বৃহস্পতিবার, ২০ জানুয়ারী ২০২২, ০৫:৫৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :

ক্লিনিক-ডায়গনস্টিক সেন্টারের অনিয়ম রুখবে কে ?

গাজী যুবায়ের আলম, ব্যুরো প্রধান, খুলনা ঃ
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ১০৮ বার পঠিত

খুলনা নগরীর অধিকাংশ বেসরকারী হাসপাতাল ও ডায়গনিষ্টিক সেন্টারগুলো রোগীদের সেবা দেওয়ার নামে করছে প্রতারোণার দেয়া হচ্ছে রোগীদের ইচ্ছা মত রিপোর্ট ।

এক ডায়গনিষ্টিক সেন্টারের রিপোর্ট অন্য ডায়গনিষ্টিক সেন্টারের সাথে মিলছেনা। একই ধরনের পরিক্ষার রিপোর্টে রয়েছে গড়মিল তারা ইচ্ছা মত নন ডিপে¬ামা প্যাথলজিষ্টি টেকনেশিয়ান দ্বারা রিপোর্ট করছে। এবং রোগীদের পরিক্ষার রিপোর্টের প্রদানের পুর্বে সাদা প্যাডে আগের থেকে চিকিৎসকদের স্বাক্ষর করে রেখে দ্বায়িক্তরত টেকনেশিয়ানরা রিপোর্ট বসিয়ে দিচ্ছে। এমনই চিত্র দেখা যাচ্ছে নগরীর বিভিন্ন বেসরকারী ডায়গনিষ্টিক সেন্টার ও বেসরকারী হাসপাতাল গুলোতে।

নগরীর আহসান আহমেদ রোডে অবস্থিত লাইফ কেয়ার ডায়গনিষ্টিক সেন্টারে। রোগী জামাল হোসেন পিতা-আজমাল হোসেন বলেন আমার ছেলে হটাৎ খাওয়া বন্ধ করে দেয় কোন কিছু খাবার খেতে গেলে সে বমি করে যে কারনে আমি খুলনা সদর হাসপাতালে আউট ডোরে চিকিৎসক পার্থ ঘোষের কাছে দেখায় সেখান থেকে আমাকে কয়েকটি পরিক্ষার নির্দেশনা দেয়া হয়। এবং পথের মধ্যে একজন মহিলা এসে আমার হাসপাতালের টিকিট দেখতে চায়।

আমি তাকে সরল মনে পকেট থেকে টিকেট বের করে দিলে সে আমাকে বলে ডাঃ সাহেব আপনা কে বেশ কয়েকটি পরিক্ষা দিয়েছে। আপনি পরিক্ষা গুলো যদি করেন তাহলে আমাদের লাইফ ডায়গণিষ্টিক সেন্টার আসেন আমারা আপনাকে ৩০% কমিশন নিব। কাছে টাকা নেই শুনে ও বলে যে পরে টাকা দিয়েন আপনি আসেন বলে আমাকে আহসান আহমেদ রোডে লাইফ কেয়ার ডায়গনিষ্টিক সেন্টারে নিয়ে আসেন এবং সেখানে পরিক্ষা বাবদ মোট খরছ ৩৩০০ টাকা দাবি করে আমি তাৎক্ষনিক ৭০০ টাকা দেই এবং রিপোর্ট নেয়ার সময়ে বাকি টাকা দিব বলে চলে আসি এবং পরের দিন আমার ছেলের রিপোর্ট দেখি হেমোগে¬াবিন পয়েন্ট এসছে মাত্র ৯.১১ ।

