মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৮:৫৮ পূর্বাহ্ন

শরীয়তপুরে বিএনপি সমর্থকের আ.লীগ নেতা পরিচয়ে কর্মযজ্ঞে তৃণমূলে ক্ষোভ !

শরীয়তপুর প্রতিনিধি :
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ১৩ আগস্ট, ২০২০

শরীয়তপুর জেলা জাসাসের সাবেক সভাপতি, পৌর কাউন্সিলর সাইফুর রহমান রাজ্জাক মোল্যা ও তার বড়ভাই সাবেক বিএনপি নেতা মরহুম কাশেম মোল্যা’র ছেলে বিএনপি সমর্থক, ডেকোরেটর ব্যবসায়ী সোহাগ মোল্যা নিজেকে শরীয়তপুর সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক পরিচয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, সজীব ওয়াজেদ জয়, শরীয়তপুর-১ আসনের এমপি ও আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় সদস্য ইকবাল হোসেন অপু এবং পৌর মেয়র রফিকুল ইসলাম কোতোয়ালের ছবি সম্বলিত ব্যানার তৈরি করে তোরণ নির্মাণ করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। শরীয়তপুর উত্তর বাজার আনসার ব্যারাক সংলগ্ন এলাকায় এ তোরণ দেখা গেছে।

এছাড়াও শহরের অনেক স্থানে তাদের এ ধরনের প্রচারণা দেখা গেছে। এনিয়ে স্থানীয় তৃণমূল আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীরা ক্ষোভ প্রকাশ করেছে। অবিলম্বে তারা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং ইকবাল হোসেন অপু এমপি’র হস্তক্ষেপ কামনা করেছে।

জানা গেছে, শরীয়তপুর পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর সাইফুর রহমান রাজ্জাক মোল্যা দীর্ঘদিন জেলা জাসাসের সাবেক সভাপতি ছিলেন। তার বড় ভাই মরহুম কাশেম মোল্যা’র শরীয়তপুর সদর উপজেলা বিএনপি’র প্রভাবশালী নেতা ছিলেন। আর মরহুম কাশেম মোল্যার ছেলে সোহাগ মোল্যা বিএনপি’র সমর্থক ও মেয়ে সুমি জেলা মহিলা দলের সদস্য। ভাইয়ের ছেলে রাসেল মোল্যা শরীয়তপুর সদর উপজেলা ছাত্রদলের সদ্য সাবেক সভাপতি।

ওই মোল্যা পরিবারটি চিকন্দী ইউনিয়ন সহ শরীয়তপুর শহরে ঘোর বিএনপি পরিবার খ্যাত। তারা জেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক ও শরীয়তপুর-১ আসনের সাবেক এমপি সরদার একেএম নাসির উদ্দীন কালু’র কাছের লোক হিসেবে পরিচিত। তবে যখন যে দল ক্ষমতায় থাকে তারা সেই দলেরই লোক বনে যায়।

কিন্তু হঠাৎ করে সাইফুর রহমান রাজ্জাক মোল্যার ভাতিজা সোহাগ মোল্যা নিজেকে শরীয়তপুর সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক পরিচয়ে বঙ্গবন্ধু, প্রধানমন্ত্রী, সজীব ওয়াজেদ জয়, ইকবাল হোসেন অপু এমপি ও মেয়র রফিকুল ইসলাম কোতোয়ালের ছবি সম্বলিত ব্যানার তৈরি করে তোরণ নির্মাণ সহ নানান প্রচারণা করায় স্থানীয় আওয়ামীলীগের নেতাকর্মী সহ জনসাধারণ বিস্মিত হয়েছে ও ক্ষোভ প্রকাশ করেছে।

কারণ বিএনপি-জামাত জোট সরকার ক্ষমতায় থাকাকালিন সময়ে তাদের নির্যাতনে অনেক আওয়ামীলীগ নেতাকর্মীরা বাড়ি ঘরে থাকতে পারে নাই ও এমনকি সাধারণ মানুষও তাদের নির্যাতনের শিকার হয়েছে বলে অভিযোগ।

আরও জানা গেছে, শরীয়তপুর সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের ১টি সহ-সভাপতি, ১টি যুব ও ক্রীড়া সম্পাদক এবং ১টি সাংগঠনিক সম্পাদক পদ সহ কয়েকটি পদ খালি রয়েছে। তৃণমূল নেতাকর্মীদের দাবি ওই পদগুলো আওয়ামীলীগের ত্যাগী নেতাকর্মীদের দিয়ে পূরণ করা হোক। তবে এতে কোনোভাবেই যেন অনুপ্রবেশকারীরা ঠাঁই না পায়।

এ ব্যাপারে সোহাগ মোল্যা ও সাইফুর রহমান রাজ্জাক মোল্যার বক্তব্যের জন্য বারবার চেষ্টা করেও তাদেরকে পাওয়া যায়নি।

এ ব্যাপারে শরীয়তপুর সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি এ্যাড. জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, সোহাগ মোল্যা শরীয়তপুর সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের কোনো পদে নেই। অন্যদিকে, সোহাগ মোল্যার পদের বিষয়টি এড়িয়ে সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা বলেন, কেউ তার রাজনৈতিক আর্দশ পরিবর্তন করতে পারেন। সে অনুযায়ী পদেও আসতে পারেন, এটা দোষের নয়। এ বিষয়ে পরে কথা বলবো।

এদিকে, একটি সূত্রে জানা গেছে, গত ১১ আগস্ট সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের এক অনুষ্ঠানে গিয়ে দলীয় নেতাকর্মীদের তোপের মুখে স্থান ত্যাগ করে আওয়ামীলীগ নেতা পরিচয়দানকারী সোহাগ মোল্যা।

Surfe.be - Banner advertising service

https://www.facebook.com/gnewsbd24

Leave a Reply

More News Of This Category
<script async src="https://pagead2.googlesyndication.com/pagead/js/adsbygoogle.js?client=ca-pub-3423136311593782"
     crossorigin="anonymous"></script>
© All rights reserved © 2011 Live Media
কারিগরি সহযোগিতায়: মোঃ শাহরিয়ার হোসাইন
freelancerzone