বুধবার, ০৭ ডিসেম্বর ২০২২, ১০:৪০ পূর্বাহ্ন

গলাচিপায় সরকারি খালে বেড়া দিয়ে মাছ চাষ ॥ আমন চাষ ব্যাহত

রিয়াদ হোসাইন, গলাচিপা প্রতিনিধি (পটুয়াখালী) :
  • Update Time : শনিবার, ২২ আগস্ট, ২০২০

পটুয়াখালীর গলাচিপা উপজেলার ডাহরবুনিয়া খাল দখল করেঅবৈধভাবে মাছ চাষ করছে একটি প্রভাবশালী মহল।খালের ৪টি স্থানেজালের বেড়া দিয়ে মাছ চাষ করছে। ফলে স্বাভাবিক পানি প্রবাহে বাধা সৃষ্টি হচ্ছে। বর্ষ মৌসুমে আমন চাষ ব্যহত হচ্ছে। অপরদিকে রবি মৌসুমে সেচ দিতে না পারায় তরমুজসহ অন্যান্য রবি ফসলের চাষাবাদ ব্যাহত হওয়ার আশংকা করছে কৃষকরা। এলাকাবাসী স্থানীয় সংসদ সদস্য ও উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কাছে অভিযোগ করেছে।

এলাকাবাসী অভিযোগ করে,গলাচিপা উপজেলার আমখোলা ইউনিয়নের ভাংরা মৌজার ডাহরবুনিয়া খাল অবাধে পানি চলাচলের জন্য গত মে মাসে পানি উন্নয়ন বোর্ড খনন করে। খননের কিছুদিন পরইএলাকার প্রভাবশালী ব্যক্তি সেকান্দার আলী সিকদার, নাজমুল হাওলাদার,বারেক মৃধা ও নিজাম সিকদারসহ কয়েকজনে অবৈধভাবে দখল করে রেখেছে।খালের আড়াআড়ি বাশ ও ভাসান জাল ব্যবহার করে বেড়া দিয়ে মাছ চাষ করে।

পানি নিস্কাশনের জন্য ডাহরবুনিয়া খালের দুই মুখে গলাচিপা নদীর সাথে দুইটি স্ল্ইুস গেট প্রভাবশালী মাছ চাষীদের দখলে থাকায় কৃষকদের প্রয়োজনে পানি ওঠানামার কাজে লাগছে না। খালে জালের বেড়া দিয়ে আবদ্ধ করে রাখার ফলে বর্ষা মৌসুমে অবাধে পানি চলাচল করতে পাওে না। এতে প্রায় দুই হাজার একর জমি আমন ধান চাষাবাদ ব্যাহত হচ্ছে।

খালের পানি চলাচলের বাধা সৃষ্টি করে জলাবদ্ধতা ও চাষাবাদে বিঘœর ঘটনায় এলাকার শতাধিক কৃষকগত ৩০ জুলাই স্থানীয় সংসদ সদস্য বরাবর এর প্রতিকার চেয়ে প্রভাবশালী মহলের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ করেন। সংসদ সদস্য বিষয়টি নির্বাহী প্রকৌশলী, পানি উন্নয়ন বোর্ড পটুয়াখালীকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের নির্দেশ দেন।

এছাড়া এলাকাবাসী উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবরে প্রভাবশালীদের বিরুদ্ধে লিখিতভাবে অভিযোগ করেন। নির্বাহী অফিসার বিষয়টি উপজেলা কৃষি কর্মকর্তাকে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে প্রতিবেদন দেওয়ার নির্দেশ দেন। কৃষক বেলায়েত হোসেন, কাওসারসহ অনেকে অভিযোগ করেন , প্রভাবশালী ব্যক্তিরা প্রশাসনের বাধা মানছে না। তাদের গায়ের জোরে কাজ চালিয়ে যাচ্ছে।

এ বিষয় নিয়ে মুঠোফোনে সেকান্দার আলী জানান,“ আমি ব্যক্তিগতভাবে নয়। আমরা স্থানীয়ভাবে সমিতির মাধ্যমে মাছ চাষ করি। কৃষকের ক্ষতি হয় এমন কাজ আমি করব না।” উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা এ.এস.আর.এম সাইফুল্লাহ বলেন, “কয়েকদিন ধরে টানা বর্ষার কারনে ঘটনাস্থলে যেতে পারিনি।

অতি শীঘ্রই যাব। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে কৃষকদের কৃষি কাজে ব্যাঘাত ঘটলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।”পানি উন্নয়ন বোর্ডের নিবাহী প্রকৌশলী খান মোহম্মদ অলিউজ্জামান বলেন,সরকারি খাল দখল করে কেউ মাছ চাষ করতে পারে না। এ ব্যাপারে যথাযথ ব্যাবস্থা নেয়া হবে।

 

Surfe.be - Banner advertising service

https://www.facebook.com/gnewsbd24

Leave a Reply

More News Of This Category
<script async src="https://pagead2.googlesyndication.com/pagead/js/adsbygoogle.js?client=ca-pub-3423136311593782"
     crossorigin="anonymous"></script>
© All rights reserved © 2011 Live Media
কারিগরি সহযোগিতায়: মোঃ শাহরিয়ার হোসাইন
freelancerzone