণয়ন ও নীতিমালা তৈরীই যথেষ্ট নয়। সরকারী প্রতিষ্ঠানের মধ্যে সমন্বয় ও সেবাদানকারীদের জবাবদিহিতা তৈরীর মাধ্যমেই আইন ও নীতিমালার সঠিক বাস্তবায়ন করা সম্ভব।

Surfe.be - Banner advertising service

https://www.facebook.com/gnewsbd24

Leave a Reply

More News Of This Category
<script async src="https://pagead2.googlesyndication.com/pagead/js/adsbygoogle.js?client=ca-pub-3423136311593782"
     crossorigin="anonymous"></script>
© All rights reserved © 2011 Live Media
কারিগরি সহযোগিতায়: মোঃ শাহরিয়ার হোসাইন
freelancerzone