মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৮:১২ পূর্বাহ্ন

প্রণব মুখার্জির প্রয়ানে বাংলাদেশ হারালো একজন সুহৃদ

জি-নিউজবিডি২৪ ডেস্ক :
  • Update Time : শনিবার, ৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০

ভারতের প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখার্জির প্রয়ানে বাংলাদেশ হারালো তার স্বজন, সুহৃদ এবং এক পরম আত্মীয়পুরুষকে বলে মন্তব্য করে সাবেক রাষ্ট্রদূত অধ্যাপক নিম চন্দ্র ভৌমিক বলেন, তাঁর মৃত্যুর মধ্য দিয়ে এই উপমহাদেশ একজন দক্ষ, স্থিতধি, প্রাজ্ঞ ও ধৈর্য্যশীল অভিভাবককে হারালো।

শনিবার (৫ সেপ্টেম্বর) বাংলাদেশ প্রেসকাউন্সিল মিলনায়তনে ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি ও উপমহাদেশের প্রবীণ রাজনিতিক প্রণব মুখার্জির প্রয়ানে বাংলাদেশ জাতীয় গণতান্ত্রিক লীগ আয়োজিত শোকসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, যে আত্মীয়ের সঙ্গে এই বাংলাদেশের মানবিক সম্পর্কের পাশাপাশি রাজনৈতিক সম্পর্কও ছিল গভীর এবং নিবিড়। বলাবাহুল্য এই গভীর নিবিড়তার মধ্যে প্রবহমান ছিল মমতারও অনিঃশেষ ফল্গুধারা। তাই প্রণব মুখার্জি হয়ে উঠেছিলেন বাংলাদেশের প্রকৃত বন্ধু, অকৃত্রিম অভিভাবক, সুহৃদ-সহচর।

সংগঠনের সভাপতি এম এ জলিলের সভাপতিত্বে আলোচনায় অংশগ্রহন করেন বাংলাদেশ ন্যাপ মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া, বঙ্গবন্ধু গবেষণা পরিষদ সভাপতি লায়ন গনি মিযা বাবুল, ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সাবেক উপদেষ্টা প্রকৌশলী আবুল কাশেম, ন্যাপ ভাসানী চেয়ারম্যান মোসতাক আহমেদ, জাতীয় স্বাধীনতা পার্টি চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান মিজু, ঢাকামহানগর উত্তর আওয়ামী লীগ নেতা আ.স.ম মোস্তফা কামাল, সাবেক ছাত্রনেতা মানিক লাল ঘোষ, করজারভেটিভ পার্টি চেয়ারম্যান এম এম আনিছুর রহমান দেশ, বাংলাদেশ ন্যাপ ভাইস চেয়ারম্যান স্বপন কুমার সাহা, বাংলাদেশ জাসদ ঢাকা মহানগর দক্ষিন যুগ্ম সম্পাদক হুমায়ূন কবির, নারী নেত্রী এলিজা রহমান প্রমুখ।

বাংলাদেশ ন্যাপ মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভুইয়া বলেন, প্রণব মুখার্জি রাজনৈতিক জীবনে ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যকার বন্ধুত্বপূর্ণ ও প্রতিবেশীসুলভ সম্পর্ককে অত্যন্ত আন্তরিকভাবে রক্ষায় সচেষ্ট ছিলেন। তিনি বাঙালি বলেই বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যকার সম্পর্ককে ইতিহাসের গভীর তলদেশ থেকে অনেকটা যেন প্রতœতাত্ত্বিক দৃষ্টিভঙ্গিও আলোকে অবলোকন করেছিলেন।

তিনি বলেন, প্রণব মুখার্জির রাজনৈতিক জীবন ও দর্শন উপমহাদেশীয় হাজার বছরের ইতিহাসের স্রোতধারায় সাঙ্গীকৃত। তাই ভারতবর্ষের ইতিহাস ও প্রণব মুখার্জির রাজনৈতিক দর্শন প্রজন্মান্তরে কেবল প্রবহমানই থাকবে না- অনেক প্রকৃত রাজনীতিবিদেরও পাথেয় হয়ে থাকবে।

লায়ন গনি মিয়া বাবুল বলেন, প্রণব মুখার্জি ছিলেন ভারতীয় উপমহাদেশের রাজনীতির এই উজ্জ্বল নক্ষত্র। তিনি ছিলেন দেশটির প্রথম বাঙালি রাষ্ট্রপতি। বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধসহ বিভিন্ন সংকটে তিনি অসাধারণ ভূমিকা পালন করেন।

তিনি বলেন, উপমহাদেশের রাজনৈতিক পরিমণ্ডলে প্রণব মুখার্জির বিচরণ, অবস্থান স্বর্ণাক্ষরে লেখা থাকবে। বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠায়, মহান মুক্তিযুদ্ধ ও স্বাধীনতা অর্জনের পরতে পরতে ওতপ্রতভাবে জড়িত ছিলন তিনি। বাংলাদেশের অকৃত্রিম এই বন্ধুর অবদান বাংলাদেশ, বাংলাদেশের মানুষ চিরদিন গভীর কৃতজ্ঞতার সঙ্গে স্মরণে রাখবে। বাংলাদেশ যতদিন থাকবে ততদিন এই অকৃত্রিম বন্ধুর নাম আমাদের স্বাধীনতা ও মহান মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসে স্বর্ণাক্ষরে লিখিত থাকবে।

সভাপতির বক্তব্যে এম এ জলিল বলেন, প্রণব মুখার্জির মত ভারতীয় রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব বিরল, যিনি প্রধানমন্ত্রীর পদটি ছাড়া কার্যত প্রায় সব শীর্ষপদে অধিষ্ঠিত হয়েছেন। তবু তার সবচেয়ে বড় পরিচয় তিনি বাংলাদেশের পরমমিত্র। সেই পরমমিত্র কিছুটা আকস্মিকভাবেই বিদায় নিলেন। একজন অসাধারণ রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব, এক গৌরবময় রাষ্ট্রনায়ক, রাজনীতির সব মহল আর সমাজের সব শ্রেণিতে তিনি শ্রদ্ধা পেয়েছেন।

Surfe.be - Banner advertising service

https://www.facebook.com/gnewsbd24

Leave a Reply

More News Of This Category
<script async src="https://pagead2.googlesyndication.com/pagead/js/adsbygoogle.js?client=ca-pub-3423136311593782"
     crossorigin="anonymous"></script>
© All rights reserved © 2011 Live Media
কারিগরি সহযোগিতায়: মোঃ শাহরিয়ার হোসাইন
freelancerzone