বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর ২০২২, ১০:২৪ অপরাহ্ন

সাতক্ষীরা আশাশুনির বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে বৃক্ষরোপন করে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন

গাজী যুবায়ের আলম, ব্যুরো প্রধান, খুলনা ঃ
  • Update Time : বুধবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০২০

আশাশুনির কচুয়া গ্রামের গ্রাম্য ডাক্তার আনিছুর রহমান দীর্ঘ প্রায় অর্ধশত বছর ধরে তার নিজস্ব অর্থায়নে বিভিন্নস্থানে ফলজ ও বনজ গাছ লাগিয়ে এলাকায় উজ্জল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন।

সরজমিনে ঘুরে তথ্যানুসন্ধানে জানাগেছে, উপজেলার কুল্যা ইউনিয়নের কচুয়া গ্রামের মৃত. আবু জাফর সরদারের পুত্র বৃক্ষপ্রেমী আনিছুর রহমান ১৯৪৭ সালের ১৩ এপ্রিল জন্ম গ্রহন করেন। এরপর বড় হয়ে মানব সেবা গ্রাম্য ডাক্তারীতে আত্মনিয়োগ করার পাশাপাশি তিনি দেশের বিভিন্নস্থানে তার নিজ খরচে ফলজ, বনজ ও সৌন্দর্যবদ্ধন বিভিন্ন প্রজাতির গাছ লাগিয়ে চলেছেন।

বিগত ৪৫ বছর ধরে তিনি দেশের বিভিন্নস্থানে প্রতি বছর আষাঢ়, শ্রাবণ ও ভাদ্র মাসে বাজার থেকে গাছ ক্রয় করে বিভিন্ন হাটবাজার, সামাজিক ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান চত্বর এবং রাস্তার পাশে তা রোপন করে চলেছেন। এছাড়াও তিনি সারা বছরের বিভিন্ন সময়ে পছন্দমত বিভিন্নস্থানে নিজ খরচে নিজ হাতে গাছ রোপন করে থাকেন। এরই ধারাবাহিকতায় কাদাকাটি বাজারের বিভিন্নস্থানে ছোট ও বড় যতগুলো গাছ আছে তার অধিকাংশ গাছ বৃক্ষপ্রেমী ডাঃ আনিছুর রহমান নিজ খরচে নিজ হাতে রোপন করা।

তিনি বুধহাটা বাজার, নওয়াপাড়া মসজিদ, নওয়াপাড়া সীমানা পয়েন্ট, কুল্যা ইউনিয়ন পরিষদ, জামালনগর এলাকায়, সদর উপজেলার বাঁকাল এতিমখানায়, খুলনার শিরোমনি এলাকায়, বিভিন্ন স্কুল, কলেজ, মসজিদ, মন্দির, ঈদগাহ সহ অসংখ্য ধর্মীয় প্রতিষ্ঠান, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, সামাজিক প্রতিষ্ঠান, বিভিন্ন অসহায় লোকদের বাড়ির আঙ্গিনায় ও রাস্তার পাশে তিনি হাজার হাজার গাছ লাগিয়েছেন। বিভিন্নস্থানে তার লাগানো গাছের মধ্যে আম, জাম, কাঠাল, লিচু, কদবেল, আমড়া, নারিকেল, কৃষ্ণচুড়া, কদম, বকুল, শিশু, মেহগনি, শুপারী, নারিকেল, কেওড়া, সুন্দরী গাছসহ বিভিন্ন প্রজাতির গাছ।

এসব গাছ তিনি নিজ উদ্যোগে লাগিয়ে আসার পর গাছগুলো বড় হলে তা বিক্রিয় করে বিভিন্ন কাজে লাগিয়েছেন সংশি¬ষ্টরা। আর যেগুলো এখনো বিক্রয় করা হয়নি সেগুলো আজও বিভিন্নস্থানে বড় হয়ে কালের স্বাক্ষী হিসাবে দাঁড়িয়ে আছে। এলাকার সচেতন মহল বলেন, বৃক্ষপ্রেমী গ্রাম্য ডাক্তার আনিছুর রহমান যেভাবে এলাকায় নিজ খরচে গাছ লাগিয়ে চলেছেন সত্যি তিনি বৃক্ষপ্রেমী হিসাবে সুপরিচিত। তিনি এলাকাবাসির কাছে বৃক্ষ রোপনে উজ্জল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন।

গ্রাম্য ডাক্তার আনিছুর রহমান জানান, আমি ডাক্তারী পেশার পাশাপাশি সমাজ, রাষ্ট তথা বাংলাদেশী জাতীকে সেবার ব্রত নিয়ে বিগত ৪৫ বছর ধরে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানসহ বিভিন্নস্থানে যেখানে যে গাছ মানানসই সেখানে সে গাছ রোপন করেছি এবং এখনও করছি। গাছ লাগাতে আমার অনেক ভালো লাগে, আরও ভালো লাগে যখন আমার লাগানো গাছ থেকে কেউ কোন সুফল ভোগ করতে থাকে। তিনি যুব সমাজকে বেশী বেশী করে গাছ লাগানোর আহবান জানান।

Surfe.be - Banner advertising service

https://www.facebook.com/gnewsbd24

Leave a Reply

More News Of This Category
<script async src="https://pagead2.googlesyndication.com/pagead/js/adsbygoogle.js?client=ca-pub-3423136311593782"
     crossorigin="anonymous"></script>
© All rights reserved © 2011 Live Media
কারিগরি সহযোগিতায়: মোঃ শাহরিয়ার হোসাইন
freelancerzone