আমি দুই দিন পর রিপোর্ট দেখাতে ডাঃ সাহেবকে দেখালে তিনি পুনারায় আমাকে আবারো ও রক্তের হোমোগে-াবিন পরিক্ষা দেয়। এবার আমি এক আত্বীয়র মাধ্যমে স্টার ডায়গনিষ্টিক থেকে হেমোগ¬াবিন পরিক্ষা সহ অন্যান পরিক্ষা করি এবার দেখি আগের পরিক্ষরা রিপের্টের সাথে কোন কিছুই মিলছেনা। এখানে হোমো গে¬াবিন রিপোর্ট এসছে এবার ১১.২ আমি অবাক হয়ে আমার ছেলের আগের রিপোর্টের সাথে কোন পরিক্ষার রিপোর্ট মিলছেনা। তাছাড়া রোগীদের সাতে এমন প্রতারোণার অভিযোগ আগের থেকে রয়েছে আগের থেকে নগরীর বেশ কয়েকটি নামি দামি ডায়গনিষ্টিক সেন্টার গুলোতে ।

এবিষয়ে খুলনা বেসরকারী ক্লিনিক ও ডায়গনিষ্টিক সেন্টার এ্যসোসিয়ানের সভাপতি ডাঃ গাজী মিজান বলেন বর্তমান সময়ে নগরীতে বেশ কয়েকটি ডায়গনিষ্টিক সেন্টার আছে যাদের বিরুদ্ধে এর আগে ও এম কয়েকটি অভিযোগ পাওয়া গেছে । মুলত যেসব ডায়গনিষ্টিক সেন্টারে প্যাথলজিষ্ট পরিক্ষা করা হয় আগে দেখতে হবে এই পরিক্ষর মেশিন হুলো কেমন ধরনের যেমন একটি মেশিনের মূল্য পঞ্চাশ হাজার টাকা ও আছে আবার কোনটার মূল্য পচিশ লাখ টাকা এই যে প্যাথলজিষ্ট পরিক্ষার মেশিন কেমন ধরনের রিপোর্ট তৈরি করছে সেই বিষয়টি দেখলে বোঝা যাবে ।

আর প্যাথলজিষ্ট পরিক্ষার সময়ে যে ধরনের রি এজেন্ট বা মেডিসিন দেয়া হয়ে থাকে সেই মেডিসিনটা কেমন ধরনের এই একটা বিষয়। এবং মেশিন এর পিছনের কারা নিয়ন্ত্রন করছে তারা কি দক্ষ টেনেশিয়ান না কি এই কয়েকট বিষয় দেখলে সব বেরিয়ে যাবে। তাছাড়া বাণিজ্য মন্ত্রানালয়ে ২০০৪ সালের একটি আদেশ আছে যে কোন প্রতিষ্ঠান অনুমাদোন নিতে হলে তার কি কি পলিসি সেই বিষয়টি যাচাই বাচাই করা।

অথছ সেটা অনেকে মানছেনা তাছাড়া সিটি কর্পেরেশন থেকে সহযে ট্রেড লাইসেন্স পাওয়াতে তাদের ব্যাবসা করতে কোন সমস্য হচ্ছেনা মূলত কর্তৃপক্ষর নজর আরো বেশি বাড়ানো উচিত। এবিষয়ে লাইফ কেয়ার ডায়গনিষ্টিক সেন্টারের পরিচালক আব্দুর রহমান বলেন আমি জানিনা কি হয়েছে একটু ভুল হতেই পারে তাছাড়া কয়েকদিন পর পর মানুষের শরীরের পরিবর্তন হতে পারে আমি বিষয়টি দেখবো আপনি রোগী পাঠিয়ে দিয়েন।

এবিষয়ে খুলনা বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডাঃ রাশেদা সুলতানা বলেন বলেন আমরা নিয়মিত মনিটরিং করছি তাছাড়া আমি যদি কোন ডায়গনিষ্টিক সেন্টারের বিরুদ্ধে প্রতারোণা করবার প্রমান পাই আমি সেসব ডায়গনিষ্টিক সেন্টার বন্ধ করব ও তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিব এবং আমি বিষয় টি তদন্ত করব।

 

Surfe.be - Banner advertising service




নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

এ জাতীয় আরো খবর..

<a href=”https://surfe.be/ext/446180″ target=”_blank”><img src=”https://static.surfe.be/images/banners/en/240x400_1.gif” alt=”Surfe.be – Banner advertising service”></a>

via Imgflip

Surfe.be - Banner advertising service

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি  © All rights reserved © 2011 Gnewsbd24
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazargewsbd451