শনিবার, ২২ জানুয়ারী ২০২২, ০২:০৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম :

ভোলায় নদী ভাঙ্গন রোধে ব্লক স্থাপনের ব্যবস্থা নেওয়া হবে ঃ পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী

এম. শরীফ হোসাইন, বিশেষ প্রতিনিধি ভোলা ঃ
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ১৩৯ বার পঠিত

পানি সম্পদ মন্ত্রনালয়ের প্রতিমন্ত্রী লেঃ কর্ণেল (অবঃ) জাহিদ ফারুক শামিম এমপি বলেন, বাংলাদেশ সমৃদ্ধশালী দেশ হওয়ার লক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এগিয়ে যাচ্ছে। নদী ভাঙ্গন রোধে আওয়ামীলীগ সরকার সফল হয়েছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নিদের্শে আমি ভোলার নদী ভাঙ্গন এলাকা পরিদর্শন করতে এসেছি। যেসব এলাকা ভাঙ্গন কবলিত হয়েছে সেসব এলাকা নদী ভাঙ্গন রোধে ব্লক স্থাপনের ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ভোলায় ইতোমধ্যে ৩৪ কিলোমিটার এলাকা এলাকা ব্লক স্থাপন করা হয়েছে। বাকী ১৭ কিলোমিটার ভাঙ্গন কবলিত এলাকা সিসি ব্লক স্থাপনের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। বন্যা ও জলোচ্ছ্বাসসহ প্রকৃতিক দুর্যোগ থেকে ভোলাসহ উপকূলীয় এলাকাকে রক্ষা করার জন্য বাঁধের উচ্চতা বৃদ্ধি করতে সমীক্ষা চলছে। সমীক্ষা শেষে হলে বাঁধের উচ্চতা ১৮ ফুট করা হবে।

৪ঠা সেপ্টেম্বর শুক্রবার ভোলা সদরের ইলিশাসহ দৌলতখান, বোরহানউদ্দিন, লালমোহন, তজুমদ্দিন ও চরফ্যাশন উপজেলায় চলমান বাঁধ নির্মাণ কাজের অগ্রগতি পরিদর্শন ও নদী ভাঙন কবলিত এলাকা ঘুরে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে পানি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী কর্নেল (অব.) জাহিদ ফারুক এসব কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, নদী ভাঙন কবলিত মানুষের পাশে রয়েছে সরকার। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশেই নদী ভাঙন রোধে কাজ করে যাচ্ছি। ইতিমধ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বৈশ্বিক করোনা ভাইরাসের সময় অসহায় ও শ্রমজীবী কর্মহীন পরিবারের মাঝে হাজার হাজার কোটি টাকা প্রনোদনা দিয়েছেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে দেশ আজ অর্থনৈতিক ভাবেও অনেক শক্তিশালী।

মন্ত্রী বলেন, ষাটের দশকে নির্মিত বাঁধের উচ্চতা ছিল ১২ ফুট। কিন্তু এখন জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে পানির উচ্চতা বেড়েছে। তাই সমীক্ষার আলোকে আগামীতে ১৮ ফুট উঁচু করে বাঁধ নির্মাণ করা হবে।

তিনি আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে বাংলাদেশ অর্থনৈতিকভাবে অনেক উন্নতি লাভ করেছে। আজকে আমরা সাবলম্বীর পথে যাচ্ছি দেখেই অনেক বড় প্রকল্প নিতে পারছি। অতীতে কোনো সরকার এত বড় বড় প্রকল্প নিতে পারেনি। আর এগুলো সম্ভভ হয়েছে জননেত্রী শেখ হাসিনার জন্য।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ডেল্টা প্ল্যান ২০২১ সালের আওতায় ৬৪ জেলায়ই খাল খনন করা হচ্ছে। ৯ থেকে ১৫ কিলোমিটার চওড়া নদীগুলোকে ড্রেজিংয়ের মাধ্যমে ৫ থেকে ৭ কিলোমিটারের মধ্যে নিয়ে আসব। ড্রেজিংয়ের মাটিটা তুলে আমরা এলাকা বাড়াব। আমরা ২০৩১ সালের মধ্যে উচ্চ মধ্যম আয়ের দেশে পরিনত হবো।

এ সময় এমপিরা জানান, এখানকার মানুষের দুঃখ দূর্দশা হলো নদী ভাঙ্গন। এই নদী ভাঙ্গনের কবলে পড়ে মানুষ যখন ভূমিহীন হয়ে যায় অসহায় হয়ে পড়ে তখন তার কিছুই করার থাকেনা। এসময় নদীর পাড়ে হাজার হাজার মানুষ জড়ো হয়ে ব্লক স্থাপনের দাবীতে স্লোগান দিতে থাকে।

সাবেক উপমন্ত্রী ও ভোলা-৪ আসনের সংসদ সদস্য আবদুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকব, ভোলা-৩ আসনের সংসদ নূরন্নবী চৌধুরী শাওন, ভোলা-২ আসনের সংসদ সদস্য আলী আজম মুকুল, পানি উন্নয়ন বোর্ডের অতিরিক্ত সচিব মাহামুদুল ইসলাম, পানি উন্নয়ন বোর্ডের মহাপরিচালক এ এম আমিনুল ইসলাম, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মাসুদ আলম সিদ্দিক, পুলিশ সুপার সরকার মোহাম্মদ কায়সার, জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ফজলুল কাদের মজনু, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম গোলদার, জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জহুরুল ইসলাম নকিবসহ স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে মন্ত্রী সকালে ভোলা সদরের ইলিশায় পৌছলে তাকে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মাসুদ আলম সিদ্দিক এবং জেলা আওয়ামীলীগের পক্ষ থেকে জেলা সভাপতি ফজলুল কাদের মজনু তাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান। এ সময় জেলা প্রশাসনের বিভিন্ন স্তরের কর্মকর্তা ও জেলা আওয়ামীলীগের নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

 

Surfe.be - Banner advertising service




নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

এ জাতীয় আরো খবর..

<a href=”https://surfe.be/ext/446180″ target=”_blank”><img src=”https://static.surfe.be/images/banners/en/240x400_1.gif” alt=”Surfe.be – Banner advertising service”></a>

via Imgflip

Surfe.be - Banner advertising service

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি  © All rights reserved © 2011 Gnewsbd24
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazargewsbd451