বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর ২০২২, ১০:৪৪ অপরাহ্ন

তানোরে ২০ লাখ টাকার বিনিময়ে গোপনে নিয়োগ প্রক্রিয়ার ঘটনা ফাঁস

আব্দুস সবুর, তানোর প্রতিনিধি(রাজশাহী) ঃ
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, ২৭ আগস্ট, ২০২০

রাজশাহীর তানোর উপজেলার মুন্ডুমালা পৌর এলাকার পাঁচন্দর দাখিল মাদরাসার দুই পদে প্রায় ২০ লাখ টাকার বিনিময়ে অতি গোপনে নিয়োগ দেয়ার চেষ্ঠা চালাচ্ছেন প্রতিষ্ঠানের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ক্ষমতাসীন দলের নেতার বিরুদ্ধে উঠেছে অভিযোগের তীর ।এঘটনায় কমিটির সভাপতি বুড়ান উদ্দিনের বিরুদ্ধে ফুঁসে উঠেছেন স্থানিয়রা।

জানা গেছে ,করোনা কালিন সময় থেকে শুরু করে এখন পর্যন্ত সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ আছে। অনেক জাতীয় দৈনিক পত্রিকার ছাপা কোন রকম অল্প পরিসরে ঢাকার মধ্যে সিমাবন্ধ ছিল। জেলা শহরের পত্রিকা আসাও বন্ধ ছিল কয়েক মাস।

এ সুযোগে পাঁচন্দর দাখিল মাদরাসার সভাপতি বুড়ান উদ্দিন ও সুপার আবুল কালাম আজাদ গত জুন মাসে একবার দুই পদে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে। পরে পুনরাই ১৩ জুলাই দৈনিক ইনকিলাব পত্রিকায় একজন আয়া ও একজন নিরাপত্তা প্রহরী বিজ্ঞপ্তি দিয়ে দুই পদে সভাপতির পছন্দের প্রার্থীকে দিয়ে আবেদন করিয়েছেন বলেও নিশ্চিত হওয়া গেছে। সঙ্গে পকসির জন্য দুই পদে আরো ৮ জনকে আবেদন করিয়ে নিয়েছেন।

এদিকে সভাপতি ১০ লাখ থেকে ১২ লাখ টাকা করে নিয়ে পছন্দের দুই প্রার্থীকে নিয়োগ দেয়ার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন। এমন সব অভিযোগ গ্রামের একাধিক চাকুরী প্রত্যাশীদের ।

এমন অভিযোগ শুধু গ্রামের চাকুরী প্রত্যাশিদের নয়, খোদ প্রতিষ্ঠানটির শিক্ষক প্রতিনিধি তিনজন সদস্য ও অভিভাবক সদস্যদের । কারন তারাও জানেনা এ দুই পদে নিয়োগের ব্যাপারে। তাদের মধ্যেও ব্যাপক ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

প্রতিষ্ঠানটির শিক্ষক প্রতিনিধি হিসাবে আছেন সহকারী শিক্ষক কামাল উদ্দিন তিনি জানান, নিয়োগের বিষয়ে কমিটির অন্য কোন সদস্য জানেন না। মিটিং ছাড়াই রেজুলেশন লিখে অতি গোপনে সভাপতি ও সুপার পছন্দের প্রার্থীকে নিয়োগ দেয়ার জন্য চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।

এটা মোটেও কাম্য নয়। গোপনে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করার কারণ গ্রামের অনেক ব্যাক্তি স্থানীয় প্রতিষ্ঠান হওয়ার পরও আবেদন করতে পারেনি। যার কারণে গ্রামের অনেক মানুষ ক্ষোভ প্রকাশ করছেন।

প্রতিষ্ঠানটির কমিটির অন্যতম অভিভাবক সদস্য মামুন জানান,আমরা শুধু নামে কমিটিতে আছি। প্রতিষ্ঠানের সভাপতি বুড়ান স্থানীয় এমপির কাছের মানুষ হিসাবে পরিচয় দিয়ে থাকেন যা ইচ্ছে বলে মনে হয় সেটাই করে থাকেন। ক্ষমতার দাপট দেখিয়ে সভাপতি শুধু প্রতিষ্ঠানের নিয়োগ না । মাদরাসাটির নামে প্রায় ১৭ বিঘা ফসলি জমির আয় ব্যয়ের কোন হিশেব পর্যন্ত দেয়না। এসব বিষয়ে বললেই নানা ধরনের হুমকি দিয়ে থাকেন।

