বুধবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২১, ১০:১৩ অপরাহ্ন

ঈশ্বরদী’র নুরুন্নাহারের ২কোটি ৫৮ লক্ষ টাকার ব্যাংক ঋণে অনিয়মের অভিযোগ

শফিক আল কামাল, পাবনা প্রতিনিধি :
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ২৮ অক্টোবর, ২০২০
  • ১৪২ বার পঠিত

পাবনা’র ঈশ্বরদী উপজেলার ছলিমপুর (বক্তারপুর) জয়নগরের রবিউল ইসলাম বিশ্বাসের স্ত্রীর নামে “মেসার্স নূরুন্নাহার কৃষি খামার” মিথ্যা তথ্য দিয়ে অগ্রণী ব্যাংক লিমিটেড ঈশ্বরদী শাখা থেকে প্রায় ২কোটি ৫৮ লাখ টাকা ব্যাংক ঋণ গ্রহন করা হয়। নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানা যায়, মেসার্স নূরুন্নাহার কৃষি খামার” এর বিপরীতে ৩ কোটি ৪৬ লাখ টাকার প্রকল্পের মধ্যে নিজস্ব তহবিল দেখানো হয়েছে ৮৮ লাখ টাকা।

খামার মালিক কর্তৃক ব্যাংকে জামানত হিসেবে ১কোটি ৭১ লাখ টাকা অর্থাৎ ৬৬% জামানত দেখানো হয়। যা ব্যাংক ঋনের যথাযথ শর্ত পালন করা হয়নি। সরেজমিনে খামারে গিয়ে দেখা যায়, প্রকল্পে ৭০ টি ষাড় ও গাভী থাকার কথা থাকলেও আছে মাত্র ১৫ টি বাছুর গরু ও ৩টি ছাগল। এই ১৫ টি বাছুর গরু ও ৩ টি ছাগলের বিপরীতে করোনা কালীণ সঙ্কটময় পরিস্থিতির সুযোগ নিয়ে তিনি আবার সাড়ে ৬৪ লাখ টাকা প্রনোদনার জন্য আবেদন করেছেন।

সেক্ষেত্রে কোন জামানত দেখানো হয়নি। খোঁজ নিয়ে আরও জানা যায় ঋণ গ্রহীতা নুরুন্নাহার ১লক্ষ টাকা বেতনের ঢাকায় চাকরি করেন। সেই সুবাদে অধিকাংশ সময়ে তিনি রাজধানী ঢাকা অবস্থান করেন। অথচ এতো টাকার এই প্রকল্পের দেখা শোনার জন্য ১৩ বছর বয়সী ১জন কিশোরকে রাখা হয়েছে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে ঐ এলাকার কৃষকরা বলেন, অনেকেই শর্ত পূরণ করে ব্যাংক ঋণের জন্য আবেদন করেছেন। কিন্তু কারো ব্যাংক ঋণ পাশ না হলেও নূরুন্নাহার কৃষি খামার ঠিকই ঋণ পেল। তিনি ঢাকায় থাকেন উপরে ম্যানেজ করে চলেন। অনেকের মনেই প্রশ্ন তিনি কিভাবে ঋণ পান ? উপরে আসলে কারা আছেন? আবার উপরে যারা রয়েছেন তারা নুরুন্নাহার কে ঋণ পাইয়ে দিয়ে বিশেষ কোন সুবিধা নিচ্ছেন কিনা না সেটাও প্রশ্ন থেকে যায় সবার কাছে। আরও জানা জানা যায় বিগত ১০ বছরে নুরুন্নাহার উপর মহলের প্রভাব খাটিয়ে অগ্রণী ব্যাংক লিমিটেড ঈশ্বরদী শাখার ১৭জন ম্যানেজারকে বিভিন্ন জায়গায় বদলি করান।

এ ব্যাপারে কৃষক নূরুন্নাহারের খামারে সরজমিনে গেলে তাকে পাওয়া যায়নি। রাজধানী ঢাকায় অবস্থান করায় তার সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করলে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, কোন সাংবাদিক তার পেছনে লেগেছে। আমার বিরুদ্ধে প্রিন্ট মিডিয়ার যারা সংবাদ প্রকাশ করেছেন। আমি তাদের বিরুদ্ধে মামলা করবো। তিনি আরও বলেন আমাকে উপরের যারা ঋণ পাইয়ে দিয়েছেন তাদের কাছেও বিষয়টি জানাবো।

অগ্রণী ব্যাংক লিমিটেড ঈশ্বরদী শাখার ম্যানেজার আব্দুস সবুর শেখ বলেন, এই শাখায় আমি নতুন এসেছি। এ ব্যাপারে তেমন কিছু জানি না। আপনাদের বিস্তারিত কোন কিছু জানার থাকলে “মেসার্স নূরুন্নাহার কৃষি খামার” ঋণ পাশের সময়কালীণ ম্যানেজার মো. ফজলুল হকের সাথে যোগাযোগ করতে হবে।

অগ্রণী ব্যাংক লিমিটেড পাবনা জোন এর ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার মো. ইখতিয়ার উদ্দিন ঈশ্বরদী উপজেলার কৃষিতে জাতীয় পর্যায়ে ৩ বার পুরস্কারপ্রাপ্ত সফল নারী উদ্যোক্তা ও কৃষক নুরুন্নাহার এর ব্যাংক ঋণের অনিয়মের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন এ ব্যাপারে আমি কিছু জানি না, বড় ঋণ পাশ হয় উপর থেকে। করোনা কালীন সময়ে কৃষক নুরুন্নাহার ৬৪ লক্ষ টাকা প্রণোদনা চেয়ে ঈশ্বরদী শাখায় আবেদন করে এ বিষয়ে জানতে চাইলে ব্যাংক কর্মকর্তা মো. ইখতিয়ার উদ্দিন আরও বলেন কোনভাবেই এই প্রণোদনার টাকা তিনি পাবেন না।

Surfe.be - Banner advertising service




নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

এ জাতীয় আরো খবর..

<a href=”https://surfe.be/ext/446180″ target=”_blank”><img src=”https://static.surfe.be/images/banners/en/240x400_1.gif” alt=”Surfe.be – Banner advertising service”></a>

via Imgflip

Surfe.be - Banner advertising service

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি  © All rights reserved © 2011 Gnewsbd24
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazargewsbd451