সোমবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২১, ১১:৫৫ পূর্বাহ্ন

খুলনাঞ্চলের কৃষকেরা শীতকালীন সবজি চাষে ব্যস্ত!

গাজী যুবায়ের আলম, ব্যুরো প্রধান, খুলনা ঃ
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ২ নভেম্বর, ২০২০
  • ১৪৬ বার পঠিত

শীত আসতে আর বাকি নেই। শীতের আগমনী বার্তা রবি মৌসুম শুরুর জানান দিচ্ছে। এরই মধ্যে খুলনা জেলার ৯টি উপজেলায় শীতকালীন সবজির চাষ শুরু করেছেন চাষিরা।

প্রতি বছর আগাম উৎপাদিত সবজি বাজারে তুলে বিক্রয়ে ভালো দাম পেয়ে থাকেন চাষিরা। তাই আগাম সবজি আবাদে আগ্রহী তারা। খুুলনা জেলার ৯ উপজেলার কৃষকরা শীতকালীন সবজি চাষে ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন। সূত্রমতে, খর্ণিয়া, ভদ্রদিয়া, বরাতিয়া, নরনিয়া, কাঠাঁলতলাসহ বিভিন্ন গ্রামের চাষিরা ব্যস্ত শীতকালীন সবজি চাষে। অন্যান্য ফসলের তুলনায় শীতকালীন সবজি চাষ লাভবান হওয়ায় কৃষকেরা এদিকেই ঝুঁকে পড়েছেন বলে জানান এলাকার চাষিরা।

শীতের শুরুতেই বাজারে বিক্রি করে বেশি টাকা আয়ের আশায় চাষিরা এখন জমিতে শীতকালীন শাকসবজির চারা বপন ও পরিচর্যার কাজ করছেন। এ সমস্ত এলাকায় চাষ হচ্ছে, আলু, মূলা, বেগুন, ফুলকপি, বাঁধাকপি, টমেটো, ঢেঁড়স, লালশাক, পালংশাক, পুঁইশাক, লাউ অন্যতম। তবে ডুমুরিয়া উপজেলায় এ বছর ফুলকপি ও বাঁধাকপির চাষ একটু বেশিই দেখা গেছে। সবজির মান ভালো হওয়ায় পইকারীর পাশাপাশি খুচরা বাজারেও নতুন সবজির চাহিদা বেশ ভালো থাকে, দামও বেশি পাওয়া যায়।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর খুলনা অফিস সূত্রে জানা গেছে, চলতি রবি মৌসুমে এ জেলায় শীতকালীন লাল শাকের আবাদ হয়েছে ৫২০ হেক্টর জমিতে, ঘৃতকাঞ্চন ২৭৪ হেক্টর জমিতে, গীমাকমলী ২৭০ হেক্টর জমিতে, পালংশাক ৩৭১ হেক্টর জমিতে, শিম ৪৬৭ হেক্টর জমিতে, মুলা ৩২৩ হেক্টর জমিতে, টমেটো ৭৬৬ হেক্টর জমিতে, বাঁধাকপি ২৪০ হেক্টর জমিতে, ফুলকপি ৩৬২ হেক্টর জমিতে, ওলকপি ৫১৯ হেক্টর জমিতে, বিটকপি ১২০ হেক্টর জমিতে, বেগুন ৭২৪ হেক্টর জমিতে, লাউ ৩৫৭ হেক্টর জমিতে, লাউ ডগার শাক ৯৩ হেক্টর জমিতে, গাজর ২৩ হেক্টর জমিতে, শসা ৮৯ হেক্টর জমিতে, মিষ্টি কুমড়া ২৯০ হেক্টর জমিতে, বরবটি ১৩২ হেক্টর জমিতে, কাঁচকলা ১৮৪ হেক্টর জমিতে, উচ্চে ২৬৭ হেক্টর জমিতে, পেঁপে ১৭৫ হেক্টর জমিতে, ডাটাশাক ১৬২ হেক্টর জমিতে, আলু ২৯০ হেক্টর জমিতে, সরিষা ২৭০ হেক্টর জমিতে, ভুট্টা ৩২ হেক্টর জমিতে, আখ ৬০ হেক্টর জমিতে, মরিচ ১৬৫ হেক্টর জমিতে, মসুর ৭৫ হেক্টর জমিতে ও খেসারী ৭৫ হেক্টর জমিতে।

খুলনার ডুমুরিয়া নয়াকাটি গ্রামের কৃষক জানান, আগাম সবজি চাষ করে বেশি লাভবান হয়ে থাকি। জেলার বিভিন্ন স্থান থেকে পাইকার এসে উৎপাদিত এসব সবজি মাঠ থেকেই আমাদের কাছ থেকে ক্রয় করে নিয়ে যায়। তারা দেশের বিভিন্ন প্রান্তে নিয়ে গিয়ে থাকেন। ডুমুরিয়া উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ নজরুল ইসলাম জানান, এ উপজেলায় ব্যাপক সবজির আবাদ হয়।

সারা বছরের তিনটি মৌসুমে প্রায় ২০০ কোটি টাকার সবজির আবাদ হয়ে থাকে। খুলনার জেলা ৯ উপজেলায় যত জমিতে সবজির আবাদ হয়ে থাকে তার অর্ধেকের বেশি সবজির আবাদ হয় ডুমুরিয়াতে।

Surfe.be - Banner advertising service




নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

এ জাতীয় আরো খবর..

<a href=”https://surfe.be/ext/446180″ target=”_blank”><img src=”https://static.surfe.be/images/banners/en/240x400_1.gif” alt=”Surfe.be – Banner advertising service”></a>

via Imgflip

Surfe.be - Banner advertising service

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি  © All rights reserved © 2011 Gnewsbd24
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com
themesbazargewsbd451