তিনি আরো জানান, মিটিং ছাড়াই রেজুলেশন লিখে কমিটির অন্য সদস্যদের ভয় ভীতি দিখিয়ে স্বাক্ষর করে নেন। আর দুই পদে নিয়োগের ব্যাপারে তারা কেউ জানেন না। তারা গ্রামের অন্য মানুষদের কাছে শুনেছেন সভাপতির পছন্দের দুই প্রার্থীর কাছে ১০ থেকে ১২ লাখ টাকা নিয়ে নিয়োগ দেয়ার চেষ্ঠা চলছে ।

প্রতিষ্ঠানটির অফিস সহকারী হারুর অর রশিদ বলেন,মাদরাসার সকল রেজুলেশন আমার হাত দিয়ে লিখা হয়ে থাকে। কিন্ত নিয়োগ দেয়ার রেজুলেশন সভাপতি তার কাছে না লিখে নিয়ে অন্য ভাবে গোপন করে লিখে নিয়েছেন। যা প্রতিষ্ঠানের কেউ জানেনা। এছাড়াও কমিটির অনেক অভিভাবক সদ;স্য লেখা পড়া কম জানেন। তাই তাদের কাছে গিয়ে মিথ্যা আসলটা না বলে অন্য রকম কথা বলে স্বাক্ষর করে নেন। তবে নিয়োগের রেজুলেশনটি এখনও কম করে হলেও পাঁচজন সদস্য স্বাক্ষর করেনি।

পাঁচন্দর দাখিল মাদরাসার সুপার আবুল কালাম আজাদ বলেন,আমি প্রতিষ্ঠানের প্রধান হলেও আমার কোন ক্ষমতা নেই। আমি শুধু হুকুমের গোলাম। সভাপতির নির্দেশ মত নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি দেয়া হয়েছে। রেজুলেশন করে কমিটির বেশির ভাগ সদস্য স্বাক্ষর করেছেন।

দুই প্রার্থীর কাছে বিপুল পরিমাণ টাকা নেয়ার বিষয়ে কিছুই জানিনা বলে সুপার জানান সভাপতি বলতে পারবেন কে তার পছন্দের প্রার্থী। মাদরাসার সভাপতি বুড়ান উদ্দিন পছন্দের প্রার্থীর কাছে বিপুল পরিমান টাকা নেওয়ার বিষয়ে অস্বীকার করে বলেন,আমি অসুস্থতাই বাড়িতে আছি। গোপনে নিয়োগের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি এ প্রতিবেদক কে বলেন,আগামী কাল স্বাক্ষাতে কথা বলবো বলে ফোন কেটে দেন।

অবশ্য প্রায় মাস খানেক আগে প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকলেও করোনার মধ্যেই অতি গোপনে অনিয়ম ভাবে চিনাসো সিনিয়র আলিম মাদরাসার চারটি পদে অন্তত ৪০ লাখ টাকার বিনিময়ে নিয়োগ দেয়া হয়েছে। স্থানীয়রা যাতে কোন ভাবেই জানতে না পারে এজন্য তানোর পৌর এলাকার সিন্দুকাই দাখিল মাদ্রাসায় অতি গোপনে নিয়োগ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়।

এর যাবতীয় কার্যক্রম পরিচালনা করেন মুণ্ডুমালা পৌরসভার কাউন্সিলর মাদরাসা পরিচালনা কমিটির সভাপতি মুন্টু। নিয়োগের ঘটনাটি বেশ কয়েকদিন পর ফাঁস হয়ে পড়লে এলাকার লোকজন হতবাগ হয়ে যান। কারন যেখানে অদৃশ্য প্রাণঘাতী ভাইরাস করোনার জন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ, সেখানে কিভাবে নিয়োগ দেয়া যায়। এসব বিষয়ে সরেজমিন তদন্তের দাবি জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

Surfe.be - Banner advertising service

https://www.facebook.com/gnewsbd24

Leave a Reply

More News Of This Category
<script async src="https://pagead2.googlesyndication.com/pagead/js/adsbygoogle.js?client=ca-pub-3423136311593782"
     crossorigin="anonymous"></script>
© All rights reserved © 2011 Live Media
কারিগরি সহযোগিতায়: মোঃ শাহরিয়ার হোসাইন
freelancerzone